ঢাকা, বাংলাদেশ || বুধবার, ১৯ ফেব্রুয়ারী ২০২০ || ৭ ফাল্গুন ১৪২৬
শিরোনাম: ■ সুপ্রিমকোর্ট বারের ভোটের তারিখ ঘোষণা ■ খালেদা জিয়াকে নিয়ে প্রশ্নের জবাব দেয়ার সময় নেই ■ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত বাংলাদেশি জীবনমৃত্যুর সন্ধিক্ষণে ■ মাঝ আকাশে দুই বিমানের সংঘর্ষে নিহত ৪ ■ মানবতাবিরোধী অপরাধ মামলায় এক আসামির জামিন ■ খালেদা জিয়ার জামিন শুনানি রোববার ■ চীনে মৃত্যু আতঙ্ক, প্রাণ গেল আরও ১৩২ জনের ■ অভিবাসীদের ৫ বছরের ফ্যামিলি ভিসা দেবে কাতার ■ চলতি বছরেই কার্যকর হচ্ছে জিপিএ-৪ ■ বার কাউন্সিলের এমসিকিউ পরীক্ষার রোল নম্বর প্রকাশ ■ ফের বাড়ল স্বর্ণের দাম ■ দেশে করোনা ভাইরাস আক্রান্ত রোগী পাওয়া যায়নি
ইসির অভ্যন্তরেই লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নেই
দেশসংবাদ, ঢাকা :
Published : Sunday, 26 January, 2020 at 2:14 PM, Update: 26.01.2020 4:33:41 PM

নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার

নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার

নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার বলেছেন, নির্বাচন কমিশনের অভ্যন্তরেই কোনো লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড নেই। এই ভোটে নির্বাচন কমিশনের যেভাবে দায়িত্ব পালন করা প্রয়োজন, তা হচ্ছে না। তার মতে, সিটি নির্বাচনের সিডিউল ঘোষণার পর থেকে আজ পর্যন্ত যে তিনটি কমিশনসভা অনুষ্ঠিত হয়; তার কোনোটিতে ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের আচরণবিধি, অনিয়ম বা প্রার্থীদের অভিযোগ সম্পর্কে কোনো আলোচনা হয়নি।

এমনকি কোনো কমিশনসভায় এসব বিষয় এজেন্ডাভুক্ত হয়নি বলেও দাবি করেন তিনি। রোববার নির্বাচন ভবনে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে মাহবুব তালুকদার বলেন, আগামী ২৮ জানুয়ারি যে নির্বাচন কমিশনসভা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে, তাতেও ঢাকা সিটি কর্পোরেশন সম্পর্কে কোনো বিষয়ে এজেন্ডাভুক্ত নয়।

এটিকে দুঃখজনক আখ্যায়িত করে তিনি আরও বলেন, ঢাকা সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন সম্পর্কে আমি গত ৯, ১৩, ১৬ ও ২০ জানুয়ারি যে চারটি ইউ ও নোট প্রদান করেছি, তা রীতিমতো উপেক্ষা করা হয়েছে। আমলে নেয়া হয়নি। ‘এসবের বিষয়বস্তু সম্পর্কে কোনো আলোচনা হয়নি বা প্রয়োজনীয় ব্যবস্থাও গৃহীত হয়নি। যদি আমার বক্তব্য অগ্রহণযোগ্য হয়, তা হলেও আমাকে জানানো উচিত ছিল।’

এ নির্বাচন কমিশনার বলেন, গত ১৬ জানুয়ারি প্রদত্ত ইউ ও নোটের মাধ্যমে কমিশন সচিবালয়ের সিনিয়র সচিব ও ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশনের দুই রিটার্নিং অফিসারের কাছে আমি প্রার্থীদের বিভিন্ন অভিযোগ সম্পর্কে তথ্যাদি জানাতে বলেছিলাম।

‘এসব অভিযোগের বিষয়ে কী ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে, ২০ জানুয়ারির মধ্যে আমার কাছে পেশ করার জন্য নির্দেশ দিয়েছিলাম। কিন্তু আমার সেই নির্দেশ উপেক্ষিত হয়েছে এবং কোনো তথ্যই আমাকে সরবরাহ করা হয়নি।’

তার দাবি, নির্বাচন কমিশনে রাজনৈতিক দল বা প্রার্থীর পক্ষ থেকে আসন্ন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন সম্পর্কে যেসব অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে বা অভিযোগপত্র পাঠানো হয়েছে, তা নিয়ে কমিশনে কোনো প্রকার আলোচনা ও সিদ্ধান্ত গ্রহণের লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না।

তিনি বলেন, এসব অভিযোগের পেছনে যে অসন্তোষ, তা বিস্ফোরিত হলে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন যথোপযুক্তভাবে অনুষ্ঠিত হবে না, যা কোনোভাবেই কাম্য নয়। এর দায়ভার নির্বাচন কমিশনকে বহন করতে হবে।

নির্বাচন কমিশনসভায় তার প্রস্তাব কিংবা সুপারিশ সংখ্যাগরিষ্ঠতার ভিত্তিতে অগৃহীত হয় জানিয়ে মাহবুব তালুকদার বলেন, আমাকে সংখ্যাগরিষ্ঠ হিসেবে না দেখে, আমার বক্তব্যের বিষয়বস্তুর মেরিটকে বিবেচনায় নেয়া সমীচীন বলে মনে করি। কমিশনসভায় তার বক্তব্য প্রদানের স্থান সংকুচিত হয়ে পড়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

দেশসংবাদ/জেআর/এসআই


আরও সংবাদ   বিষয়:  নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার   নির্বাচন ভবন  



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft