ঢাকা, বাংলাদেশ || শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯ || ৮ ভাদ্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ সারেদেশে বজ্রপাতে নিহত ১২ ■ রাখাইনে প্রবেশ করতে চায় ইউএনএইচসিআর ■ এমপির পছন্দের ব্যক্তিই হবেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সভাপতি ■ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রাথমিকে আরো ২০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ ■ রোহিঙ্গাদের ফেরত না যাওয়ার নেপথ্যে রয়েছে যার প্রভাব ■  ভারতের সঙ্গে কোনো আলোচনা নয় ■ বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছিলেন জিয়াউর রহমান ■ বাংলাদেশের অশুভ শক্তিকে পরাভূত করতে হবে ■ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ৯৪ ডাক্তার ও ৩০০ স্বাস্থ্যকর্মী ■ তিনদিনে ৬৫৮ বাড়িতে অভিযান, ডেঙ্গু পাওয়া গেছে ৫৬ বাড়িতে ■ ভারত নয় পাকিস্তান যুদ্ধের চেষ্টা করছে ■ ছুটিতে গেলেন সেই তিন বিচারপতি
ইভিএম পদ্ধতিতে পঞ্চম ধাপে গাজীপুর সদর উপজেলা নির্বাচন
আজিজুল হক, (গাজীপুর) :
Published : Tuesday, 18 June, 2019 at 11:09 PM

পঞ্চম উপজেলা নির্বাচনে শেষ ধাপে গাজীপুর সদর উপজেলা নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে।  আজ উপজেলা ৪ টি ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত ভাওয়ালগড়, মির্জাজপুর, পিরোজ আলী, বারিয়া ইউনিয়ন নিয়ে গঠিত এ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।  মোট ভোটার সংখ্যা ১,১৭,৪৭৫ জন। এই প্রথম ইলেকট্রিক মেশিন ই.ভি.এম পদ্ধতিতে ভোট গ্রহণ করা হয় মোট ৫০ টি কেন্দ্রে ৫০ টি কেন্দ্রেই ইলেকট্রিক মেশিন ই.ভি.এম পদ্ধতি দ্বারা ভোট গ্রহণ করা হয়। 

উপজেলা নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী প্রতিদন্ধিতা করে ৪ জন।  ভাইস চেয়ারম্যান ৩ জন। এবং সংরক্ষিত মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ৩ জন। এখানে নৌকা নিয়ে যিতি প্রতিদন্ধিতা করেন আওয়ামীলীগ সমর্থিত এড্যাঃ রিনা পারভীন, বি.এন.পি. সমর্থিত ইজাজুল হক মিলন চৌধুরী। ভোট গ্রহণ কালে তেমন কোন সহিংসতার ঘটনা ঘঠেনি। সকাল ৮ টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়। 

এবং বিকেল ৫ টা ভোট গ্রহণ করা শেষ হয়। আমি নির্বাচনের পর্যবেক্ষন থাকা কালীন বেশ কয়েকটি কেন্দ্র পরিদর্শন করি শিরির চালা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পুরুষ কেন্দ্র ১৯ নং মোট ভোটার সংখ্যা ৩৫৭৫ জন। সে খানকার দায়েত্বে থাকা পিজাইডিং সেলিম উর রহমান এর সাথে জানতে পারি ইলেকট্রিক মেশিন দ্বারা ভোট গ্রহণ করা হচ্ছে। এবং গতা ৩ দিন আগে থেকে ভোটারদের প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। বানিয়ার চালা সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় পুরুষ কেন্দ্র নং ২১ মোট ভোটার সংখ্যা ৩১৯২ সে খানকার দায়েত্বে থাকা পিজাইডিং অফিসার শহিদুল ইসলাম বলেন সাথে কথা বলে জানতে পারি  এখন পর্যন্ত খুব শান্তিপূর্ণ ভাবে ই.টি.এম.এ ভোট গ্রহণ হচ্ছে। আমি ভোটারদের সাথে কথা বলে জানতে পারি যে ই.ভি.এম পদ্ধতিতে সহজেই ভোট দিতে পারেছে। বি.এন.পি সমর্থিত চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী ইজাজুল হক মিলন চৌধুরী ভোট বজন করেন। মঙ্গলবার সকাল ভোট গ্রহণ শুরু ২ ঘন্টা পর নিজ বাড়ীতে সংবাদ সম্মেলন করে তিনি ভোট বজন করেন কথা জানান। 

সংবাদ সম্মেলনে ইজাজুল হক মিলন চৌধুরী বলেন কোথাও নির্বাচনের পরিবেশ নেই। সর্বগুলে কেন্দ্র থেকে মারদুর করে আমার এজেন্ট বের করে দেওয়া হয়েছে। কর্মী সমর্থক দের ভোট দেওয়া হচ্ছে না। সকাল ৯.৩০ মিনিট বি.কে বাড়ী সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট দিতে গিয়ে নিজের নিরাপত্তা হিনতায় নিজের ভোট টি ও দিতে পারেনি যুবলীগ ছাত্রলীগ কেন্দ্র দখল করে রেখেছে। পুলিশের সাহায্য চেয়েও পায় নি।  রিটার্নিং অফিসার ও জেলা প্রশাসককে জানিয়ে ও কোন সহযোগিতা পায়ইনি। পুলিশ সুপার কে কল করলে তাকে পাওয়া যায় নি। 

পরিস্থিতিতে নির্বাচন করা যায় না। তাই ভোট বজন করে সরে দারালাম এবং পুনরায় নির্বাচনের দাবি জানাচ্ছি। তিনি আরো বলেন সুষ্ট নির্বাচন হলে আমার বিজয় সুনিশ্চিত ছিল। কিন্তু এই অবস্থা দেখে তারা আমাকে নানা ধরনের হুমকি দুমকি দিচ্ছে। আজ কেন্দ্র থেকে আমার এজেন্ট বের করে দিয়েছে। পুলিশ ও দলীয় নেতা কর্মীর মাধ্যমে। এ ব্যাপারে রিটার্নিং কর্মকতা আবুল নাসার জানান। কোথাও কোন গোলযুগের খবর তিনি জানে না। শান্তিপূর্ণ ভাবে নির্বাচন চলছে। এজেন্ট বের করে দেওয়া বা মারদুর করা সম্পর্কে কেউ অভিযোগ করেনি। 

এ দিকে আওয়ামীলীগ প্রার্থী এড্যাঃ রিনা পারভীন পিরোজ আলী আর্দশ হাই স্কুলের সকাল ৯ টার দিকে ভোট দিতে গিয়ে। সাংবাদিকদের বলেন শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট গ্রহণ হচ্ছে। আমার নেতা কর্মীর বিরোদ্ধে সতন্ত প্রার্থীর অভিযোগ সঠিক নয়। নির্বাচন বাঞ্চান করতে তিনি এই সব বক্তব দিচ্ছে। নির্বাচনের ফলাফল পাস ফেল যাই হোক আমি মেনে নিব। 

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এসআই

মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. আবদুস সবুর মিঞা (অব.)
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft