ঢাকা, বাংলাদেশ || বৃহস্পতিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২০ || ১০ মাঘ ১৪২৬
শিরোনাম: ■ কোনোভাবেই হজযাত্রীদের বিমান ভাড়া বাড়ানো যুক্তিযুক্ত হবে না ■ হাজীদের বিমান ভাড়া কমাতে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা ■ আইসিজের সিদ্ধান্ত মিয়ানমার যেন এড়িয়ে যেতে না পারে ■ স্বর্ণদ্বীপে অপারেশন বিজয় গৌরব’ প্রত্যক্ষ করলেন প্রধানমন্ত্রী ■ ট্যাংকার বিমান বিধ্বস্তে ৩ মার্কিন নাগরিক নিহত ■ সিটি নির্বাচনে সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ কোন পরিবেশ দেখছি না ■ সীমান্তে ৩ বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা ■ দৃশ্যমান হলো পদ্মা সেতুর ৩৩০০ মিটার ■ ইরানের শীর্ষ কমান্ডার মোজাদ্দামিকে হত্যা ■ চীনের ভাইরাসে মৃত ১৭, বিশ্বজুড়ে শঙ্কা ■ ভোটের দিন ঢাকায় প্রাইভেট কার চলবে না ■ বিএনপির কাউন্সিলর প্রার্থী নিজামুদ্দিনের ওপর হামলা!
টেকনাফে পাহাড় ধসে ২ শিশুর মৃত্যু
দেশসংবাদ, টেকনাফ
Published : Tuesday, 10 September, 2019 at 3:29 PM, Update: 10.09.2019 8:09:36 PM

টেকনাফে পাহাড় ধসে ২ শিশুর মৃত্যু

টেকনাফে পাহাড় ধসে ২ শিশুর মৃত্যু

অতিবৃষ্টির ফলে কক্সবাজারের টেকনাফে পাহাড় ধসে দুই শিশু নিহত ও ১০ জন আহত হয়েছে। এছাড়া শত শত পরিবার পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। মঙ্গলবার ১০ সেপ্টেম্বর ভোরে টেকনাফ পৌরসভার পুরাতন পল্লান পাড়া এলাকায় এ পাহাড় ধসের ঘটনা ঘটে।

নিহতরা হচ্ছে একই এলাকার রবিউল আলমের ছেলে মেহেদি হাসান (১০) ও মো. আলমের মেয়ে আলিফা আলম (৫)।

উপজেলা সিপিপি (ঘুর্ণিঝড় প্রস্তুতি কর্মসূচি) স্বেচ্ছাসেবক ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা হতাহতদের উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক দুইজনকে মৃত ঘোষণা করেন। খবর পেয়ে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রবিউল হাসান ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন।

তিনি জানান, অতিবৃষ্টির ফলে পাহাড় ধসে হতাহতের এ ঘটনা ঘটেছে। জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নিহতদের পরিবারকে আর্থিক সহায়তার ঘোষণা দেয়া হয়েছে। এছাড়া উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে পানিবন্দী ও ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারগুলোতে তাৎক্ষনিক শুকনা খাবারের ব্যবস্থা করা হয়েছে।

ইউএনও জানান, পাহাড় ধস ও পানিবন্দী পরিবারগুলোর জন্য টেকনাফ বার্মিজ প্রাইমারি ও পাইলট হাই স্কুলে জরুরি আশ্রয় কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে।

সিপিপি সদস্যরা পাহাড়ের ঝুঁকিপূর্ণ এলাকা হতে লোকজনকে নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নিয়ে যেতে কাজ করছেন বলে জানান উপজেলা সিপিপি কর্মকর্তা আবদুল মতিন।

এদিকে অতিবৃষ্টিতে টেকনাফ পৌরসভার অলিয়াবাদ, কলেজ পাড়া, জালিয়াপাড়া, সদর ইউনিয়নের গোদারবিল, শীলবুনিয়া পাড়া, হ্নীলা ইউনিয়নের লেদা, রঙ্গিখালীসহ বিভিন্ন নিচু এলাকা প্লাবিত হয়ে শত শত পরিবার পানি বন্দি হয়ে পড়েছে। উপজেলা চেয়ারম্যান নুরুল আলম প্লাবিত এলাকা পরিদর্শন করেছেন।

এদিকে টেকনাফ আবহাওয়া অফিসের কর্মকর্তা শফিউল আলম জানান, সোমবার রাত ৯টা হতে মঙ্গলবার সকাল ৯টা পর্যন্ত ৩৩৬ মিলিমিটার বৃষ্টিপাত রেকর্ড করা হয়েছে। যা চলতি বছরের সর্বোচ্চ বৃষ্টিপাতের রেকর্ড। বুধবার পর্যন্ত অতি ভারী বৃষ্টিপাত অব্যাহত থাকবে বলে জানান তিনি।

দেশসংবাদ/এনকে


আরও সংবাদ   বিষয়:  টেকনাফ   পাহাড় ধস   মৃত্যু  



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. আবদুস সবুর মিঞা (অব.)
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft