ঢাকা, বাংলাদেশ || সোমবার, ১৭ ফেব্রুয়ারী ২০২০ || ৫ ফাল্গুন ১৪২৬
শিরোনাম: ■ ডিমোশন-প্রমোশন বিষয় নয়, মন্ত্রী মন্ত্রীই ■ নারায়ণগঞ্জে গ্যাসলাইন বিস্ফোরণে একই পরিবারের দগ্ধ ৮ ■ ট্রাম্পের ভারত সফরের আগে ইমরান খানের প্রশংসায় যুক্তরাষ্ট্র ■  করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা বেড়ে ১৭৭০ ■ ব্যাংক ঋণ নিয়ে পলাতকদের শান্তিতে ঘুমাতে দেব না ■ মুজিববর্ষে বাড়ি পাবেন ১৪ হাজার অস্বচ্ছল মুক্তিযোদ্ধা ■ ইরাকে মার্কিন দূতাবাসের কাছে সামরিক ঘাঁটিতে হামলা ■ চসিক নির্বাচনের দিনেই ভোট হবে বগুড়া-যশোরে ■ সিরাজগঞ্জে বাস খাদে পড়ে নিহত ৩ ■ মালিতে বন্দুক হামলায় নিহত ৪০ ■ সাবেক মন্ত্রী অ্যাডভোকেট রহমত আলী আর নেই ■ সিঙ্গাপুরে করোনায় আক্রান্ত আরও এক বাংলাদেশি
ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে ১৯ রাজ্যে মামলা
দেশসংবাদ ডেস্ক
Published : Wednesday, 28 August, 2019 at 12:26 PM

ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে ১৯ রাজ্যে মামলা

ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে ১৯ রাজ্যে মামলা

অভিবাসী পরিবার আটকাদেশ স্থগিত চেয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। অভিবাসীদের পক্ষে অবস্থান নিয়ে সোমবার মামলা টুকে দিয়েছেন ১৯ রাজ্য ও ডিস্ট্রিক্ট অব কলাম্বিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেলরা।

অভিবাসী পরিবার আটকাদেশ স্থগিত চেয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে। অভিবাসীদের পক্ষে অবস্থান নিয়ে সোমবার মামলা টুকে দিয়েছেন ১৯ রাজ্য ও ডিস্ট্রিক্ট অব কলাম্বিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেলরা।

অভিবাসীদের অনির্দিষ্ট সময় ধরে আটকে রাখার নতুন এক নিয়ম জারি করতে চলেছে ট্রাম্প প্রশাসন। আগামী অক্টোবর থেকেই আইনটি কার্যকর হবে বলে সরকারের পক্ষ থেকে গত শুক্রবার জানানো হয়।

বিবিসি জানায়, ফেডারেল সরকারের সিদ্ধান্তকে চ্যালেঞ্জ করে প্রথম মামলাটি দায়ের করা হয় লস অ্যাঞ্জেলসের ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে। ক্যালিফোর্নিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল জেভিয়ার বেসেরা এ বিষয়ে বলেন, ট্রাম্পের নতুন এ আইন অনেক শিশুর নিরাপত্তা ঝুঁকির মুখে ফেলবে।

বহু বছরের পুরনো চুক্তিটি যেটি বেআইনি আটক রোধ করে অভিবাসী শিশুদের নিরাপত্তা দিতো এখন তা বাতিলের চেষ্টা চলছে। এ বিষয়ে ১৯৯৭ সালে হওয়া চুক্তিতে বলা হয়েছে সর্বোচ্চ ২০ দিন অভিবাসী শিশুদের আটকে রাখা যাবে। তবে নতুন আইনে আটকের ক্ষেত্রে কোনো সময়সীমা কার্যকর থাকছে না।

ট্রাম্প প্রশাসনের মতে, অভিবাসীদের আটকের ব্যাপারে শিথিলতার জন্যই অবৈধ অভিবাসী নিয়ন্ত্রণে আনা যাচ্ছে না। শিশুদের কারণে অভিবাসী আদালতের সহানুভূতি পাচ্ছে অভিভাবকরা।

তবে অভিবাসীদের দীর্ঘসময় ধরে আটকে রাখার বিষয়টি আইন করলেও তা বাস্তবায়ন সহজ হবে না। কারণ মার্কিন অভিবাসন ও কাস্টমস সংস্থার মাত্র তিনি আটক কেন্দ্র রয়েছে। দুটো টেক্সাসে ও অন্যটি পেনসিলভানিয়া।

যেগুলো মাত্র ২৫শ’ থেকে তিন হাজার শয্যাবিশিষ্ট। বিপরীতে যুক্তরাষ্ট্রের দক্ষিণাঞ্চলের সীমান্ত থেকেই গত মাসে আটক করা হয় ৪২ হাজার পরিবারকে। যাদের বেশিরভাগই মধ্য-আমেরিকার দেশগুলো থেকে এসেছে যুক্তরাষ্ট্রে অভিবাসনের জন্য।

দেশসংবাদ/এনকে


আরও সংবাদ   বিষয়:  ট্রাম্প   রাজ্যে মামলা  



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft