ঢাকা, বাংলাদেশ || শনিবার, ৩০ মে ২০২০ || ১৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ লিবিয়ায় পাচারকারীদের গুলিতে নিহত ৫ জন ভৈরবের ■ চার্টার্ড প্লেনে সস্ত্রীক লন্ডন গেলেন মোরশেদ খান ■ ভারতে ৪ দশমিক ৬ ভূমিকম্পের আঘাত ■ বহিষ্কারের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জের ঘোষণা দিলেন মাহাথির ■ দেশে নতুন করে গরিব হলো ২৩ শতাংশ মানুষ ■ হাইকোর্টে স্থায়ী হলেন ১৮ বিচারপতি ■ সোমবার থেকে বাস চলবে, খালি রাখতে হবে অর্ধেক আসন ■ বিশ্ববিদ্যালয়ের ছুটি বাড়ল ১৫ জুন পর্যন্ত ■ বাংলাদেশে চাকরির সার্কুলার কমেছে ৮৭ শতাংশ ■ লিবিয়ার ঘটনায় হতাহত বাংলাদেশিদের পরিচয় মিলেছে ■ আমের মৌসুম শুরু হলেও জমেনি কেনা-বেচা ■ ১০ দিনে ২১ হাজার আসামির জামিন
করোনা পরবর্তী বিশ্ব
মোঃ রাসেল আহম্মেদ
Published : Monday, 27 April, 2020 at 1:00 PM, Update: 29.04.2020 2:13:00 AM
Zoom In Zoom Out Original Text

মোঃ রাসেল আহম্মেদ

মোঃ রাসেল আহম্মেদ

গতবছরের একেবারে শেষের দিকে চীনের উহান শহরে ছড়িয়ে পড়া নতুন এক ভাইরাস যা পরবর্তী দু-মাসে সমগ্র বিশ্বে চড়িয়ে পড়ে এবং একের পর এক দেশ কল ডাউন করতে বাধ্য হয়। ধনী থেকে দরিদ্র কোন দেশই এর আক্রমণের শিকার হতে রক্ষা পায়নি। ইতিমধ্যে বিশ্বের ২০৬ টি দেশে ছড়িয়েছে নভেল করোনা ভাইরাস এবং এক্ষেত্রে বিশ্বের পরাশক্তি রাষ্ট্র সমূহ সবচেয়ে বেশী আক্রান্ত ও ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। ইতিমধ্যে প্রশ্ন উঠেছে করোনা পরবর্তী তাদের আধিপত্য কতটুকু থাকবে তা নিয়ে।

লক ডাউনের ফলে স্বাভাবিক জীবন যাপন থমকে গেছে এবং বলা চলে প্রায় ৯০ শতাংশ অর্থনৈতিক কর্মকান্ড স্থবির হয়ে পড়েছে। সবচেয়ে বেশী আক্রান্ত এভিয়েশন ও পর্যটন খাত সংশ্লিষ্ট মানুষজন। তাছাড়া সার্বিক উৎপাদন প্রক্রিয়া ব্যাহত হওয়াতে শিল্প কলকারখানার উৎপাদন, বিপণন এবং আমদানি রপ্তানি সহ সকল ক্ষেত্রে এর প্রভাব পড়েছে। পর্যটন ও রেমিট্যান্স নির্ভর দেশ গুলোর সামনে বড় চ্যালেঞ্জ অপেক্ষা করছে। এসব খাতে চল্লিশ থেকে পঞ্চাশ শতাংশ আয় কমে যাওয়ার ইঙ্গিত দিয়েছেন বিশেষজ্ঞরা।

চিকিৎসক ও চিকিৎসা সংক্রান্ত সরঞ্জামের অভাব দেখা দিয়েছে সারা বিশ্বে। এটিকে কেন্দ্র করে যুক্তরাষ্ট্র ও জার্মানির মধ্যে বৈরী সম্পর্ক বিরাজ করছে। তাছাড়া ইউরোপের দেশ ইটালি যখন ব্যাপক ভাবে আক্রান্ত ও ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছিল তখন ইউরোপীয় ইউনিয়ন ভুক্ত দেশের কাছ থেকে তেমন কোন সহযোগিতা না পাওয়ার খবর রয়েছে। ফলে দেশটি চীন এবং কিউবা থেকে চিকিৎসক ও চিকিৎসা কর্মী এনে পরিস্থিতি সামালের চেষ্টা করে। পরবর্তীতে ফ্রান্স এবং স্পেন আক্রান্ত হলে একই চিত্র দেখা যায়।

যদিও ইউরোপীয় ইউনিয়ন ইতিমধ্যে ট্রিলিয়ন ডলারের প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছে ক্ষতিগ্রস্ত দেশসমূহের জন্য তাদের অর্থনৈতিক ক্ষতি কাটিয়ে উঠতে কিন্তু করোনা পরবর্তী সময়ে ইউরোপীয় ইউনিউনের সম্ভাব্য ভাঙ্গনের কথা শোনা যাচ্ছে। দেশ গুলো একে অপরকে দোষারোপ করে আসছে বিভিন্ন ইসুতে। তাছাড়া সেসকল দেশের কর্মক্ষম মানুষের বিশাল অংশ ইতিমধ্যে বেকার হয়ে পড়েছে। তাই সামনের দিনগুলোতে সবাই নিজেদের বাঁচানোর চেষ্টাই করবে এটিই বাস্তবতা।

মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশ থেকে বাংলাদেশী শ্রমিকদের দেশে ফিরিয়ে আনতে চাপ রয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রবাসী কল্যাণ ও শ্রম বিষয়ক মন্ত্রণালয়। ইতিমধ্যে এই ভাইরাস চড়িয়ে পড়ার পর থেকে দেশে প্রায় ১ লাখের মত প্রবাসী শ্রমিক দেশে ফিরে এসেছে। রেমিট্যান্স প্রবাহ ৪০ শতাংশ কমে গেছে এবং সামনের দিনগুলোতে আরো কমতে পারে বলে বিশেষজ্ঞদের ধারণা।

মানুষের চিন্তা চেতনা, খাওয়া দাওয়া এবং কাজ কর্মে ব্যাপক পরিবর্তন এসেছে। প্রযুক্তির কল্যাণে অনেকে এখন ঘরে বসে অফিস ও ব্যাবসা বানিজ্যে পরিচালনা করছেন। কয়েকজন সহকর্মীর সাথে কথা বলে জানা গেল জাতীয় পর্যায়ের বেশকিছু মিডিয়া তাদের ৯৫ শতাংশ কাজ ঘরে বসে সম্পূর্ণ করছেন। তাছাড়া বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও কলেজ বিশ্ববিদ্যালয় তাদের নিয়মিত পাঠদান করছে অনলাইনের মাধ্যমে।

চীনের উহান শহর এখন পুরোপুরি উন্মুক্ত এবং বিশ্বের নানান দেশ বিশেষ করে ইউরোপে অনেক দেশে শর্ত সাপেক্ষে সল্প পরিসরে লক ডাউন থেকে ফিরতে শুরু করেছে। তবে এটা কোন দেশ বা সংস্থা বলতে পারছেনা কবে নাগাদ এই অবস্থা স্বাভাবিক হবে, বা আধো হবে কিনা? বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা বলছে পুরোপুরি লক ডাউন প্রত্যাহার করা ঠিক হবে না কারন ভাইরাসটি পূনরায় সংক্রমণ ঘটাতে পারে। এবং যদি এমনটি হয় তাহলে পরিনতি হবে ভয়াবহ!

