ঢাকা, বাংলাদেশ || শনিবার, ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ || ১১ আশ্বিন ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ সাত সরকারি কলেজের শিক্ষার্থীরা ফলাফল পাচ্ছে না ■ বাংদেশের মান এখন অনেক উঁচুতে ■ কক্সবাজারের ৮ থানায় নতুন ওসি ■ অতিরিক্ত সচিব হলেন ৯৮ কর্মকর্তা (তালিকা) ■ ক্যাম্পাসে তরুণীকে গণধর্ষণ, বিক্ষোভে উত্তাল এমসি কলেজ ■ আ.লীগের তৃণমূলে কঠোর বার্তা ■ বিএনপিতে আসছে ব্যাপক রদবদল ■ এমসি কলেজে গণধর্ষণ, ৯ ছাত্রলীগ নেতাকর্মীর বিরুদ্ধে মামলা ■ পাবনা-৪ উপ-নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে ■ ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে আরও সাড়ে ৫ হাজার মানুষের মৃত্যু ■ এমসি কলেজে গণধর্ষণ, ৬ ছাত্রলীগ কর্মীকে খুঁজছে পুলিশ ■ সিলেট এমসি কলেজে স্বামীকে বেঁধে তরুণীকে গণধর্ষণ
আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট দ্বিগুণ দামে বিক্রি
দেশসংবাদ ডেস্ক
Published : Friday, 14 August, 2020 at 8:32 PM, Update: 15.08.2020 12:08:19 AM
Zoom In Zoom Out Original Text

ট্রেন

ট্রেন

ট্রেনের টিকিট যেন সোনার হরিণ। আন্তঃনগর তিস্তা ও ব্রহ্মপুত্র ট্রেনের টিকিট দ্বিগুণের বেশি দামে বিক্রি করছেন রিকশাচালক, চা বিক্রেতা, হোটেল শ্রমিক ও মনোহরিসহ কম্পিউটার দোকানের কর্মচারীরা। ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ চলাচলকারী আন্তঃনগর মেইলসহ অন্যান্য ট্রেন চলাচল বন্ধ রয়েছে। আন্তঃনগর তিস্তা ও ব্রহ্মপুত্র দুটি ট্রেন চলাচল করছে। ট্রেনের টিকিট ৫ দিন আগেই মোবাইল অ্যাপের মাধ্যমে অনলাইনে কেটে সংগ্রহ করে তাদের মনোনীত দোকানদারদের কাছে টিকিট বিক্রির জন্য পাঠিয়ে দেয়া হয়।

দেওয়ানগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন সূত্র জানায়, দেওয়ানগঞ্জ থেকে ঢাকাগামী আন্তঃনগর তিস্তা প্রথম শ্রেণির কেবিন প্রতি টিকিটের মূল্য ৫১২ টাকা, আসন ১৫টি, এসি স্নিগ্ধা মূল্য ৪২৬ টাকা, আসন ২৬টি, প্রথম শ্রেণি নন-এসি মূল্য ৩০০ টাকা, আসন ২টি, শোভন চেয়ার মূল্য ২২৫ টাকা, আসন ৩০টি; আর ব্রহ্মপুত্র ট্রেনের প্রথম শ্রেণি চেয়ার মূল্য ৩০০ টাকা, আসন ৩টি, শোভন চেয়ার মূল্য ২২৫ টাকা, আসন ৭টি, শোভন মূল্য ১৮৫ টাকা, আসন ৬৬টি।

শুক্রবার দেওয়ানগঞ্জ রেলস্টেশনে ভুক্তভোগী যাত্রীরা জানান, কুলকান্দি গ্রামের শাহাজালাল আন্ত:নগর তিস্তা ট্রেনের ট বগিতে ৬টি টিকিট কিনেছেন প্রতিটি ২২৫ টাকার পরিবর্তে ৫৫০ টাকা করে। টিকিট ক্রয় করেছেন কুলকান্দি এলাকা থেকেই। বেলা ২টা ৪০ মিনিটে স্টেশন এলাকায় এক তরুণ তিস্তা ১ম শ্রেণির এসি টিকিট বিক্রি করলেন ১০০০ টাকায়।

দেওয়ানগঞ্জ পৌর এলাকার মাসুদ মিয়া একই ট্রেনের গ বগিতে এসি কেবিনের টিকিটের মূল্য ৫২৫ টাকা হলেও প্রতিটি টিকিট কিনেছেন ১৩৫০ টাকা করে। এই ট্রেনযাত্রী আক্ষেপ করে বলেন, আগে স্টেশনের টিকিট কালোবাজারিদের কাছে বিক্রি হতো, এখন দোকানে বিক্রি হচ্ছে- লিখে কী হবে। ঞ ও ত বগির যাত্রী রফিকুল তিনটি টিকিট কিনেছেন ১১০০ টাকা করে।

দেওয়ানগঞ্জ রেলওয়ে স্টেশন মাস্টার আ. বাতেন জানান, দুইজন যাত্রীর সাথে কথা বলে তিনি জেনেছেন দ্বিগুণ দামে টিকিট কিনেছেন। অচিরেই কমিউটার ও অগ্নিবীণা ট্রেন চালু হচ্ছে। এ সমস্য থাকবে না। নিরাপত্তা ইন্সপেক্টর সিরাজুল ইসলাম জানান, নিরাপত্তাকর্মীরা তৎপর রয়েছেন। ট্রেনে বিনাটিকিটে কাউকে পাওয়া গেলে জরিমানা করা হবে।

দেশসংবাদ/জেআর/এনকে


আরও সংবাদ   বিষয়:  ঢাকা   দেওয়ানগঞ্জ   ট্রেনের টিকিট  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে আরও সাড়ে ৫ হাজার মানুষের মৃত্যু
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : এম. এ হান্নান
যুগ্ম-সম্পাদক : মোহাম্মদ রুবাইয়াত আনোয়ার
যোগাযোগ
টেলিফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
সেলফোন : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up