ঢাকা, বাংলাদেশ || বৃহস্পতিবার, ১৭ অক্টোবর ২০১৯ || ২ কার্তিক ১৪২৬
শিরোনাম: ■ ক্যাসিনোর টাকা তো অনেকেই পেয়েছেন, শুধু আমি কেন ■ তুরস্কের কাছে যুক্তরাষ্ট্রের ৫০ পরমাণু বোমা! ■ একটু পানি চেয়েছিল মৃত্যু যন্ত্রনায় ছটফট করতে থাকা আবরার ■ রিমান্ডের প্রথম দিনেই র‍্যাবের কাছে সম্রাট ■ যুবলীগের কোন দুর্নীতিবাজ যেন গণভবনে না আসে ■ টেকনাফে বন্দুকযুদ্ধে ২ মাদক কারবারি নিহত ■ মদিনায় বাসে আগুন, ৩৫ ওমরাহ যাত্রী নিহত ■ সন্ত্রাসীদের আত্মসমর্পণ করতে বললেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ■ বড় ভাইয়ের নির্দেশে আবরারকে ডেকে এনে মারা হয় ■ কুষ্টিয়ায় কৃষক হত্যার দায়ে স্ত্রীসহ চারজনের ফাঁসি ■ সোহরাওয়ার্দীতে সমাবেশ ডেকেছে ঐক্যফ্রন্ট ■ ‘কুড়িগ্রাম এক্সপ্রেস’ উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
নদীতে ঝাঁপ দিয়ে ধর্ষণের হাত থেকে রক্ষা পেল স্কুলছাত্রী!
হাবিব সরোয়ার আজাদ, সিলেট :
Published : Monday, 7 October, 2019 at 11:50 PM, Update: 07.10.2019 11:55:41 PM

নিজের সম্ভ্রম বাঁচাতে নদী ঝাঁপ দিয়ে ধর্ষণকারির কবল থেকে রক্ষা পেল সুনামগঞ্জের তাহিরপুরে চতুর্থ শ্রেণিতে পড়–য়া ১১ বছর বয়সী এক স্কুল ছাত্রী।
রবিবার রাতে ভিকটিমের পিতা উপজেলার বাদ্ঘাাট উওর ইউনিয়নের ইউনুছপুর গ্রামের পুরানহাটির মৃত রবি উল্লাহর ছেলে আসাদ মেস্তরি (৫৫)’র নামে এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ করেন। অভিযুক্ত আসাদ ও ২ ছেলে ৪ মেয়ের জনক।

এরপুর্বে রবিবার সন্ধায় উপজেলার  ইউনুছপুর গ্রামের পুরান হাটির ভাঙ্গার খাল নদীর পুর্বতীরের পতিত ভিটায় এ ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনাটি ঘটেছে।
ভিকটিমের পরিবার ও গ্রামবাসী জানান, উপজেলার ইউনুছপুর গ্রামের পুরানহাটির ধনাঢ্য আসাদ মেস্তরি প্রতিবেশি সুবিধা বঞ্চিত পরিবারের চতুর্থ শ্রেণিতে পড়–য়া স্কুল ছাত্রীকে গল্পের ছলে ফুঁসলিয়ে রবিবার সন্দা সাড়ে ৭টার দিকে গ্রামের ভাঙ্গারখাল নদীর পুর্ব তীরের পতিত ভিটায় নিয়ে যায়। 

পতিত ভিটায় নিয়ে মুখ গামছা দিয়ে বেঁধে জোরপুর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করলে নিজের সম্ভ্রম বাঁচাতে জীবনের মায়া ত্যাগ করে ওই স্কুল ছাত্রী দ্রæত ঝাঁপ দিয়ে নদীতে পড়ে যান। পতিত ভিটার পাশ দিয়ে যাতায়াতকালে গ্রামের একদল লোক নদীতে কিছু একটা  ঝাঁপ দিতে দেখে তাৎক্ষণিকভাবে ওই স্কুল ছাত্রীকে উদ্ধার করে গ্রামে নিয়ে যান।

এ সুযোগে ধর্ষণচেষ্টারত আসাদ পতিত ভিটা হতে দৌড়ে পালিয়ে যান।ঘটনা রাতেই গ্রামে জানাজানি হলে ভিকটিমের পরিবারকে মধ্যরাত সাড়ে ১২ অবধি আইনি সহায়তা না নিতে গ্রামে থাকা আসাদের স্বজন ও  একদল কথিত সালিসী অবরুদ্ধ করে রাখেন। অবশেষে আইনি সহায়তা ও ঘটনার ন্যায় বিচার পেতে স্কুলছাত্রীকে সাথে নিয়ে তার অভিভাবক রাত দেড়টায় কৌশলে থানা পৌছেন।

সোমবার উপজেলার ইউনুছপুর গ্রামের নাম প্রকাশে একাধিক ব্যাক্তি জানান, আসাদ অতীতে একটি হত্যা মামলায় বেশ কয়েকবছর জেল খেটেছে। এরপর জেল থেকে ছাড়া পেয়ে জাল জালিয়াতি করে মুক্তিযোদ্ধা সনদ হাতিয়ে নিয়ে দিনে দিনে এ বয়সেও সে আরো বেপরোয়া হয়ে উঠলে গ্রামের নারী , যুবতী, স্কুল ছাত্রী, কিশোরীরা নানা সময়ে তার কু -দৃষ্টিতে পড়ার আতংকে স্বাভাবিক ভাবে চলাচল করতে পারছেন না। সোমবার দুপুরে সহকারি পুলিশ সুপার তাহিরপুর(সার্কেল) মো. বাবুল আক্তার বলেন, থানায় এ ব্যাপারে লিখিত অভিযোগ পাওয়া গেছে, তদন্ত পুর্বক পরবর্তী আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। 

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এসআই


আরও সংবাদ   বিষয়:  ধর্ষণ   সিলেট  



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. আবদুস সবুর মিঞা (অব.)
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft