ঢাকা, বাংলাদেশ || বুধবার, ১৬ অক্টোবর ২০১৯ || ১ কার্তিক ১৪২৬
শিরোনাম: ■ সড়ক ব্যবহারে সবাইকে সচেতন হওয়ার আহ্বান প্রধানমন্ত্রীর ■ বন্ড জালিয়াতি চক্রে শতাধিক গার্মেন্টস, পাচার কোটি কোটি টাকা ■ বালিশকাণ্ডে গণপূর্তের ১৬ কর্মকর্তা বরখাস্ত ■ ফেনীতে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ ৩৭ মামলার আসামি নিহত ■ বিশ্বকাপ বাছাইপর্বে ভারতের সাথে বাংলাদেশের ড্র ■ ডিসেম্বরে বহুল প্রত্যাশিত ই-পাসপোর্ট উদ্বোধন ■ সম্রাট মারা গেলে দায় নেবে কে? ■ আবরার হত্যাকাণ্ডে কূটনীতিকদের বিবৃতি ‘অহেতুক’ ■ মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ ■ আন্দোলনের সমাপ্তি টানল বুয়েটের শিক্ষার্থীরা ■ থমথমে বুয়েট, আন্দোলন নিয়ে সিদ্ধান্ত বিকাল ৫ টায় ■ মিয়ানমারকে ৫০ হাজার রোহিঙ্গার তালিকা হস্তান্তর
লিগ্যাল এইডে বিনা খরচে শ্রমিকের ৮৯ লাখ টাকা আদায়
দেশসংবাদ ডেস্ক
Published : Tuesday, 1 October, 2019 at 5:25 PM

নির্যাতিত-নিপীড়িত শ্রমিকদের পাশে দাঁড়িয়ে বিনা খরচে এক বছরে ৮৯ লাখ ছয় হাজার ২’শ ৫ টাকা আদায় করে দিয়েছে জাতীয় আইনগত সহায়তা সংস্থা (লিগ্যাল এইড)।

জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদানকারী সংস্থার মাধ্যমে বিনামূল্যে ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে ঢাকা ও চট্রগ্রাম আইনগত সহায়তা সেলে মোট ৪ হাজার ৩’শ ৭৬ জনকে আইনগত সহায়তা প্রদান করা হয়েছে।  

সংস্থার ওয়েবসাইটে প্রকাশিত প্রতিবেদনে বলা হয়-বিগত অর্থবছরে লিগ্যাল এইডে আইনি পরামর্শ সেবা নেন ৩৪২৯ জন শ্রমিক, মামলায় সহায়তা নেন ৪১২ জন, বিকল্প বিরোধ নিস্পত্তি সেবা নেন ৫৩৫ জন। ঢাকা ও চট্রগ্রামের শ্রমিক সেল থেকে এ সেবা দেয়া হয়। সংস্থাটির বার্ষিক প্রতিবেদনে বলা হয়, অসহায় শ্রমিকদের আইনগত সহায়তা নিশ্চিত করার উদ্দেশে ২০১৩ সাল থেকে ঢাকায় শ্রম আদালত ভবনে স্থাপন করা হয় শ্রমিক আইনগত সহায়তা সেল এবং পরবর্তীতে ২০১৬ সালে চট্রগ্রামে আরেকটি সেল স্থাপন করা হয়। ২০১৮-২০১৯ অর্থবছরে এ দুই সেল থেকে শ্রমিক ও মালিক পক্ষের মধ্যে ৫৩৫টি মধ্যস্থতায় ৮৯ লাখ ছয় হাজার ২০৫ টাকা ক্ষতিপূরণ আদায় করা হয়েছে।

দেশের দরিদ্র ও অসর্থ জনগোষ্ঠী, শ্রমিক, সহিংসতার শিকার নারী-শিশু এবং পাচারের শিকার মানুষের জন্য আইনি সেবা নিশ্চিতে শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার ২০০০ সালে আইন প্রণয়নের মধ্যদিয়ে এর যাত্রা শুরু করে। পরে এই আইনের অধীনে বিভিন্ন বিধি প্রণীত হয়। বিধিতে কারা আইনি সহায়তা পাবেন তা নির্ধারণ করা হয়। দেশের সবক’টি জেলা আদালত, চৌকি আদালত এবং সুপ্রিমকোর্টে লিগ্যাল এইড  সার্ভিস চালু রয়েছে।

সংস্থাটির কর্মকর্তা কাজী ইয়াসিন হাবিব জানান, জেলা লিগ্যাল এইড অফিসগুলোকে এখন শুধু আইনি সহায়তা প্রদানের কেন্দ্র হিসেবেই সীমাবদ্ধ রাখা হয়নি, মামলা জট কমানোর লক্ষ্যে এ অফিসগুলোকে ‘এডিআর কর্ণার’ বা বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তির  কেন্দ্রস্থল’ হিসেবে প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। প্রতিটি জেলায় লিগ্যাল এইড অফিসার নিয়োগ হয়েছে। এ আইনি সেবায় বিভিন্ন কার্যক্রমে জনগণের সম্পৃক্ততা এবং সুবিধাগ্রহণের হার দিনে দিনে বেড়ে চলেছে।

দেশসংবাদ/এসকে


আরও সংবাদ   বিষয়:  লিগ্যাল   এইডে   



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. আবদুস সবুর মিঞা (অব.)
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft