ঢাকা, বাংলাদেশ || বৃহস্পতিবার, ২৯ অক্টোবর ২০২০ || ১৪ কার্তিক ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ রায়হান হত্যায় এএসআই আশেক গ্রেফতার ■ সড়কে শৃঙ্খলা ফেরানো খুবই জরুরি ■ স্বাধীনতা পুরস্কার পেলেন ৮ ব্যক্তি ১ প্রতিষ্ঠান ■ জার্মানিতে করোনার ভয়াবহ রূপ, দেশব্যাপী লকডাউন ■ মুক্ত হলেন সাকিব আল হাসান ■ ওমরাহ পালনে নানান শর্ত, বাড়ছে খরচ ■ ১৪ নভেম্বর পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছুটি বৃদ্ধি ■ ২৬.৫১ শতাংশ বেড়েছে খেলাপি ঋণ ■ ইংল্যান্ডে করোনায় দৈনিক আক্রান্ত ১ লাখ ■ কারা হচ্ছেন অতিরিক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল হচ্ছেন ■ পাঁচ ঘণ্টার অভিযানে রাজধানীর দু’হাসপাতাল সিলগালা ■ কঠোর অবস্থানে সরকার, কোনঠাসা হাজী সেলিম পরিবার
বৃষ্টির পানিতেই বন্দী নন্দীগ্রাম পৌরবাসী!
মো: ফিরোজ কামাল ফারুক, নন্দীগ্রাম (বগুড়া)
Published : Friday, 25 September, 2020 at 2:45 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

বৃষ্টির পানিতেই বন্দী নন্দীগ্রাম পৌরবাসী!

বৃষ্টির পানিতেই বন্দী নন্দীগ্রাম পৌরবাসী!

বন্যা নয়, বৃষ্টির পানি আটকে আছে বগুড়ার নন্দীগ্রাম পৌরসভার দুই শতাধিক পরিবার। এতে ভোগান্তির শিকার হচ্ছে পৌরবাসী। অপরিকল্পিত ড্রেনেজ, পুকুর ভরাট ও পানি নিষ্কাশনে বাধার কারণে এমন পরিস্থিতি বলে মনে করছেন সচেতনরা।

ভুক্তভোগীরা জানায়, নন্দীগ্রাম পৌরসভার জলাবদ্ধতাই পৌরবাসীর প্রধান সমস্যা। বছরের পর বছর তাদের বর্ষাকালে এই সমস্যায় ভুগতে হচ্ছে। শহরে সামান্য বৃষ্টিতেই সৃষ্টি হচ্ছে জলাবদ্ধতা। পৌরসভার অধিকাংশ ওয়ার্ডের বিভিন্ন মহল্লায় কমবেশি বৃষ্টির পানি আটকে আছে। এরমধ্যে ফোকপাল দক্ষিণপাড়া, কালিকাপুর সড়কপাড়া, বৈলগ্রাম ও ওমরপুর মহল্লায় বেশি পানি জমে আছে। তার ভেতর দিয়েই লোকজন, যানবাহন চলছে। টানা কয়েকদিনের ভারী বৃষ্টিতে দীর্ঘদিন ধরে পানিবন্দী পৌরসভার দুই শতাধিক পরিবার। কোনো কোনো বাড়ির উঠানে পানি। আবার কারো কারো ঘরের মেঝে পর্যন্ত পানি উঠেছে। সড়কের পাশে যেসব ড্রেন রয়েছে তা দিয়ে পানি নিষ্কাশন হচ্ছে না। কোথাও রাস্তার উপর জমে পানি।

এছাড়া কলেজপাড়া, নামুইটসহ বিভিন্ন মহল্লায় বৃষ্টির পানি আটকে জলাবদ্ধতা সৃষ্টি হয়েছে। এতে করে পৌরসভায় দুই শতাধিক পরিবার পানিবন্দী হয়ে পড়েছে। বাসা-বাড়ির সামনে হাঁটু পানি। জরুরি কাজ ছাড়া ঘরের বাইরে বের হচ্ছেন না এসব এলাকার বাসিন্দারা। পানিবন্দী হয়ে মানবেতর জীবনযাপন করছেন তারা। আর দীর্ঘদিন পানিবন্দি থাকায় ভেঙে পড়েছে কাঁচা ঘরবাড়ি।

ফোকপাল গ্রামের বাসিন্দা মাজেদা বেওয়া, আবু বক্কর, শাজাহান আলীসহ অনেকেই জানান, পানি নিষ্কাশনের পথ না থাকায় তাদের এলাকার পানিবন্দি হয়ে পড়েছে অনেক পরিবার। বৃষ্টি হলে পানি যেখানে পড়ে সেখানেই জমে যায়। এতে করে পানি পচে দুর্গন্ধ ছড়াচ্ছে।

পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর আলী হাসান বলেন, এই পানি বন্যার নয়, বৃষ্টির। নামতে না পেরে আটকে আছে। বৃষ্টির পানি আটকে গিয়ে এলাকায় জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়েছে।

জানতে চাইলে পৌরসভার মেয়র কামরুল হাসান সিদ্দিকী জুয়েল বলেন, অনেকেই পুকুর খনন করে পানি নিস্কাশনের ড্রেনের মুখ বন্ধ করায় এ সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। আবার কোথাও ব্যক্তিগত দ্বন্দ্বে পানি আটকিয়ে রাখা হয়েছে। তারপরেও পৌরসভার অনেক ওয়ার্ডে সাব-মারশিবল মেশিন দিয়ে পানি নিস্কাশন করা হচ্ছে। তবে জলাবদ্ধতা নিরসনে পরিকল্পিতভাবে ড্রেন নির্মাণ করা হবে।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এফএইচ/mmh


আরও সংবাদ   বিষয়:  নন্দীগ্রাম  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
জার্মানিতে করোনার ভয়াবহ রূপ, দেশব্যাপী লকডাউন
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : এম. এ হান্নান
যুগ্ম-সম্পাদক : মোহাম্মদ রুবাইয়াত আনোয়ার
যোগাযোগ
টেলিফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
সেলফোন : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up