ঢাকা, বাংলাদেশ || শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯ || ৭ ভাদ্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ সারেদেশে বজ্রপাতে নিহত ১২ ■ রাখাইনে প্রবেশ করতে চায় ইউএনএইচসিআর ■ এমপির পছন্দের ব্যক্তিই হবেন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের সভাপতি ■ ডিসেম্বরের মধ্যে প্রাথমিকে আরো ২০ হাজার শিক্ষক নিয়োগ ■ রোহিঙ্গাদের ফেরত না যাওয়ার নেপথ্যে রয়েছে যার প্রভাব ■  ভারতের সঙ্গে কোনো আলোচনা নয় ■ বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে বিশ্বাসঘাতকতা করেছিলেন জিয়াউর রহমান ■ বাংলাদেশের অশুভ শক্তিকে পরাভূত করতে হবে ■ ডেঙ্গুতে আক্রান্ত ৯৪ ডাক্তার ও ৩০০ স্বাস্থ্যকর্মী ■ তিনদিনে ৬৫৮ বাড়িতে অভিযান, ডেঙ্গু পাওয়া গেছে ৫৬ বাড়িতে ■ ভারত নয় পাকিস্তান যুদ্ধের চেষ্টা করছে ■ ছুটিতে গেলেন সেই তিন বিচারপতি
তাহিরপুর খাদ্যগুদামে সিন্ডিকেটের থাবা
কামাল হোসেন, তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ)
Published : Thursday, 8 August, 2019 at 9:35 PM, Update: 08.08.2019 10:03:23 PM

সুনামগঞ্জের তাহিরপুর উপজেলায় খাদ্যগুদাম কর্তৃক সরকারিভাবে ধান ক্রয়ের তালিকায় প্রকৃত কৃষকদের নাম নিবন্ধনে ও লটারীতে দুর্নীতি ও অনিয়মে সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার দাবিতে  ৮ আগষ্ট উত্তর বড়দল ইউনিয়ন চেয়ারম্যানসহ ১২ জন ইউপি সদস্যের স্বাক্ষরীত একটি অভিযোগ পত্র সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক বরাবর দাখীল করেছে।

তাদের অভিযোগ সূত্রে জানাযায়, ২০১৯-২০ অর্থ বছরে প্রান্তিক কৃষকের কাছ থেকে ন্যায্যমূলে ধান ক্রয়ের উদ্যোগ নিয়েছে সরকার। এতে সরকারিভাবে খাদ্যগুদামে ধান বিক্রির জন্য বিগত ১৪ জুলাই ও ১৫ জুলাই রেজিষ্টারে নাম নিবন্ধের জন্য ৪ নং উত্তর বড়দল ইউনিয়নের কৃষকগন কৃষি কার্ড নিয়ে উপজেলা পাবলিক লাইব্রেরীতে উপস্থিত হয়।

কিন্তু ওইদিন কৃষকদের উপস্থিতি ছাড়াই উপজেলায় কৃষি কর্মকর্তা ও খাদ্য কর্মকর্তার যোগসাযোসে উপ সহকারী কর্মকর্তা শফিকুল ইসলাম ও আবুল হাসান সকাল ১০ টার সময় প্রতি ওয়ার্ড থেকে ৫০-৬০ জন কৃষকের নাম রেজিষ্ট্রি খাতায় নিবন্ধন করে নেয়। পরে বিষয়টি তাহিরপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানালে কৃষকদের উক্ত নাম নিবন্ধনে অনিয়মের সত্যতা পাওয়ায় পুরাতন নাম নিবন্ধন বাতিল করে প্রকৃত কৃষকদের নাম নতুন করে নিবন্ধন করার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আসিফ ইমতিয়াজ গত ৩ ও ৪ আগষ্ট মাইকিং করান। পরে ওই ইউনিয়নের কৃষকগণ স্বশরীরে উপস্থিত হয়ে রেজিষ্ট্রি খাতায় নাম নিবন্ধন করেন।

পরবর্তীতে গত ৬ আগষ্ট লটারীর মাধ্যমে উপজেলা থেকে ৬৩ জন কৃষকের নাম বিজয়ী ঘোষনা করেন। কিন্তু উক্ত নাম নিবন্ধনেও দেখা যায়, লটারীর বিজয়ী ৬৩ জন কৃষকের নামের মধ্যে ৫১ জন কৃষকেই উপজেলায় স্বশরীওে না গিয়ে তাদের নাম নিবন্ধিত হয়। ঠিক এমন অভিযোগ পাওয়া গেছে তাহিরপুর উপজেলায়। এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে সুনামগঞ্জ জেলা প্রশাসক মোহম্মদ আব্দুল আহাদের সরকারি মোবাইল ০১৭১৩৩০১১৭৮ নাম্বরে একাধিকবার কল করলেও তিনি কল রিসিভ করেননি।

দেশসংবাদ/এফএইচ/বি

মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. আবদুস সবুর মিঞা (অব.)
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft