ঢাকা, বাংলাদেশ || বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০ || ১৪ কার্তিক ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ ব্যাংকগুলোকে আরো আন্তরিক হতে হবে ■ জানুয়ারিতে মেডিকেল ভর্তি পরীক্ষা! ■ এক নোটিশেই ৯৯ কর্মী ছাঁটাই ■ অবশেষে এএসআই রায়হানুল গ্রেফতার ■ রিপাবলিকান ঘাঁটি টেক্সাসে এগিয়ে বাইডেন ■ জুলাই থেকে অনলাইনে জমির খাজনা ■ হাজী সেলিমের অবৈধ সম্পদের সন্ধানে দুদক ■ মার্কিন নির্বাচনে ৭ কোটি আগাম ভোট ■ সেনাবাহিনীকে সতর্ক থাকতে বললেন প্রধানমন্ত্রী ■ বাংলাদেশ সফরে আসছেন এরদোগান ■ উত্তরবঙ্গের সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ ■ কাফালা পদ্ধতি বাতিল করছে সৌদি আরব
জাতীয় দলে খেলার সুযোগ ছিল মামুন ও নুহূ’র
দেশসংবাদ ডেস্ক
Published : Wednesday, 27 May, 2020 at 9:48 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

জাতীয় দলে খেলার সুযোগ ছিল মামুন ও নুহূ’র

জাতীয় দলে খেলার সুযোগ ছিল মামুন ও নুহূ’র

বাংলাদেশ জাতীয় ক্রীকেট দলে খেলার সুযোগ ছিল সিরাজগঞ্জের প্রতিভাবান দুই  খেলোয়াড় আব্দুল আল-মামুন ও মামুনুর রশিদ নুহূ’র।    

মঙ্গলবার (২৬মে) সিরাজগঞ্জের ঐতিহ্যবাহী রহমতগঞ্জ ইয়াং এসোসিয়েশন ক্লাবের ফেসবুক পেজের ভার্চুয়াল ‘ঈদ আড্ডা’ লাইভ অনুষ্ঠানের অতিথি হিসেবে রহমতগঞ্জ ইয়াং এসোসিয়েশন ক্লাবের সাবেক অধিনায়ক সুমন তালুকদার এক প্রশ্নউত্তরে সম্ভাবনাময়ী এ দুই খেলায়াড়কে নিয়ে এমন মন্তব্য করেন।

শহরের হোসেনপুর এলাকার কৃতি ক্রিকেটার আবদুল্লাহ-আল মামুন ১৯৯৬ থেকে ২০০৯ সাল পর্যন্ত ঢাকায় বিভিন্ন ক্লাবের হয়ে প্রথম বিভাগে খেলেছেন। এখন বিসিবির জেলা ক্রিকেট কোচ। নিজেও একটি ক্রিকেট একাডেমি চালান।

বাংলাদেশ ক্রিকেট যখন অনুকুলে আসতে শুরু করছে ঠিক সে সময় অপি, হাবিবুল বাশার,দুর্জয়, সুজন, পাইলট, মাশরাফি, রুবেনদের সাথে পাল্লাদিয়ে নিজেকে অনেক এগিয়ে নিয়েছিলেন এ বা হাতি প্রেসার। চট্টগ্রাম, বরিশাল, খুলনা বিভাগের কাছে অনেক জনপ্রিয় এবং পরিচিত খেলোয়াড়।

পাকিস্তানি বা হাতি পেস বলার ওয়াসিম আকরামের প্রেমে পড়ে নিজেকে জড়িয়ে নেন ক্রিকেট দুনিয়ায়। জীবনের প্রথম বল ধরা শিখিয়ে দেন তার প্রিয় কোচ শানু। এর পর ২ থেকে ৪ মিনিটেই আয়ত্ব করে নেন বলিং কৌশল। 

মামুন আব্দুল্লার বোলিং যোগ্যতা বলতে অসাধারণ সুইং এবং  বল করতেন শতভাগ সঠিক জায়গায়। শুধু ক্রিকেট বলে নয় টেপটেনিস বলেও তার হাতের এমন জাদু দেখেতেন সবাই। 

মামুন আব্দুল্লাহ ছিলেন, বাংলাদেশর ঘরোয়া   ক্রিকেটের একজন আস্থাভাজন বা হাতি পেস বোলার। তার ধারালো বোলিং মোকাবেলায় খুব কম ব্যাটসম্যানই ছিল। তাকে বাংলার ওয়াসিম আকরাম বলা হতো। 

জাতীয়দলে সুযোগ না পাওয়ার বিষয়ে মামুন আব্দুল্লার সাথে ফোনে কথা হলে তিনি জানান, সঠিক পরামর্শ না পাওয়া আর  শৃংঙ্খলহীন জীবনে আমার জাতীয় ক্রিকেট দলে খেলার সুযোগ 
হয়নি। সে কথা মনে হলে আমার অনেক কষ্ট হয়। 

তিনি আরো বলেন, আমার দেখা নুহূ ছিলেন  নির্ভরযোগ্য পরিশ্রমী একজন ভাল ব্যাটসম্যান। নুহূকে যদি বলা হতো টানা ৪০ ওভার একপাশে দাড়িয়ে খেলতে হবে! নুহূ তাই করতেন। তার ভিতর কোন ক্লান্তি ছিল না। একটাও এলামেলো শর্ট খেলতো না। যে কোন বোলারকে পরিস্থিতি অনুযায়ী মোকাবেলা করে দলের বিজয় নিশ্চিত করতেন।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/আইশি


আরও সংবাদ   বিষয়:  জাতীয়   খেলা   মামুন   নুহূ  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
করোনায় মৃত্যুর হার বাড়ছে ইউরোপে
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : এম. এ হান্নান
যুগ্ম-সম্পাদক : মোহাম্মদ রুবাইয়াত আনোয়ার
যোগাযোগ
টেলিফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
সেলফোন : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up