ঢাকা, বাংলাদেশ || মঙ্গলবার, ৪ আগস্ট ২০২০ || ২০ শ্রাবণ ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ এবার ওমরাহ নিয়ে ভাবনা সৌদির ■ লকডাউন মানাতে অস্ট্রেলিয়ায় সেনা মোতায়েন! ■ আফগানিস্তানে আইএসের হামলায় নিহত বেড়ে ৩৯ ■ সুপ্রিমকোর্টে স্বাভাবিক বিচারকাজের বিষয়ে সিদ্ধান্ত বৃহস্পতিবার ■ দেশে আক্রান্ত ২ লাখ ৪৪ হাজার, মৃত্যু ৩২৩৪ ■ যুক্তরাষ্ট্রে আছড়ে পড়েছে হারিকেন ইসাইয়াস ■ রাজধানীতে কাগজ কারখানায় আগুন ■ ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত ১৯১৮, মৃত্যু ৫০ ■ সিরিয়ায় আবারও ক্ষেপণাস্ত্র হামলা ■ চট্টগ্রাম সিটির দায়িত্বে খোরশেদ আলম সুজন ■ ফলাফল সন্তোষজনক হলে বাংলাদেশে ট্রায়াল ■ গরমে এক পশলা বৃষ্টিতে স্বস্তি
বাণিজ্য ঘাটতি দুই হাজার কোটি টাকা
বেনাপোল বন্দর দিয়ে তিন মাস ধরে বন্ধ রপ্তানি
আহম্মদ আলী শাহিন, বেনাপোল (যশোর)
Published : Friday, 26 June, 2020 at 1:43 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

বেনাপোল বন্দর

বেনাপোল বন্দর

দেশের সর্ববৃহৎ স্থলবন্দর বেনাপোল দিয়ে ভারতের সঙ্গে আড়াই মাস ধরে আমদানি-রপ্তানি বন্ধ থাকার পর গত ৭ জুন এ পথে ভারতীয় পণ্যের আমদানি বাণিজ্য শুরু হয়েছে। কিন্তু করোনা ভাইরাসের নিরাপত্তা জনিত কারণ দেখিয়ে প্রায় তিন মাস ভারতীয়রা বাংলাদেশের সঙ্গে রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ রেখেছে। রপ্তানি বন্ধ থাকায় প্রায় দুই হাজার কোটি টাকার বাণিজ্য ঘাটতি হয়েছে। স্থানীয়ভাবে দফায় দফায় বৈঠক করা হলেও সচল হয়নি বাণিজ্য। বন্দর কর্তৃপক্ষ বলছে, বিষয়টি নিয়ে মন্ত্রণালয়ে আলোচনা চলছে। অচিরেই রপ্তানি বাণিজ্য চালু হবে। স্বাভাবিক সময়ে বেনাপোল বন্দর দিয়ে প্রতিদিন প্রায় ১৫০ থেকে ২০০ ট্রাক পণ্য ভারতে রপ্তানি হয়।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, বাংলাদেশি রপ্তানি পণ্যের বড় বাজার প্রতিবেশী দেশগুলোর মধ্যে অন্যতম ভারত। যোগাযোগ ব্যবস্থা সহজ হওয়ায় স্থল গথের রপ্তানী বানিজ্যের ৭০ শতাংশ হয়ে থাকে বেনাপোল বন্দর দিয়ে। প্রতিবছর এ বন্দর দিয়ে প্রায় আট হাজার কোটি টাকা মূল্যের ৯ হাজার মেট্রিক টন পণ্য ভারতে রপ্তানি হয়। বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে ভারত সরকারের নিষেধাজ্ঞায় ২২ মার্চ থেকে স্থলপথে আমদানি-রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ হয়ে যায়। এতে দুই পাশে বন্দরে প্রবেশের অপেক্ষায় পণ্য নিয়ে আটকা পড়ে কয়েক হাজার ট্রাক।

ভারতে লকডাউন শিথিলে দফায় দফায় বৈঠকের পর করোনা সংক্রমণ রোধে নিরাপত্তাব্যবস্থার মধ্য দিয়ে গত ৭ জুন ভারতীয় পণ্যের আমদানি বাণিজ্য শুরু হলেও বাংলাদেশি পণ্যের রপ্তানি বাণিজ্য এখনো বন্ধ রয়েছে। রপ্তানি চালুর বিষয়ে ব্যবসায়ী মহল স্থানীয়ভাবে কয়েক দফা চেষ্টা করে ব্যর্থ হয়েছে। নিরাপত্তাজনিত কারণ দেখিয়ে ভারতীয়রা এই মুহৃর্তে রপ্তানি পণ্য নিতে চাইছে না। ভারতের সঙ্গে তিন মাস ধরে রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধ রয়েছে । ফলে বাণিজ্য ঘাটতি হয়েছে দুই হাজার কোটি টাকা। দফায় দফায় বৈঠক করা হলেও সচল হয়নি বাণিজ্য। এতে উৎপাদিত পণ্য নিয়ে বিপাকে পড়েছেন ব্যবসায়ীরা। বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে কর্ম হারিয়ে বাড়ছে বেকারত্ব।

বেনাপোল সিঅ্যান্ডএফ স্টাফ অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক সাজেদুর রহমান বলেন স্থানীয়ভাবে রপ্তানি বাণিজ্য সচলের বিষয়ে কয়েক দফা বৈঠক হয়েছে। তারা বিভিন্ন সময়ে আমাদেরকে আশ্বস্ত করেছে। তবে কবে কখন রপ্তানি পণ্য নিয়ে ট্রাক ভারতীয় বন্দরে প্রবেশ করবে তার কোনো নির্দিষ্ট তারিখ নেই। বেনাপোল আমদানি-রপ্তানিকারক সমিতির সহসভাপতি আমিনুল হক বলেন তিন মাস এ পথে রপ্তানি বাণিজ্য বন্ধে প্রায় দুই হাজার কোটি টাকার বাণিজ্য ঘাটতি হয়েছে। স্থানীয়ভাবে বৈঠকে চেষ্টা হয়েছে। কিন্তু সফলতা আসছে না। যেহেতু আমদানি বাণিজ্য শুরু হয়েছে, তাই উভয় দেশের রাষ্ট্রীয় পর্যায়ে আলোচনা না করলে রপ্তানি বাণিজ্য চালু করা সম্ভব হবে না।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এফএইচ/mmh


আরও সংবাদ   বিষয়:  বেনাপোল বন্দর  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
দেশে আক্রান্ত ২ লাখ ৪৪ হাজার, মৃত্যু ৩২৩৪
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
ফাতেমা হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up