ঢাকা, বাংলাদেশ || বুধবার, ২৮ অক্টোবর ২০২০ || ১৩ কার্তিক ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ হাজী সেলিমের অবৈধ সম্পদের সন্ধানে দুদক ■ মার্কিন নির্বাচনে ৭ কোটি আগাম ভোট ■ সেনাবাহিনীকে সতর্ক থাকতে বললেন প্রধানমন্ত্রী ■ বাংলাদেশ সফরে আসছেন এরদোগান ■ উত্তরবঙ্গের সঙ্গে রেল যোগাযোগ বন্ধ ■ কাফালা পদ্ধতি বাতিল করছে সৌদি আরব ■ ঘুমন্ত গৃহবধূকে ধর্ষণ, একজনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ■ ৩ দিনের রিমান্ডে ইরফান সেলিম ■ আবারো বাড়ছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি ■ করোনায় মৃত্যুর হার বাড়ছে ইউরোপে ■ স্পিরিট পানে তিনজনের মৃত্যু ■ দ্রুত হাওয়া পাল্টাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্রের নির্বাচনে!
ওসি প্রদীপের বিরুদ্ধে আরো ২ মামলা
দেশসংবাদ, কক্সবাজার
Published : Thursday, 10 September, 2020 at 5:53 PM, Update: 10.09.2020 10:55:17 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

ওসি প্রদীপ কুমার দাস

ওসি প্রদীপ কুমার দাস

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলার বাহারছড়ার আবদুল আমিন ও হোয়াইক্যংয়ের মুফিজ আলম নামের দুইজনকে ক্রসফায়ারের নামে হত্যার অভিযোগে বহিষ্কৃত ওসি প্রদীপ কুমার দাসসহ ৫৬ জনের বিরুদ্ধে আদালতে আরও দুটি মামলার আবেদন করা হয়েছে।

ফৌজদারি মামলার এজাহার দুটি আমলে নিয়ে আদালত ওই ঘটনা সংক্রান্ত কোনো মামলা হয়েছে কিনা তা আগামী ধার্য দিনের মধ্যে আদালতকে জানাতে টেকনাফ থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন। বৃহস্পতিবার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (টেকনাফ-৩) হেলাল উদ্দীনের আদালতে এই দুই মামলার আবেদন করা হয়েছে।

নিহত বাহারছড়ার আবদুল আমিনের ভাই নুরুল আমিন ও মুফিজ আলমের ভাই মো. সেলিম বাদী হয়ে এই দুই মামলার আবেদন করেন। দুটি মামলার একটি ৩৮ জন ও অন্যটিতে ১৮ জনকে আসামি করা হয়েছে। বাদীপক্ষের আইনজীবী আবু মুছা সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান।

বাহারছড়ার আবদুল আমিনের মামলার বাদী আবেদনে উল্লেখ করেন, সুপারি ব্যবসায়ী আবদুল আমিন থেকে ৫ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করে টেকনাফ থানা পুলিশ। কিন্তু টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানায় তিনি। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে গত বছরের ২১ সেপ্টেম্বর সকালে বাড়ি থেকে ধরে নিয়ে যায় একদল পুলিশ। থানায় নিয়ে গিয়েও ৫ লাখ টাকা দাবি করে ওসিসহ পুলিশরা। শেষে বাধ্য হয়ে ৫০ হাজার টাকা দেয় পরিবার। বাকি টাকার জন্য ৩০ সেপ্টেম্বর তার স্ত্রীকে ডেকে নিয়ে যায়। সেখানে স্ত্রীর কাছ থেকে বাকি টাকা দাবি করে পুলিশ। এতে অস্বীকৃতি জানানো হলেই একদল পুলিশ আবদুল আমিনকে গুলি করে হত্যা করে।

মুফিজ আলমের মামলার বাদী এজাহারে উল্লেখ করেন, টেকনাফ থানা পুলিশ মুফিজ আলমের কাছে ১৫ লাখ টাকা দাবি করে। কিন্তু তা দিতে অস্বীকৃতি জানালে তাকে ধরে নিয়ে যায় পুলিশ। এক পর্যায়ে টাকা না দিলে ক্রসফায়ারে হত্যার হুমকি দেয়। তাই বাধ্য ২০১৯ সালের ১২ জুলাই পুলিশকে ৬ লাখ টাকা দেন। টাকা নেয়ার পরদিনই মুফিজ আলমকে ক্রসফায়ারের নামে হত্যা করা হয়।

আইনজীবী আবু মুছা মোহাম্মদ বলেন, ফৌজদারি মামলার এজাহার দুটি আমলে নিয়েছেন আদালত এবং ওই ঘটনা সংক্রান্ত অন্য মামলা আছে কিনা তা আগামী ধার্য দিনের মধ্যে আদালতকে জানাতে টেকনাফ থানার ওসিকে নির্দেশ দিয়েছেন।

দেশসংবাদ/জেআর/এসআই


আরও সংবাদ   বিষয়:  ওসি প্রদীপ কুমার দাস   ক্রসফায়ার  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
করোনায় মৃত্যুর হার বাড়ছে ইউরোপে
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : এম. এ হান্নান
যুগ্ম-সম্পাদক : মোহাম্মদ রুবাইয়াত আনোয়ার
যোগাযোগ
টেলিফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
সেলফোন : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up