ঢাকা, বাংলাদেশ || শুক্রবার, ২৯ মে ২০২০ || ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ সক্রিয় হচ্ছেন খালেদা জিয়া ■ সোশ্যাল মিডিয়া নিয়ন্ত্রণে ট্রাম্পের নির্বাহী আদেশ ■ লকডাউন শিথিলে ভয়াবহ রুপ নিবে করোনা! ■ যুক্তরাষ্ট্রে ফের তান্ডব, ২৪ ঘণ্টায় ১২৯৭ মৃত্যু ■ ২৬ বাংলাদেশিকে গুলি করে হত্যা ■ বাড়ি বাড়ি প্রশ্ন পাঠিয়ে নেয়া হচ্ছে প্রাথমিক পরীক্ষা ■ এই ইনহেলার ফুসফুসে করোনা সংক্রমণ রুখে দিতে পারে ■ সেপটিক ট্যাংকে পড়ে মা-ছেলের মৃত্যু ■ ওয়াশিংটন ডিসি ধীরে ধীরে চালু হচ্ছে ■ পিসিআর ল্যাবের পরীক্ষায়ও ডা. জাফরুল্লাহর করোনা পজিটিভ ■ সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম বন্ধের হুমকি ■ আরও ২ ইউপি চেয়ারম্যান ও ৩ মেম্বার বরখাস্ত
ধুনটে দোকান খোলা রাখার সময় বেঁধে দিলেন ইউএনও
রফিকুল আলম, ধুনট (বগুড়া)
Published : Monday, 6 April, 2020 at 11:29 AM
Zoom In Zoom Out Original Text

ধুনটে দোকান খোলা রাখার সময় বেঁধে দিলেন ইউএনও

ধুনটে দোকান খোলা রাখার সময় বেঁধে দিলেন ইউএনও

করোনাভাইরাস সংক্রমণ ঠেকাতে সামাজিক নিরাপদ দুরত্ব সুরক্ষায় বগুড়ার ধুনট উপজেলায় কাঁচাবাজার ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দোকানপাট খোলা রাখার সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছে। উপজেলা করোনা প্রতিরোধ কমিটির জরুরী সভার সিদ্ধান্তের আলোকে এ নির্দেশনা দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রাজিয়া সুলতানা।

সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, প্রতিদিন সকাল ৬টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত কাঁচাবাজার ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দোকানপাট খোল থাকবে। দুপুর ২টার পর থেকে সকাল ৬টা পর্যন্ত কাঁচাবাজার ও নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দোকানপাট বন্ধ রাখার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। তবে ঔষধের দোকান ২৪ ঘন্টা খোলা রাখতে কোন বাঁধা নেই। উপজেলার সকল হাটাবাজারের দোকানপাটের জন্য এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

ধুনট বাজার ব্যবসায়ী ঐক্য পরিষদের সভাপতি ও পৌরসভার মেয়র এজিএম বাদশাহ বলেন, প্রশাসনের এ সিন্ধান্তের প্রতি একাত্বতা প্রকাশ করেছি। সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে সাধারণ মানুষকে বুঝানোর চেষ্টা করছি। কিছু উঠতি বয়সী যুবক অলি-গলিতে আড্ডা দিচ্ছে। তাদের বাড়িতে বাসায় পাঠিয়ে দিচ্ছি।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা বলেন, হাট-বাজার গুলোতে পুলিশ গেলে মানুষজন সরে যায়। পুলিশ চলে আসলে আবার এসে আড্ডা দেয়। আমরা মাইকিং করে বুঝানোর চেষ্টা করছি। যারা আড্ডা দিচ্ছে তাদের সতর্ক করে সরিয়ে দিচ্ছি।
 
ধুনট উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) রাজিয়া সুলতানা জানান, সরকারি নির্দেশনা অনুযায়ী সব ধরণের সভা-সমাবেশ, সামাজিক অনুষ্ঠান, মার্কেট, গণজমায়েত ও গণপরিবহন বন্ধ থাকলেও কাঁচা বাজার, মুদি দোকান দোকানসহ জরুরি সেবা চালু রাখা হয়েছিল। এ সুযোগ নিয়ে মানুষ বিকেলে হাট-বাজারে এসে চায়ের দোকানে বসে আড্ডা দেন। বিনা প্রয়োজনে ভিড় করেন। বাসায় থাকতে বারবার অনুরোধ করার পরেও শুনেন না। তাই এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।#

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এফএইচ/mmh


আরও সংবাদ   বিষয়:  ধুনট   করোনাভাইরাস   রাজিয়া সুলতানা  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
টিকা না আসা পর্যন্ত করোনাকে সঙ্গী করেই বাঁচতে হবে
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up