ঢাকা, বাংলাদেশ || বৃহস্পতিবার, ২২ আগস্ট ২০১৯ || ৭ ভাদ্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ৯৪ ডাক্তার ও ৩০০ স্বাস্থ্যকর্মী ■ তিনদিনে ৬৫৮ বাড়িতে অভিযান, ডেঙ্গু পাওয়া গেছে ৫৬ বাড়িতে ■ ভারত নয় পাকিস্তান যুদ্ধের চেষ্টা করছে ■ ছুটিতে গেলেন সেই তিন বিচারপতি ■ সোমবার বেতিসের বিপক্ষে জাদু দেখতে পারেন মেসি ■ রোহিঙ্গাদের প্ররোচণাকারীদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে ■ হাইকোর্টের ৩ বিচারপতিকে কাজ থেকে বিরত থাকার নির্দেশ ■ পিলখানা হত্যাকাণ্ডের দায় আ.লীগকে নিতে হবে ■ আইন প্রয়োগকারী সংস্থাগুলো সব অনিয়মের সাথে জড়িত ■ সড়ক দুর্ঘটনা বন্ধে ১১১ সুপারিশ ■ ঠাকুরগাঁওয়ে দু’বাসের মুখোমুখি সংঘর্ষে নিহত ৩ ■ শুরু হয়নি রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন, চলছে সাক্ষাৎকার
বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী মাহবুব আলী
যে গাছে হাত দিবে তার হাত ভেঙ্গে দিতে হবে
এসএম সুরুজ আলী, হবিগঞ্জ
Published : Monday, 29 July, 2019 at 6:32 PM, Update: 29.07.2019 7:50:33 PM

বেসরকারী বিমান ও পর্যটন প্রতিমন্ত্রী এডভোকেট মাহবুব আলী বলেছেন, যেভাবে বন উজার হয়েছে তা আর মেনে নেয়া যায় না। যে বনের গাছে হাত দিবে তার কাল হাত ভেঙ্গে দিতে হবে। যারা নির্বিচারে গাছ ও বন উজার করছে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

বিচার বিভাগের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন, গাছ চুরি একটি সামাজিক অপরাধ। এই গাছ চুরির ফলে  দেশ এবং সমাজ ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছে। অতীতে গাছ চুরির বিষয়ে আদালত কঠোর ভূমিকা পালন করে। এ ব্যাপারে সবাইকে সচেতন হতে হবে। সামাজিকভাবে গাছ চুরি ঠেকাতে হবে।



সোমবার দুপুরে হবিগঞ্জ কালেকণ্ঠরেট প্রাঙ্গনে বৃক্ষ রোপন অভিযান এবং জেলা বৃক্ষ ও ফলদ বৃক্ষ মেলার উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় তিনি একথা বলেন। মন্ত্রী আরও বলেন, নির্বিচারে বন উজারের কারনে সারা পৃথিবীতে জলাবায়ুর পরিবর্তন হয়েছে। এর ফলে প্রাকৃতিক দুর্যোগের মাত্রাও বেড়ে গেছে। এই দুর্যোগ থেকে বাচতে বৃক্ষ রোপনকে সামাজিক আন্দোলনে রুপান্তরের বিকল্প নেই। দেশের পরিবেশ সুরক্ষায় প্রথম পদক্ষেপ নিয়েছিলেন জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু। তিনি ৭২ সালে রেসকোর্স ময়দানে ঘোড় দৌড় বন্ধ করে গাছ লাগিয়েছিলেন। তার হাতেই সূচনা হয়েছিল উপক’লীয় বনায়ন। আর বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা হলেন পরিবেশ সুরক্ষার আধুনিক রুপকার। নতুন প্রজন্মের জন্য বাসযোগ্য পরিবেশ সৃষ্টি করতে হলে বনায়নের কোন বিকল্প নেই।



তিনি আরও বলেন, বর্তমানে দেশে ইকো ট্যুরিজম এর মাস্টার প্লান তৈরির কাজ চলছে। সকলের অংশগ্রহণে আমরা পরিবেশ সুরক্ষা করতে চাই।

হবিগঞ্জের জেলা প্রশাসক মাহমুদুল কবীর মুরাদ এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি ছিলেন হবিগঞ্জ-২ আসনের এমপি এডভোকেট আব্দুল মজিদ খান, পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা, বিভাগীয় বন কর্মকর্তা সাজ্জাদ হোসেন ও হবিগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মিজানুর রহমান মিজান। বক্তৃতা করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক অমিতাভ পরাগ তালুকদার, জেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তরের ভারপ্রাপ্ত উপ-পরিচালক তমিজ উদ্দিন খান, সাবেক পৌর চেয়ারম্যান শহীদ উদ্দিন চৌধুরী ও সাবেক পিপি এডভোকেট আকবর হোসেন জিতু।

মন্ত্রী এর আগে একটি র‌্যালিতে অংশ নেন এবং মেলার স্টলগুলো পরিদর্শন করেন। তিনি মেলা প্রাঙ্গনে একটি পলাশ গাছের চারা রোপন করেন।

রেমা-কালেঙ্গা বণ্যপ্রাণী অভয়ারন্য কো ম্যানেজম্যান্ট কমিটির সহযোগিতায় জেলা প্রশাসন, জেলা কৃষি সম্প্রসারন অধিদপ্তর ও বন বিভাগের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত বৃক্ষ মেলায় ২৫টি স্টল অংশ গ্রহণ করছে। মেলা চলবে ৭দিন।

পরে মন্ত্রী হবিগঞ্জ আধুনিব জেলা সদর হাসপাতালের ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় সভাপতি হিসাবে যোগদান করেন। সেখানে তিনি হাসপাতাল এর কার্যক্রম মনিটরিং করার জন্য ৪ সদস্য বিশিষ্ট একটি কমিটি গঠন করে দেন। তিনি জানতে পারেন হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগী আসলে কোন পরীক্ষা বা চিকিৎসার সুযোগ না থাকায় রোগীদেরকে রেফার করা হয়। এ ব্যাপারে তিনি যন্ত্রপাতি আনার ব্যবস্থা করবেন বলে ঘোষনা দেন।

মন্ত্রী বলেন, দুঃখজনক হলেও সত্য হাসপাতালের চিকিৎসকরা বাহিরে প্র্যাকটিসে ব্যস্থ থাকেন। তাদেরকে বদলী করা হলেও তারা এই প্র্যাকটিসের জন্য বদলী ঠেকানোর চেষ্টা করেন। তিনি হাসপাতালের পাশে অবৈধভাবে ইট বালু বিক্রি বন্ধের নির্দেশ দেন।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এনকে

মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. আবদুস সবুর মিঞা (অব.)
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft