ঢাকা, বাংলাদেশ || শনিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৯ || ৬ আশ্বিন ১৪২৬
শিরোনাম: ■ ফাইনালের আগে দুর্দান্ত জয় পেলো বাংলাদেশ ■ শেখ হাসিনার অ্যাকশন শুরু হয়েছে ■ সেই জিকে শামীম ১০ দিনের রিমান্ডে ■ ভূতের আড্ডায় বাতি জ্বালিয়ে যা দেখলেন অভিযানকারী! ■ সব ধরনের মানুষের জন্য পার্ক ও মাঠের ব্যবস্থা করা হচ্ছে ■ খালেদাকে দেশের সর্বোচ্চ চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে ■ যুবলীগের চেয়ারম্যান-সম্পাদকের পদত্যাগ দাবি ■ সাত বডিগার্ডসহ যুবলীগ নেতা শামীমকে গুলশান থানায় হস্তান্তর ■ মিসরজুড়ে একনায়ক সিসির বিরুদ্ধে বিক্ষোভ ■ ক্যাসিনো অভিযানে কেঁচো খুঁড়তে সাপ বেরোচ্ছে ■ অন্যায়-দুর্নীতির বিরুদ্ধে অভিযান চলবে ■ রূপপুর বালিশকাণ্ডে সবচেয়ে বেশি অর্থ হাতিয়ে নেন জিকে শামীম
ড্রেসিংরুমে মনোমালিন্য হতেই পারে, তা বাইরে যাওয়া ঠিক নয়
দেশসংবাদ ডেস্ক
Published : Tuesday, 3 September, 2019 at 6:19 PM

বিশ্বকাপে টেস্টের মেজাজে স্লো মোশনে ব্যাটিং করায় মাহমুদউল্লাহ রিয়াদকে পরের ম্যাচে বসিয়ে রাখার জন্য অধিনায়ক মাশরাফি বিন মর্তুজাকে বলেছিলেন সাকিব আল হাসান। বিশ্বকাপ চলা অবস্থায়ই এমন সংবাদ প্রকাশ পায়।

এ ব্যাপারে সম্প্রতি দেশের একটি শীর্ষস্থানীয় সংবাদমাধ্যমে জাতীয় দলের সাবেক অধিনায়ক মুশফিকুর রহিম বলেছেন, ‘যেকোনো পরিবারেই কিছু না কিছু ঘটে। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ড্রেসিংরুমটাও একটা পরিবারের মতোই। এখানে একটু-আধটু মনোমালিন্য হতেই পারে। বাইরে প্রকাশ হওয়া দলের জন্য ভালো নয়। পরিবারের ভেতরে স্বাধীন মতপ্রকাশ করতে না পারলে মানসিক চাপ তৈরি হবে। ভেতরের কথা বাইরে না যাওয়াই ভালো।’

ভবিষ্যতে যেন এমন ঘটনার পুনরাবৃত্তি না ঘটে এজন্য সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়ে মুশফিক বলেছেন, ‘টিম মিটিংয়ে একটা কথা বললেন, সেটা বাইরে চলে গেলে অস্বস্তি বাড়ায়, অবিশ্বাস তৈরি হয়। ড্রেসিংরুমের পরিকল্পনাগুলো গোপনীয়। এজন্যই ড্রেসিংরুমে আলোচনা করা হয়। আমাদের সবারই দায়িত্ব, ড্রেসিংরুমের বিষয়গুলো গোপন রাখা। আমরা চেষ্টা করব, ভবিষ্যতে যেন ভেতরের জিনিসগুলো বাইরে যাতে না আসে।’

বাংলাদেশ দলের এ উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান আরও বলেন, ‘আমরা তো একে অন্যের ভাই বা বন্ধু। একে অন্যকে সাপোর্ট করা আমাদের নৈতিক কর্তব্য। সুতরাং কারও বিরুদ্ধে বাইরে নেতিবাচক কথা না বলাই ভালো। যে বলে তারও তো এতে ইমেজ নষ্ট হয়। কারণ তাকেও তো একটা সময় মানুষ বিশ্বাস করবে না।’

এ বিষয়ে এর আগে সাকিব আল হাসান বলেছেন, ‘আমি ও রকম কিছু বলিনি। আর যদি বলেও থাকি, সেটা যে বাইরে এল, এর দায় কে নেবে? আমাদের ভেতরে আলাপ-আলোচনা হতেই পারে। সেখানে বিদেশি কোচদের বাইরে এক-দুজনই থাকে যারা দলের নীতিনির্ধারণী বিষয়ে সম্পৃক্ত। নিশ্চয়ই তাদের থেকেই এটা বের হয়েছে। সেটা কে? বিষয়টা খুবই খারাপ। তারা হয় দলের ভালো চায় না, অথবা ওই খেলোয়াড়ের ভালো চায় না।’

দেশসংবাদ/এনকে

মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. আবদুস সবুর মিঞা (অব.)
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft