ঢাকা, বাংলাদেশ || মঙ্গলবার, ২৫ ফেব্রুয়ারী ২০২০ || ১৩ ফাল্গুন ১৪২৬
শিরোনাম: ■ ইনিংস ব্যবধানে জিতলো বাংলাদেশ ■ ব্যাপক রাজনৈতিক বিশৃঙ্খলায় মালয়েশিয়া ■ বিক্ষোভে উত্তাল কলকাতা, দিল্লিতে নিহত ৪ ■ জ্বলছে দিল্লি, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে দফায় দফায় বৈঠক ■ যুবলীগ সভাপতিকে পেটালেন ওসি ■ ১১ বছরেও অসমাপ্ত বিস্ফোরক মামলার বিচারকার্য ■ সেনাবাহিনীর উচ্চপর্যায়ে রদবদল ■ করোনাভাইরাসে মৃতের সংখ্যা ২৭০১ ■ সৌদি আরবে সড়ক দুর্ঘটনায় ৩ বাংলাদেশি নিহত ■ লিবিয়ায় ১৬ তুর্কি সেনা নিহত! ■ চট্টগ্রাম সিটি নির্বাচনে বিএনপির প্রার্থী ডা. শাহাদাত ■ ১ এপ্রিল থেকেই ৯ শতাংশ সুদে ব্যাংক ঋণ
স্টিলের গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার, বাড়ছে ক্যান্সার ঝুঁকি
রিয়াজুল ইসলাম সবুজ, ঢাকা
Published : Friday, 24 January, 2020 at 1:40 AM

স্টিলের গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার, বাড়ছে ক্যান্সার ঝুঁকি

স্টিলের গ্যাস সিলিন্ডার ব্যবহার, বাড়ছে ক্যান্সার ঝুঁকি

বিগত কয়েক বছরে গৃহস্থালি, যানবাহন ও বাণিজ্যিক ক্ষেত্রে সকল প্রকার গ্যাস সিলিন্ডারের ব্যবহার বৃদ্ধি পেয়েছে। আবার মেয়াদোত্তীর্ণ, ঝুঁকিপূর্ণ এবং নিম্নমানের সিলিন্ডার ব্যবহারেও বাড়ছে আতঙ্ক। দুশ্চিন্তা আরও বাড়িয়ে তুলেছে এলপিজির স্টিল সিলিন্ডারের ব্যবহার। ভারতিয় পালাদিন পেইন্টস অ্যান্ড কেমিক্যালস, প্রাইভেট লিমিটেডের প্রতিবেদনে দাবি করা হয়েছে, এলপিজি স্টিল সিলিন্ডার তৈরির প্রধান উপাদান হিসেবে ব্যবহৃত জিংক ক্রোমেট অত্যন্ত বিষাক্ত এবং এটি মানবদেহে ক্যান্সার সৃষ্টি করে।

২০০৫ সালে পাইপলাইনে বাসাবাড়িতে গ্যাস সংযোগ বন্ধের পর কয়েক বছরে এলপিজি গ্যাস দেশব্যাপী জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। বিস্ফোরক অধিদপ্তরের সূত্রমতে, আবাসিক, শিল্প ও বাণিজ্যিক ব্যবহারের জন্য দেশে এলপিজি সিলিন্ডারের সংখ্যা প্রায় ২ কোটি ২০ লাখ। প্রতি বছর প্রায় ৭০-৮০ লাখ সিলিন্ডার রিফিল হয়। এগুলোর অধিকাংশই স্টিল সিলিন্ডার। বর্তমানে বাংলাদেশের ১৫টি শীর্ষস্থানীয় কোম্পানী এলপিজি খাতে প্রায় পাঁচ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগ করেছে। এরমধ্যে ১২ কেজি ধারণ ক্ষমতার একটি আমদানিকৃত সিলিন্ডারের দাম ২ হাজার ২০০ থেকে ২ হাজার ৪০০ টাকা। কিন্তু সিলিন্ডার কিনতে গ্রাহকদের আগ্রহী করে তুলতে প্রারম্ভিক মূল্য ৮০০-৯০০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে।

আবার স্টিল সিলিন্ডারের বিকল্প হিসেবে বিভিন্ন দেশে কম্পোজিট ফাইবার সিলিন্ডার ব্যবহার শুরু করেছে। সম্প্রতি বাংলাদেশেও একটি কোম্পানি এই নতুন ধরণের সিলিন্ডার নিয়ে এসেছে। অত্যাধুনিক প্রযুক্তিতে তৈরি এই কম্পোজিট সিলিন্ডারে গ্লাস ফাইবার ও রেজিনের স্তর থাকে যা সিলিন্ডারকে মজবুত ও দীর্ঘস্থায়ী করে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, স্টিল সিলিন্ডার থেকে কম্পোজিট সিলিন্ডার হালকা, বিস্ফোরণ প্রতিরোধক এবং এই সিলিন্ডারে জিঙ্ক ক্রোমেটের ব্যবহার নেই। তাই গৃহস্থালিসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে এই সিলিন্ডার ব্যবহার করা উচিত বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এফএইচ/mmh


আরও সংবাদ   বিষয়:  গ্যাস সিলিন্ডার   ক্যান্সার  



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft