ঢাকা, বাংলাদেশ || সোমবার, ১৯ আগস্ট ২০১৯ || ৪ ভাদ্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ অবশেষে জিব্রাল্টার ছাড়ল সেই ইরানি ট্যাংকার ■ ২০২৩ সালের মধ্যে সব স্কুলে দুপুরের খাবার ■ সেনা সদস্যকে গুলি করে হত্যা ■ ডেঙ্গু দমন নিয়ে অসন্তোষ হাইকোর্টের ■ ঢাকা মেডিকেলে দু'পক্ষের ব্যাপক সংঘর্ষ, আহত ২০ ■ ফিলিস্তিনে ইসরাইলের রকেট হামলা ■ ঘুষ প্রদানকারীদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নিতে হবে ■ কাশ্মীরিদের ওপর অত্যাচার চালানো হচ্ছে ■ ব্যারিস্টার মওদুদের জন্য দেশটা পিছিয়ে গেছে ■ এবারের ঈদযাত্রায় সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত ২২৪ ■ শিগগিরই রোহিঙ্গা প্রত্যাবাসন শুরু ■  বাস-অটোরিকশার সংঘর্ষে নিহত ৭
গাড়ী চালানো অবস্থায় ড্রাইভারের ধূমপান ও মোবাইল ব্যবহার বন্ধ করা হোক
জুবায়ের আহেমদ, ঢাকা
Published : Thursday, 8 August, 2019 at 12:48 PM

বাংলাদেশে সড়ক দূর্ঘটনা একটি বড় সমস্যা। দূর্ঘটনা ঘটুক তা কোন ড্রাইভারের চাওয়া না হলেও গাড়ী চালানোর সময় অসাবধানতা, অন্য গাড়ীর সাথে প্রতিযোগিতার পাশাপাশি মোবাইল ফোনে কথা বলা এবং ধুমপান পাশাপাশি বহু ড্রাইভার মাদক গ্রহণের মাধ্যমে গাড়ী চালানোর ফলেই অধিকাংশ দূর্ঘটনা হয়, যাতে নিঃশেষ হয় ড্রইভার-হেলপার-কন্ট্রাক্টার সহ বহু যাত্রীর তাজা প্রাণ।

সারা দেশে যোগাযোগ ব্যবস্থার ব্যাপক উন্নতি হওয়ার ফলে দূর্ঘটনা অনেকাংশেই কমে যাবে এমন ধারণা করা হলেও সম্প্রতি সড়ক দূর্ঘটনা পূর্বের তুলনায় বেড়েছে বহুগুণে, বিশ্বরোডগুলোর চেয়েও বেশি দূর্ঘটনা ঘটছে মহানগরী, জেলা উপজেলা শহরগুলোর ব্যস্ত রাস্তাতে। যেখানে গণপরিবহনের ড্রাইভারদের মধ্যে আগে যাওয়ার প্রতিযোগিতার পাশাপাশি অনেকেই বিড়ি, সিগারেট সহ মাদক দ্রব্য সেবনের মাধ্যমে ড্রাইভিং করার ঘটনা প্রকাশ পাচ্ছে নিয়মিতই। সেই সাথে মোবাইল ফোনে কথার কারনেও বহু দূর্ঘটনা ঘটে, পত্রিকার পাতায় এমন খবর প্রায়ই শোনা যায়।

সম্প্রতি ঢাকা মহানগরীতে কোন চালক গাড়ী চালানো অবস্থায় মোবাইল ফোনে কথা বললে সঙ্গে সঙ্গে চালককে আটক করা সহ গাড়ী জব্দ করতে ট্রাফিক পুলিশকে নির্দেশ দিয়েছেন ডিএমপির কমিশনার জনাব মোঃ আছাদুজ্জামান মিয়া, যা ইতিবাচক। শুধুমাত্র ঢাকা মহানগরীতেই নয়, প্রতিটি মহানগরীতে সহ জেলা-উপজেলায় দায়িত্ববান কর্তৃপক্ষ কর্তৃক এমন নির্দেশনা প্রদান এবং বাস্তবায়ন করা এখন সময়ের দাবী।

কর্মমুখী মানুষ প্রতিদিন গাড়ীতে যাতায়াত করেন, সেই সাথে বিশ্বরোডগুলোর মাধ্যমে মানুষ দূরদূরান্তে গমন করেন। গণপরিবহন কিংবা ব্যক্তিগত পরিবহন, ড্রাইভাররা যেনো গাড়ী চালানো অবস্থায় মোবাইল ব্যবহার, ধূমপান ও মাদক দ্রব্য সেবন না করেন, তার জন্য কঠোর নির্দেশনা এবং সে নির্দেশনা বাস্তবায়নের জন্য দায়িত্বশীল কর্তৃপক্ষ সহ সাধারণ নাগরিকদের এগিয়ে আসার বিকল্প নেই।

মানুষের কাছে অমূল্য সম্পদ তার প্রাণ, সেই প্রাণ যখন ড্রাইভারদের অবহেলা ও অনিয়মের কারনে বিপন্ন হবে, তা কখনোই কাম্য নয়। ড্রাইভিং করার সময় ড্রাইভাররা নিজেদের দায়িত্ব ও কর্তব্যের কথা মনে রাখার পাশাপাশি মানুষের জীবনের মূল্য অনুধাবন করে গাড়ী চালালে সড়ক দূর্ঘটনা আশানুরূপ কমে যাবে নিঃসন্দেহে, সেই সাথে গাড়ী চালানো অবস্থায় মোবাইল ব্যবহার, ধূমপান ও মাদক দ্রব্য সেবনের বিষয়ে নির্দেশনা প্রদান, প্রয়োজনে আইন প্রণয়ন সহ তা বাস্তবায়ন করা জরুরী, মনে রাখতে হবে মানুষের জীবনের চেয়ে গাড়ী চালানোবস্থায় মোবাইল ফোনে কথা বলা, ধূমপান-মাদকদ্রব্য সেবন করা কিংবা আগে যাওয়ার প্রতিযোগিতা বড় নয়। সড়ক দূর্ঘটনা কমিয়ে আনার জন্য সংশ্লিষ্টদেরই সকল ব্যবস্থা করতে হবে।

শিক্ষার্থী, ডিপ্লোমা ইন জার্নালিজম, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব জার্নালিজম, অ্যান্ড ইলেকট্রনিক মিডিয়া (বিজেম), ঢাকা।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এনকে

সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. আবদুস সবুর মিঞা (অব.)
সম্পাদকীয় কার্যালয়
৮০/২ ভিআইপি রোড, কাকরাইল, ঢাকা-১০০০, বাংলাদেশ।।
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft