ঢাকা, বাংলাদেশ || সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯ || ১১ ভাদ্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ রুমিন হয়তো শিগগির বিয়েশাদি করবেন, তাই তার একটা প্লট দরকার ■ ভিটেবাড়ি ফেরত না দিলে মিয়ানমারে যাবে না রোহিঙ্গারা ■ সৌদির বিমান ঘাঁটিতে ড্রোন হামলা ■  রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকগুলোকে আর মূলধন দেবে না সরকার ■  পাবলিক বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষক নিয়োগ-পদোন্নতির নীতিমালা চূড়ান্ত ■ জাতীয় মহিলা পার্টির সভানেত্রী সালমা, সম্পাদিকা নাজমা ■ রাখাইনে তুমুল সংঘর্ষ, সেনাবাহিনীর বিমান হামলা ■ ২৫ দিনে হাসপাতালে ৪৫ সহস্রাধিক ডেঙ্গু রোগী ■ খেলাপি ঋণ এখনই কমার সুযোগ নেই ■ রাতের অন্ধকারে জামালপুর ত্যাগ করেছেন ডিসি ■ কেড়ে নেয়া হচ্ছে সেই ডিসির শুদ্ধাচার সনদ ■ কিশোর গ্রুপ স্টার বন্ডের ১৭ সদস্যের কারাদণ্ড
চরফ্যাসনের প্রত্যন্ত অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়ছে ডেঙ্গু আতঙ্ক
কামরুজ্জামান শাহীন, ভোলা
Published : Monday, 5 August, 2019 at 8:40 PM, Update: 05.08.2019 10:54:49 PM


ভোলার চরফ্যাসনে ডেঙ্গু আক্রান্ত আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ছে প্রত্যন্ত অঞ্চলে, আক্রান্ত হচ্ছে নতুন নতুন মুখ। দিন দিন রোগীর সংখ্যা বেড়েই চলছে। ফলে শহর ছারিয়ে গ্রামগুলোতে বাড়ছে এই আতঙ্ক। কিন্ত সরকারি হাসপাতালে ডেঙ্গু সনাক্তের কোন পরীক্ষা-নিরীক্ষার ব্যবস্থা না থাকায় প্রাইভেট ক্লিনিকগুলোতে পরীক্ষার নামে গলাকাটা মূল্য আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে।

চরফ্যাসন হাসপাতাল এবং ডায়াগনস্টিক সেন্টার সূত্রে জানা গেছে, গতকাল সোমবার পর্যন্ত চরফ্যাসনে ২১ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী সনাক্ত করা হয়েছে। গত রোববার ও সোমবারে আক্রান্ত ৬ জনকে চরফ্যাসন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বাকীদের ঢাকা-বরিশালের বিভিন্ন হাসপাতালে রেফার করা হয়েছে।

আক্রান্তদের মধ্যে আজ সোমবার সর্বশেষ আসলামপুর ইউনিয়নের ৭ম শ্রেণির ছাত্রী মারিয়াকে ডেঙ্গু আক্রান্ত হিসেবে সনাক্ত করা হয়েছে। এই মারিয়া ছাড়া অন্য ২০ জন ঢাকা-চট্রগ্রামসহ দেশের বিভিন্ন শহরে কর্মরত ছিল। কর্মরত থাকা অবস্থায় ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে গ্রামে এসেছিল বলে ধারনা করা হচ্ছে। কিন্ত আক্রান্তদের মধ্যে মারিয়া একমাত্র রোগী যে স্থানীয় বাসিন্দা এবং নিজ এলাকা থেকেই আক্রান্ত হয়েছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

চরফ্যাসন হাসপাতালের টিএইচও ডা. সিরাজ উদ্দিন বলেন, চরফ্যাসন হাসপাতালে ডেঙ্গু সনাক্তের কোন ব্যবস্থা নেই। স্থানীয় কিছু কিছু প্রাইভেট ক্লিনিক ও জায়াগনিস্টিক সেন্টারে এই ব্যবস্থা আছে। গত কয়েকদিনে প্রাইভেট ক্লিনিকগুলোতে ২১ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী সনাক্ত করা হয়েছে। যাদের মধ্যে ২০ জন দেশের বিভিন্ন শহরে কর্মরত ছিল। কর্মস্থল থেকে ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে তারা গ্রামে এসেছে বলে ধারনা করা হচ্ছে।

এদিকে ঈদ কেন্দ্রীক ডেঙ্গু পরিস্থিতি আরো ভয়াবহ হতে পারে বলে স্থানীয়রা আশংকা করছে। ফলে প্রত্যন্ত গ্রামের দরিদ্র মানুষের মধ্যে ডেঙ্গু আতঙ্ক ছড়িয়ে পরেছে।

দেশসংবাদ/এফএইচ/বি

মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. আবদুস সবুর মিঞা (অব.)
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft