ঢাকা, বাংলাদেশ || সোমবার, ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ || ২ পৌষ ১৪২৬
শিরোনাম: ■ বিজয় দিবসের স্মারক ডাকটিকিট অবমুক্ত ■ খালেদা জিয়ার শরীর খুবই খারাপ ■ রাজাকারের তালিকায় গোলাম আরিফ টিপু! ■ স্বাধীনতার ৪৯ বছর পরও দেশ আজ গণতন্ত্রহীন ■ পুলিশের নৃশংস হামলায় রক্তাক্ত জামিয়া, হতবাক শিক্ষার্থীরা ■ বাজারে আসছে ২০০ টাকার নোট ■ পশ্চিমবঙ্গে রাষ্ট্রপতির শাসন জারির হুঁশিয়ারি ■ দিল্লি পুলিশ সদর দফতর ঘেরাও, রাতভর বিক্ষোভ ■ জাতীয় স্মৃতিসৌধে মানুষের ঢল ■ রাতভর বিক্ষোভে উত্তাল বিশ্ববিদ্যালয় কাম্পাস, রণক্ষেত্র দিল্লী ■ প্রতিবন্ধীকে ধর্ষণের পর হত্যা, ‘বন্দুকযুদ্ধে’ যুবক নিহত ■ বীর শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা
আফগানিস্তানকে পৃথিবীর বুক থেকে মুছে দিতে পারি
দেশসংবাদ ডেস্ক
Published : Tuesday, 23 July, 2019 at 1:30 PM

আফগানিস্তানকে পৃথিবীর বুক থেকে মুছে দিতে পারি

আফগানিস্তানকে পৃথিবীর বুক থেকে মুছে দিতে পারি

কিছুদিন আগেই শোনা গিয়েছিল, দীর্ঘ ১৮ বছর আফগানিস্তানে যুদ্ধ চালানোর পরে আমেরিকা তালিবানের সঙ্গে শান্তি আলোচনায় বসছে। কিন্তু সোমবার আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের গলায় শোনা গেল অন্য সুর। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানকে পাশে বসিয়ে তিনি বললেন, আমরা ইচ্ছা করলে পৃথিবীর বুক থেকে আফগানিস্তানকে মুছে দিতে পারি। কিন্তু তার বদলে আমরা আলোচনার পক্ষপাতী।

ওভাল অফিসে সাংবাদিক বৈঠকে ট্রাম্প হুমকি দেন, আমরা খুব শিগগির আফগানিস্তানে সশস্ত্র সংঘাত বন্ধ করতে পারি। আফগানিস্তানকে পৃথিবীর বুক থেকে মুছে দিতে পারি। এক সময় পাকিস্তান ছিল তালিবানের প্রধান সাহায্যকারী। ন’য়ের দশকে পাকিস্তানের সাহায্যেই তালিবান আফগানিস্তানে ক্ষমতা দখল করে। ২০০১ সাল থেকে তালিবান আমেরিকার বিরুদ্ধে লড়াই চালিয়ে আসছে। আমেরিকা এখন চেষ্টা করছে যাতে পাকিস্তানের সাহায্যে আফগানিস্তানের আশরফ গনি সরকারের সঙ্গে তালিবানের একটা সমঝোতা সম্ভব হয়।

ট্রাম্পের দাবি, গত কয়েক সপ্তাহে সমঝোতার ব্যাপারে অনেক দূর এগোন গিয়েছে। আগামী সেপ্টেম্বর মাসের শেষে আফগানিস্তানে ভোট হবে। তার আগেই আমেরিকা চায় তালিবানের সঙ্গে শান্তি চুক্তি হোক। তার পরে ট্রাম্প আফগানিস্তান থেকে সেনা সরিয়ে আনবেন। এই প্রসঙ্গেই ট্রাম্প বলেন, আমরা যদি আফগানিস্তানের যুদ্ধে জিততে চাই, এক সপ্তাহে জিততে পারি। কিন্তু আমি এক কোটি মানুষকে হত্যা করতে চাই না।

আমেরিকার ন্যাশনাল সিকিউরিটি কাউন্সিলের প্রাক্তন কর্মী শামিলা চৌধুরি বলেন, তালিবানের সঙ্গে আলোচনায় আমাদের সাহায্য করেছে পাকিস্তান। তারই পুরস্কার হিসাবে ইমরানকে আমেরিকায় আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে। ২০১১ সালে পাকিস্তানের মাটিতে আমেরিকা আল কায়েদা প্রধান ওসামা বিন লাদেনকে হত্যা করার পরে দুই দেশের সম্পর্ক খারাপ হয়ে যায়। কিছুদিন আগে অবশ্য আইএমএফ পাকিস্তানকে ৬০০ কোটি ডলার ঋণ মঞ্জুর করেছে।

শামিলা চৌধুরির মতে ইমরানের সঙ্গে ট্রাম্পের বৈঠক নিছকই আনুষ্ঠানিক ব্যাপার। ইমরানের সঙ্গে আমেরিকা সফরে এসেছেন পাকিস্তানের সেনাপ্রধান কামার জাভেদ বাওয়েজা। তার সঙ্গেই ‘মূল আলোচনা’ করেছে আমেরিকার সরকার। সূত্র : দ্য ওয়াল

দেশসংবাদ/আলো


আরও সংবাদ   বিষয়:  আফগানিস্তান   ডোনাল্ড ট্রাম্প  



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. আবদুস সবুর মিঞা (অব.)
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft