ঢাকা, বাংলাদেশ || শনিবার, ৬ জুন ২০২০ || ২৩ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ পদ্মাসেতু প্রকল্পে করোনার হানা ■ শুধু ঢাকাতেই আক্রান্ত সাড়ে ৭ লাখ ■ ‘করোনা নেগেটিভ’ সার্টিফিকেট বিক্রি! ■ রাশিয়ার ২ নদীতে লাল পানির স্রোত, বিশ্বজুড়ে আতঙ্ক! ■ স্ত্রীর পর সাবেক মেয়র কামরানও আক্রান্ত ■ করোনায় তরুণদের আক্রান্তের হার সবচেয়ে বেশি ■ করোনায় শীর্ষ ২০ দেশের তালিকায় বাংলাদেশ ■ করোনায় অধিক ঝুঁকিতে টাক মাথা ■ প্রাইজবন্ডের ড্র অনুষ্ঠিত, প্রথম পুরস্কার ০৯৬২৩০৭ ■ মিয়ানমার সীমান্তে বিজিবি’র হাই অ্যালার্ট ■ ৩ হাজার মেডিকেল টেকনোলজিস্ট নিয়োগে প্রধানমন্ত্রীর অনুমোদন ■ দেশের প্রথম রেড জোন কক্সবাজার পৌর এলাকা
বাগেরহাটে জোড়া খুন ৯ দিনেও গ্রেফতার নেই কেউ!
শেখ সাইফুল ইসলাম কবির, বাগেরহাট
Published : Tuesday, 19 May, 2020 at 2:44 PM, Update: 19.05.2020 2:59:10 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

বাগেরহাটে জোড়া খুন ৯ দিনেও গ্রেফতার নেই কেউ!

বাগেরহাটে জোড়া খুন ৯ দিনেও গ্রেফতার নেই কেউ!

করোনা পরিস্থিতির মধ্যে বাগেরহাটের শরনখোলায় সপ্তাহের ব্যাবধানে দুটি খুনের ঘটনা ঘটেছে। সম্পত্তি এবং পাওনা টাকার বিরোধ নিয়ে পৃথক ভাবে এ হত্যাকান্ড গুলো সংঘঠিত হয়েছে বলে নিহতের স্বজনরা জানিয়েছেন। তবে, এ ঘটনায় শরনখোলা থানায় রেকর্ড হওয়া দুইটি হত্যা মামলায় নারী-পুরুষ সহ- ৯ ব্যাক্তিকে কে অভিযুক্ত করা হয়েছে। অন্যদিকে, হত্যাকান্ডের পর তাৎক্ষনিক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (মোড়েলগঞ্জ সার্কেল) মোঃ রিয়াজুল ইসলাম এবং শরনখোলা থানার অফিসার ইনচার্জ  এসকে আব্দুল্লাহ আল সাইদ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন।

কিন্তু গত ৯ দিনেও জড়িতদের কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ। নিহতের স্বজন সহ স্থানীয়দের সুত্রে জানায়, উপজেলার ৩নং রায়েন্দা ইউনিয়নের উত্তর তাফালবাড়ী গ্রামের বাসিন্দা মৃতঃ শাহ-আলম খন্দকারের বাড়ীর সীমানা নির্ধারনের মাত্র তিন হাত জায়গা নিয়ে বিরোধ সৃষ্টি হলে ৮মে, সকালে প্রতিবেশি মনিরুজ্জামান দুলাল খন্দকারের নেতৃত্তে ৬/৭ ব্যাক্তি একজোট হয়ে দিন মজুর মোঃ শাহ আলম খন্দকার (৬০) কে  পিটিয়ে গুরুতর জখম করেন। মুমুর্ষ অবস্থায় তাকে প্রথমে শরনখোলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্য ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি ঘটে।

পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে  খুলনা মেড়িকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়  দুই দিন পর মারা যান শাহ আলম। এ ঘটনায় তার স্ত্রী মোসাঃ সাহিদা বেগম (৫০) বাদী হয়ে প্রতিবেশি মনিরুজ্জামান দুলাল খন্দকার (৪০), শাহজাহান খন্দকার (৫৫), আঃ লতিফ খন্দকার (৫২), নাইম হোসেন লিমন খন্দকার (২০),মাহাবুবা সুলতানা শাবানা (৪২) এবং মোসাঃ নাছিমা বেগম (৪০) কে অভিযুক্ত করে ১০মে, রাতে শরনখোলা থানায় একটি হত্যা মামলা দ্বায়ের করেন। অপরদিকে, পাওনা টাকা নিয়ে দ্বন্দের জের ধরে ১৪মে, দুপুরে বাবা ও ছেলের  পিটুনিতে ঘটনাস্থলে মারা যান উপজেলার ধানসাগর গ্রামের বাসিন্দা মৃতঃ শামসুল হক শিকদারের ছেলে দিন মজুর আঃ সবুর শিকদার (৫০)।

 ওই ঘটনায় তার স্ত্রী মোসাঃ- হেলেনা বেগম (৪০), বাদী হয়ে ১৪মে, রাতে শরনখোলা থানায় নিহত সবুরের আপন ভগ্নিপতি মোঃ আলতাফ শেখ (৫৫), তার স্ত্রী মোসাঃ শুরমা বেগম (৪৫) এবং তাদের ছেলে মোঃ রাকিব হোসেন রনি (ওরফে) প্রিন্স (২৫) কে দ্বায়ী করে একটি হত্যা মামলা রজু করেন। তবে, প্রকাশ্য দিবালোকে দু- দিন মজুরকে পিটিয়ে হত্যা করেও অনেকটা  হাসি মুখে এলকা থেকে  পালিয়ে যায় খুনীরা। নাম প্রকাশ না করার শর্তে, ধান সাগর এলাকার এক সমাজ সেবক বলেন, করোনার এমন দুর্যোগ মুহুতেও মানুষ হত্যার মতো ন্যাক্কার জনক কাজ সত্যিই আচার্যের।

তবে,করোনায় আইন-শৃংখলা বহীনির সদস্যরা ব্যাস্থ থাকায় পুর্বের তুলনায় শরনখোলার অপরাধ প্রবনতা বেড়েছে। তার মতে, জোরদার পুলিশী টহল সহ অপরাধ দমনে গ্রাম পুলিশদেরকে আরো দ্বায়িত্বশীল ভুমিকা পালন করতে হবে এবং যে কোন অপরাধ প্রবনতার বিরুদ্বে এলাকাবাসীর রুখে দাড়াতে হবে। এ বিষয়ে  শরনখোলা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) এস কে আব্দুল্লাহ আল সাইদ জানান, অভিযুক্তদের গ্রেফতারে  জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত অব্যাহত রয়েছে।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এসকে


আরও সংবাদ   বিষয়:  বাগেরহাট   জোড়া খুন   




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
পদ্মাসেতু প্রকল্পে করোনার হানা
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up