ঢাকা, বাংলাদেশ || রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯ || ৩ ভাদ্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ কাচাঁ চামড়া নষ্ট হয়েছে মাত্র ১০ হাজার পিস ■ ঢাকা মেডিকেলে দু'পক্ষের ব্যাপক সংঘর্ষ, আহত ২০ ■ ফিলিস্তিনে ইসরাইলের রকেট হামলা ■ ঘুষ প্রদানকারীদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে হবে ■ কাশ্মীরিদের ওপর অত্যাচার চালানো হচ্ছে ■ ব্যারিস্টার মওদুদের জন্য দেশটা পিছিয়ে গেছে ■ এবারের ঈদযাত্রায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২২৪ ■ শিগগিরই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু ■  বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ৭ ■ চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশ পাঠানো হবে ■ ভুলের চোরাবালিতে আটকে রাজনীতিতে শূন্য বিএনপি ■ চামড়ার বাজারে নৈরাজ্যর প্রতিবাদে মানববন্ধন
আমাদের ধর্ষিত সমাজ
জান্নাত আক্তার শ্রাবণী
Published : Sunday, 21 July, 2019 at 2:42 PM, Update: 21.07.2019 4:59:04 PM

জানুয়ারি জানুয়ারি থেকে জুলাই (২০১৯) মাত্র সাত মাস।


এই সাত মাসে ধর্ষনের শিকার আনুমানিক ৫০৩ জন। যার থেকে বাদ পড়ছে না চার মাসের ছোট্ট শিশুটিও।
এটা কোন গল্প নয়, এটা আমাদের স্বাধীন বাংলাদেশের একটি কলঙ্কময় পৃষ্ঠা।

কেন হচ্ছে এই ধর্ষন?
এর উত্তর কি?


খুব সহজ ভাষায় আমাদের সাধু সমাজ উওর দিবে যে উশৃংখল চলাচল, ছোট পোশাক, বেপর্দা চলাচল ধর্ষনের কারন।
তাহলে প্রশ্ন হচ্ছে সায়মার মতন বাচ্চা শিশুটির কোন পোশাকে ধর্ষকের নজর কেড়েছিল?  তার কোন জিনিসটা দেখে ধর্ষকের ফিলিংস জেগে উঠেছিল? সে কি ঠোঁট কামড়িয়ে,  চোখ টিপে, অঙ্গভঙ্গী করে তার কাম ভাষনা প্রকাশ করেছিল? যার জন্য তাকেও ধর্ষিত হতে হয়েছিল, এই অল্প সময়েই পৃথিবী সকল সৌন্দর্যের মায়া ত্যাগ করতে হয়েছে।

আমরা কি আদৌ স্বাধীন? আমরা কি আদৌ নিরাপদ?

না। আমরা স্বাধীন নই, নিরাপদ ও নই, আমরা এক ভয়ংকর সময় পাড় করছি যার প্রতিটা মুহূর্তেই আমাদেরকে আতঙ্কে থাকতে হয় এই বুঝি আমার পালা, এইবার হয়ত আমি ধর্ষিত হব, আমার বেঁচে থাকার মুহূর্ত হয়ত এখানেই শেষ।

ধর্ষকের এত সাহস কোথা থেকে?

ধর্ষকের সাহস বাড়াটাই স্বাভাবিক।  ধর্ষন করে দিব্যি ঘুরে বেড়াচ্ছে না হচ্ছে কোন বিচার না হচ্ছে কোন আইন প্রয়োগ। শুধু মাত্র গুটি কয়েক ধর্ষককে আইনের আওতায় আনা হয় তাও হচ্ছে সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল হওয়ার ফল। কিন্তু প্রতিদিনই প্রতিনিয়ত যে ধর্ষনের শিকার হচ্ছে তার কোন হিসাবই নেই, তা প্রকাশ হওয়ার আগেই মিলিয়ে যায়।
যেখানে ধর্ষকের সর্বোচ্চ শাস্তি হওয়া উচিত সেখানে ধর্ষক দিব্যি আয়াশের সাথে জীবন যাপন করে।
আর ধর্ষিতা সারাজীবন কলঙ্ক বয়ে বেড়ায়, আর প্রতিনিয়তই শাস্তি ভোগ করতে থাকে।যেখানে সমাজ তাকে কিট ভাবে।মত্যুর আগ পর্যন্ত থাকে এই কলঙ্ক বয়ে বেড়াতে হয়।

আমরা কোথাও নিরাপদ নই।
কেন আমরা কি পারি না আমাদের সমাজে নিরাপদে বাস করতে?
আমরা পারি না সম্মানের সাথে জীবন কাটাতে।

কিভাবে মুক্তি পাব এই ধর্ষন নামক অভিশাপ থেকে?

এর উওর এর জন্য, এর সমাধনের জন্য খুব বেশি কষ্ঠ করার প্রয়োজন নেই, শুধু মাত্র আমাদের প্রত্যেকের ঘুমন্ত ও অসচেতন বিবেকবোধ কে জাগ্রত করাই যথেষ্ট।

চলুন আমরা সকলে মিলে একটু নতুন সমজ গড়ি। আমরা আমাদের কুৎসিত ও নোংরা চিন্তা থেকে বের হয়ে একটা সুস্থ ধর্ষনমুক্ত  সমাজ গড়ি।

দেশসংবাদ/জেএ

মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. আবদুস সবুর মিঞা (অব.)
সম্পাদকীয় কার্যালয়
৮০/২ ভিআইপি রোড, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ।।
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft