ঢাকা, বাংলাদেশ || মঙ্গলবার, ১২ নভেম্বর ২০১৯ || ২৮ কার্তিক ১৪২৬
শিরোনাম: ■ নারীর পায়ের ওপর দিয়ে চলে গেল বাসের চাকা ■ রেলের সাথে সংশ্লিষ্টদের সতর্ক হওয়ার নির্দেশ ■ ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ১০ জনের পরিচয় মিলেছে ■ প্রতারণা করে চাকরি, রাজস্ব কর্মকর্তার ৭ বছর কারাদণ্ড ■ জানুয়ারিতে শুরু হচ্ছে রামমন্দির নির্মাণকাজ ■ তূর্ণা এক্সপ্রেসের চালক-গার্ডসহ ৩ জন বরখাস্ত ■ ফেনীতে ফাঁসির মঞ্চ নেই, কুমিল্লায় যাচ্ছে নুসরাতের খুনিরা ■ কাশ্মীরে তুমুল গোলাগুলি, নিহত ২ ■ তিন পুলিশ কর্মকর্তাকে কুপিয়ে জখম ■ মহারাষ্ট্রে বিজেপি সরকারের পতন ■ ফের আন্তর্জাতিক ‘অ্যালার্ট’র আশঙ্কায় শাহজালাল বিমানবন্দর ■ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ২ ট্রেনের মুখোমুখি ভয়াবহ সংঘর্ষ, নিহত ১৬
এডিসের পর কিউলেক্স মশা নিয়ন্ত্রণ করবে ডিএনসিসি
দেশসংবাদ, ঢাকা :
Published : Saturday, 2 November, 2019 at 6:09 PM

মশা

মশা

এডিসের পর কিউলেক্স মশা দেখা দেয়ায় তা নিয়ন্ত্রণে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন (ডিএনসিসি) বিশেষ উদ্যোগ নিয়েছে। পাশাপাশি এডিসসহ অন্য যে কোনো মশা নিয়ন্ত্রণে বছরব্যাপী কর্মপরিকল্পনা প্রণয়ন করেছে ডিএনসিসি।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ডিএনসিসি কিউলেক্স ও এডিস মশা নিয়ন্ত্রণে কার্যক্রম তদারকি বিষয়ক পরিচালনা পর্ষদ গঠন করেছে। মশা নিয়ন্ত্রণে প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ প্রয়োজনীয় ব্যক্তিদের নিয়ে এ পর্ষদ গঠিত হয়েছে। প্রতি তিন মাস পর পর এ পর্ষদের সভা অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া গত ৭ অক্টোবর থেকে কিউলেক্স মশার প্রজননস্থল অর্থাৎ হটস্পট চিহ্নিতে দুই কীটতত্ত¡ এবং ১০ জন শিক্ষানবিশ নিয়োজিত করা হয়েছে। তারা ইতোমধ্যে হটস্পট অর্থাৎ কোন এলাকায় কিউলেক্স মশার তীব্রতা কত তা নির্ধারণ করেছেন। এখন সে অনুযায়ী চলছে মশক নিধন কার্যক্রম। ডিএনসিসির ৫৪টি ওয়ার্ডেই এ গবেষণা পরিচালিত হয়েছে।

এ কাজে নিয়োজিত কীটতত্ত¡বিদ ড. জি এম সাইফুর রহমান জানান, সাত ওয়ার্ডে কিউলেক্স মশার প্রজননস্থলের ঘনত্ব বেশি পাওয়া যায়। ওয়ার্ডগুলো হচ্ছে ২০, ২৮, ১১, ৫, ৩১, ৩২ ও ১৭। এছাড়া, মশার উৎপত্তিস্থল হিসেবে নালা, খাল, জলাশয়, পুকুর হতে কচুরিপানাসহ অন্য ময়লা পরিষ্কার করতে বছরব্যাপী পরিকল্পনা নেয়া হয়েছে। যা নিয়মিত আঞ্চলিক নির্বাহী কর্মকর্তাকে জানাতে হবে। এছাড়া কাউন্সিলরের নেতৃত্বে সমাজের গণ্যমান্য ব্যক্তি, শিক্ষক, শিক্ষার্থী, ঈমাম, বাড়ি কল্যাণ সমিতির প্রতিনিধিদের সমন্বয়ে দুই সপ্তাহের মধ্যে একটি অ্যাডভোকেসি সভার আয়োজনের নির্দেশ দিয়েছে ডিএনসিসি।

ডিএনসিসির প্রধান স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ব্রিগেডিয়ার জেনারেল মোমিনুর রহমান মামুন বলেন, দুই সপ্তাহব্যাপী বিশেষ মশক নিধন কার্যক্রম অর্থাৎ ক্রাশ প্রোগ্রাম অনুষ্ঠিত হবে। এছাড়া ৫৪ ওয়ার্ডে ইতোমধ্যে গৃহীত কার্যক্রমের প্রভাব এবং হটস্পট নির্ধারণে আবারও গবেষণা শুরু হবে।
সম্প্রতি ‘মশক নিয়ন্ত্রণে বর্তমান কার্যক্রম এবং বছরব্যাপী কর্মপরিকল্পনা’ শীর্ষক সংবাদ সম্মেলনে উত্তরের মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেন, এখন থেকে প্রতিটি ওয়ার্ডের কাউন্সিলররা মশক নিয়ন্ত্রণ, পরিছন্নতাসহ যে কোনো বিষয়ে দায়ী থাকবেন। যার যার কৃতকর্মের জন্য তাকেই জবাবদিহি করতে হবে।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, ঢাকার দুই সিটি কর্পোরেশনের নেই পর্যাপ্ত লোকবল। পাশাপাশি ফগার ও হুইল ব্যারোসহ অন্য মেশিন- যন্ত্রপাতিতে সংকট থাকায় মশা নিধন পুরোপুরি সম্ভব হচ্ছে না। পুরোনো কাঠামোর মাত্র ৪৮ শতাংশ জনবল নিয়েই সংস্থা দুটি তাদের দ্বিগুণ এলাকায় নাগরিক সেবা দিয়ে যাচ্ছে। এ কারণে প্রতিটি সেবা সংক্রান্ত কার্যক্রমেই হিমশিম খাচ্ছে সংস্থা দুটি।

সিটি কর্পোরেশন বিভক্তের পর নতুন করে ১৬টি ইউনিয়ন যুক্ত হওয়ায় সংস্থা দুটির আয়তন বেড়েছে। কিন্তু জনবল বাড়েনি বরং বিভক্ত হওয়ায় দুই ভাগ হয়েছে আগের জনবল। এজন্য যথাযথ নাগরিক সেবা পাচ্ছে না নগরবাসী। ডেঙ্গু, চিকুনগুনিয়াসহ মশাবিাহিত রোগ মোকাবিলায় ডিএসসিসি ও ডিএনসিসি মোট ১২৯ ওয়ার্ডে মশক কর্মী রয়েছে মাত্র ৭০৯ জন। যে কারণে তারা হিমশিম খাচ্ছে সার্বিক কাজ পরিচালনায়।

দেশসংবাদ/এসআই


আরও সংবাদ   বিষয়:   ডিএনসিসি   এডিস   নালা   খাল   জলাশয়   পুকুর  



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. আবদুস সবুর মিঞা (অব.)
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft