ঢাকা, বাংলাদেশ || রবিবার, ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ || ৫ আশ্বিন ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ ফের লকডাউনে যাচ্ছে যুক্তরাজ্য ■ দু’কারারক্ষীসহ পাঁচজনের নামে মামলার নির্দেশ ■ প্রতি বস্তা পেঁয়াজ ৫০ টাকা ■ সমুদ্রবন্দরে ৩ নম্বর সতর্ক সংকেত ■ আইনজীবী তালিকাভুক্তির লিখিত পরীক্ষা স্থগিত ■ শীতে করোনা পরিস্থিতি আরো বাড়তে পারে ■ ওসি প্রদীপ ও স্ত্রীর অবৈধ সম্পত্তি জব্দের নির্দেশ ■ পেঁয়াজ আমদানিতে ৫% শুল্ক প্রত্যাহার ■ ২৪ ঘণ্টায় প্রাণ গেল আরও ২৬ জনের, আক্রান্ত ১৫৪৪ ■ সাহেদের অস্ত্র মামলার রায় ২৮ সেপ্টেম্বর ■ ফ্রান্সে ফের করোনার তাণ্ডব, বাড়ছে আক্রান্ত ও মৃত্যু ■ বনানীর আহমেদ টাওয়ারে ভয়াবহ আগুন
মৃত্যুর জন্য ৩ দিন পানিতে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা অন্তঃসত্ত্বা হাতির
দেশসংবাদ ডেস্ক
Published : Wednesday, 3 June, 2020 at 8:20 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

মৃত্যুর জন্য ৩ দিন পানিতে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা অন্তঃসত্ত্বা হাতির

মৃত্যুর জন্য ৩ দিন পানিতে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা অন্তঃসত্ত্বা হাতির

ভারতের কেরালায় মৃত্যুর জন্য তিনদিন পানিতে দাঁড়িয়ে অপেক্ষা করছিল একটি অন্তঃসত্ত্বা হাতি। বনবিভাগের কর্মকর্তারা ধারণা করছেন, আনারসের সঙ্গে বিস্ফোরক ভরে হাতিকে খাইয়ে দেয়ায় মুখের ভেতরই তা বিস্ফোরিত হয়। এতে হাতিটির চোয়াল ও দাত ভেঙ্গে যায়। এমন নিষ্ঠুরতার মধ্য দিয়ে হাতিটির মৃত্যুর ঘটনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যাপক সমালোচনার জন্ম দিয়েছে।

বনবিভাগের কর্মীরা বলছেন, হাতিটিকে তারা উদ্ধারের চেষ্টা করেছেন তবে হাতিটিকে কিছুতেই পানি থেকে সরানো যাচ্ছিল না। হাতিটি শুধু পানিতে মুখ ও শুর ডুবিয়ে রেখেছিল। সম্ভবত পানি খেয়ে কিছুটা স্বস্তির জন্য। ২৫ মে ঘটনাটি বনবিভাগের নজরে আসে। ২৭ মে হাতিটি ভেলিয়ার নদীতে পানির ওপর দাঁড়ানো অবস্থায়ই মারা যায়। এভাবে ফাঁদ পেতে বন্যপ্রাণী ধরার লোকদের ব্যাপারে তাদের কাছে তথ্য ছিল বলে জানায় বনবিভাগ।

বনবিভাগের বরাতে দ্য হিন্দু জানিয়েছে, সাইলেন্ট ভ্যালি ন্যাশনাল পার্কের (এসএনভিপি) ভেতরে আনারসের মধ্যে বিস্ফোরক ভরে হাতিটিকে খেতে দেয়া হয়েছিল। এতে ফল চিবানোর সময়ই মুখের ভেতরে বিস্ফোরণ ঘটে। হাতিটিকে হত্যার ঘটনায় বনবিভাগের পক্ষ থেকে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে।

বনবিভাগের এক কর্মকর্তা বলেন, ফলের ভেতর বিস্ফোরক ভর্তি করে রাখা হয়েছিল বন্য প্রাণী মারার জন্য। তবে এ কাজটি যে হাতিটিকে মারার জন্য করা হয়েছিল তা সঠিকভাবে বলা যাচ্ছে না।

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, ব্যথার যন্ত্রণা নিয়ে হাতিটি গ্রামে ঘুরে বেড়িয়েছিল। তার মুখ ক্ষত-বিক্ষত হওয়ায় কিছুই খেতে পারছিল না। সে মৃত্যুর আগ পর্যন্ত পানিতে দাঁড়িয়ে ছিল।

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ব্যবহাকারীরা এ ঘটনার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য দাবি জানিয়েছে।

বিবিসির খবরে বলা হয়েছে, হাতিটি মৃত্যুর ঘটনায় ময়নাতদন্ত করা হয়েছে। এতে দেখা গেছে হাতিটি অন্তঃসত্ত্বা ছিল।

পালাক্কাড় এলাকার সাইলেন্ট ভ্যালি নাশনাল পার্কের বন্যপ্রাণী বিভাগের ওয়ার্ডেন স্যামুয়েল ওয়াচা জানিয়েছেন, এই ঘটনায় একটি মামলা করা হয়েছে এবং জড়িতদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

দেশসংবাদ/জেআর/এনকে


আরও সংবাদ   বিষয়:  ভারত   কেরালা  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
ফের লকডাউনে যাচ্ছে যুক্তরাজ্য
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : এম. এ হান্নান
যুগ্ম-সম্পাদক : মোহাম্মদ রুবাইয়াত আনোয়ার
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up