এই ভাইরাসে ইতিমধ্যে ২ লক্ষ মানুষ প্রান হারিয়েছে এবং আক্রান্ত প্রায় ৩০ লক্ষ। করোনা পরবর্তী সময় বা এটি যদি আরো দীর্ঘ মেয়াদি হয় তাহলে কোটি কোটি মানুষ বেকার হওয়ার শংকার পাশাপাশি খাদ্য সংকট বা দুর্ভিক্ষ দেখা দিতে পারে। অনেক বিশ্লেষক বলছেন ধনী দেশ সমূহের কাছে টাকা থাকলেও কিনার মত কোন খাবার থাকবে না। পক্ষান্তরে অনুন্নত ও উন্নয়নশীল দেশ সমূহ দূত খাদ্য উৎপাদন করে পরিস্থিতি সালাম দিতে চেষ্টা করবে।

সমগ্র বিশ্বে প্রবাসী শ্রমিকদের সকলের কাজ নিশ্চিত করা বেশ সময় সাপেক্ষ মনে হচ্ছে। কারন ধীরে ধীরে লক ডাউন বা জীবন যাত্রা স্বাভাবিক হলেও পূর্বের ছন্দে ফিরে যেতে দীর্ঘ সময় লাগবে বা আদো পূর্বের অবস্থায় যেতে পারবে কিনা তা এখন অনিশ্চিত! চতুর্দিকে মানুষজন বলবলি করছে করোনা পরবর্তী সময় কখনো আর আগের মত হবে না। একলা চল বা প্রথমে নিজে বাঁচুন এমন নীতির ফলে সমগ্র বিশ্বব্যাপী জাতীয়তাবাদ মাথা চাড়া দিয়ে উঠতে পারে।

তাছাড়া আন্তজার্তিক চলাচল সীমিত হয়ে যেতে পারে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিত করনের লক্ষ্যে। স্বাভাবিক ভাবেই নতুন এক সমাজ ব্যবস্থা গড়ে উঠবে এবং মানুষ তার সহজাত প্রবৃত্তির ফলে সল্প সময়ের ব্যবধানে এসবে মানিয়ে নিবে। অনেকে বসে পড়েছেন করোনা পরবর্তী ব্যবসা বানিজ্যের হিসাব নিকাশ নিয়ে। নিজেদের মত করে পরিকল্পনা, পন্য ও সেবা তৈরি করছেন যা হয়তো পরিবর্তিত নতুন পৃথিবীর চাহিদার শীর্ষে থাকবে!

ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তারা বেশী ক্ষতিগ্রস্ত হবে। পরিস্থিতি ধীরে ধীরে স্বাভাবিক হলেও সংকট কাটিয়ে উঠতে উঠতে সেসকল উদ্যোক্তারা বাজারে টিকে থাকতে সংগ্রম করতে হবে। ফলে বেকারত্ব ও বিভিন্ন সামাজিক সমস্যা দেখা দেওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। আমাদেরকে যেকোন পরিস্থিতি বিবেচনায় প্রস্তুতি নিতে রাখতে হবে। অন্যথায় করোনা থেকে রক্ষা পেলেও আসন্ন অনিশ্চিত ভবিষ্যতে নিজেদের অস্তিত্ব খুঁজে পাওয়া কঠিন হবে।

বিশ্ব ব্যবস্থার ব্যাপক পরিবর্তন আসন্ন তা এক বাক্যে সবাই স্বীকার করছেন। কিন্তু এই মূহুর্তে সঠিক ভাবে বলা মুসকিল ঠিক কি ধরনের পরিবর্তন হতে যাচ্ছে। আমেরিকা ইতিমধ্যে সব ধরনের অভিবাসন সাময়িক বন্ধ করে দিয়েছে যা হয়তো অন্য কিছু দেশও অনুসরণ করবে। সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় বলাই যায় আসন্ন অনিশ্চিত ভবিষ্যতে বিশ্ব ব্যবস্থায় ব্যাপক পরিবর্তন হতে চলেছে। মানুষ হয়তো অস্ত্র প্রতিযোগিতা বাদ দিয়ে জীবন রক্ষাকারী বা চিকিৎসা ব্যবস্থার উন্নয়নে বেশী গুরুত্ব দিবে।

লেখক
মোঃ রাসেল আহম্মেদ
পর্তুগাল প্রবাসী গণমাধ্যম কর্মী

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এনকে


আরও সংবাদ   বিষয়:  করোনাভাইরাস  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
ইউনাইটেডে আগুনে পুড়ে ৫ করোনা রোগীর মৃত্যু
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up