ঢাকা, বাংলাদেশ || রবিবার, ১৮ আগস্ট ২০১৯ || ৩ ভাদ্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ কাচাঁ চামড়া নষ্ট হয়েছে মাত্র ১০ হাজার পিস ■ ঢাকা মেডিকেলে দু'পক্ষের ব্যাপক সংঘর্ষ, আহত ২০ ■ ফিলিস্তিনে ইসরাইলের রকেট হামলা ■ ঘুষ প্রদানকারীদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে হবে ■ কাশ্মীরিদের ওপর অত্যাচার চালানো হচ্ছে ■ ব্যারিস্টার মওদুদের জন্য দেশটা পিছিয়ে গেছে ■ এবারের ঈদযাত্রায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২২৪ ■ শিগগিরই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু ■  বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ৭ ■ চিকিৎসকদের উচ্চশিক্ষার জন্য বিদেশ পাঠানো হবে ■ ভুলের চোরাবালিতে আটকে রাজনীতিতে শূন্য বিএনপি ■ চামড়ার বাজারে নৈরাজ্যর প্রতিবাদে মানববন্ধন
অভাবে কান্না করা মেয়েটি এখন অনেক পুরুষের স্বপ্নের নায়িকা
দেশসংবাদ ডেস্ক
Published : Tuesday, 6 August, 2019 at 6:18 PM

খুব যে অভাবী ঘরে জন্মেছেন তা কিন্তু নয়। মধ্যবিত্ত পরিবারেই জন্ম ও মানুষ। শিক্ষাও পেয়েছেন ভালো। নিজের কর্ম জীবনটাও শুরু করতে পেরেছিলেন বেশ চমৎকার সম্ভাবনা নিয়ে। তবুও তাকে অভাবের দিন পার করতে হয়েছে। হতাশায় কাঁদতে হয়েছে দিনে রাতে।

বলছি বলিউড অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়ার কথা। ২০১৩ সালেই তার সিনেমার অভিষেক। পরপর বেশ কয়টি সিনেমায় নাম লেখান তিনি।

প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার বোন হিসেবে পরিচিতিটা পেয়েছিলেন দ্রুত। যশ রাজ চোপড়ার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানে কাজ করার অভিজ্ঞতা তাকে সহজ করে দিয়েছিলো সিনেমায় ভালো করার।

তবু কিছু ভুল সিদ্ধান্ত তাকে ব্যাকফুটে নিয়ে গিয়েছিলো। ফেলে দিয়েছিলো অনিশ্চিত জীবনের মুখে। পরিণীতির ভাষায়, ‘২০১৪ সালের শেষ থেকে গোটা ২০১৫ সাল। খুব খারাপ কেটেছিল আমার জীবনে। আমার দুটি ছবি কিল দিল এবং দাওয়াত-ই-ইশক একেবারেই কাজ করেনি।

হঠাৎ করেই দেখলাম হাতে টাকা নেই। তখন একে তো প্রেম ভাঙার যন্ত্রণা, অন্যদিকে নিজের বাড়ি কেনায় অনেক টাকা চলে গিয়েছিল। জীবনে পজিটিভ কিছুই ছিল না যেন। খাওয়া দাওয়া বন্ধ করে দিয়েছিলাম। কারও সঙ্গে কথা বলতাম না, দেখা করতাম না। সারাদিন নিজেকে ঘরে বন্দি করে কাঁদতাম।

মন ভাল করতে নিজেই নিজের সাথে কথা বলতাম। টিভি দেখতাম, ঘুমাতাম... জম্বির মতো হয়ে গিয়েছিলাম যেন। ফিল্মি ডিপ্রেসড মেয়ের মতো হয়ে গিয়েছিলাম। বারবার অসুখে পড়ছিলাম। ৬ মাস মিডিয়ার থেকে নিজেকে এক্কেবারে দূরে রেখেছিলাম। দিনে অন্তত ১০ বার কাঁদতাম।’

তবে সময়ের চাকা ঘুরতে বেশি সময় লাগেনি পরিণীতির। ২০১৬ থেকে নিজেকে আমূল বদলে নেন এই নায়িকা। রূপ আর গ্ল্যামারে মাতিয়ে রেখেছেন হিন্দি সিনেমার রঙিন দুনিয়া। কোটি পুরুষের কাছে আরাধ্য এখন পরিণীতি, স্বপ্নের নায়িকাও। অনেক নায়কই একজন ভালো অভিনেত্রী হিসেবে পরিণীতির জুটি হতে অপেক্ষায় থাকেন।

সর্বশেষ অক্ষয় কুমারের সঙ্গে ‘খেসারি’ চলচ্চিত্র দিয়ে সাফল্য পেয়েছেন তিনি। হাতে আছে আরও বেশ কিছু চলচ্চিত্র। সেগুলোও তার ক্যারিয়ারে বসন্তের হাওয়া দেবে বলে প্রত্যাশা করেন তিনি।

দেশসংবাদ/এনকে

সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. আবদুস সবুর মিঞা (অব.)
সম্পাদকীয় কার্যালয়
৮০/২ ভিআইপি রোড, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ।।
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft