শুক্রবার, ৫ মার্চ ২০২১ || ২০ ফাল্গুন ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ হেলিকপ্টার বিধ্বস্ত হয়ে ১১ সেনা নিহত ■ আরও ৪ কোটি ডোজ কিনবে বাংলাদেশ ■ বাংলাদেশ আইএসএ পরিষদের সদস্য নির্বাচিত ■ ফের রিমান্ডে পিকে হালদারের বান্ধবী অবন্তিকা ■ পিকে হালদারের ২৬শ’ কোটি টাকার সম্পদ জব্দ ■ স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে ১০ দিনের নানা আয়োজন ■ ভ্যাকসিন নিলেন আরো ১ লাখ ২১ হাজার, ২৩ জনের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া ■ ১১ এপ্রিল যেসব ইউনিয়নে ভোট ■ করোনা ভ্যাকসিন নিলেন প্রধানমন্ত্রী ■ সমাজ থেকে সব ধরনের অনিয়ম-অবিচার দূর করতে হবে ■ দেশে ৪ ঘণ্টায় আরও ৭ মৃত্যু, আক্রান্ত ৬১৯ ■ এইচ টি ইমাম আর নেই
মিরপুরের আন্ডারওয়ার্ল্ড নিয়ন্ত্রণ দাতা মামুন গ্রেফতার
দেশসংবাদ ডেস্ক
Published : Monday, 8 February, 2021 at 10:35 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

মিরপুরের আন্ডারওয়ার্ল্ড নিয়ন্ত্রণ দাতা মামুন গ্রেফতার

মিরপুরের আন্ডারওয়ার্ল্ড নিয়ন্ত্রণ দাতা মামুন গ্রেফতার

রাজধানীর পল্লবী থেকে মিরপুর এলাকার আন্ডারওয়ার্ল্ড নিয়ন্ত্রণ দাতা মামুনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকার কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগ।

সোমবার (৮ ফেব্রুয়ারি) ভোরে পল্লবীর বাইতুন নূর জামে মসজিদ এলাকা থেকে মামুনকে গ্রেফতার করেছে ঢাকার কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগ। ৫৪ ধারায় গ্রেফতার দেখিয়ে আদালত থেকে চার দিনের রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

কাউন্টার টেরোরিজম বিভাগের উপ-কমিশনার মোহাম্মদ সাইফুল ইসলাম বলেন, মামুনের বিরুদ্ধে তারা এখন পর্যন্ত ২৭টি মামলার সন্ধান পেয়েছেন। এর মধ্যে ১৫টি মামলায় গ্রেফতারি পরোয়ানা রয়েছে। দুটি মামলায় যাবজ্জীবন সাজা হওয়ার পরোয়ানা রয়েছে। ২৭টি মামলার মধ্যে চাঁদাবাজি ছাড়াও ছয়টি খুনের মামলা রয়েছে।

ভারতের আগরতলার কারাগারে বসে রাজধানীর বৃহত্তর মিরপুর এলাকার আন্ডারওয়ার্ল্ড নিয়ন্ত্রণ করতো মামুন। অর্থের বিনিময়ে কারাগারে বিশেষ সুবিধা পেতো মামুন। চালাতো মোবাইল ফোন। মোবাইলে যোগাযোগ করেই মিরপুর এলাকায় চাঁদাবাজি করতো সে। তার হয়ে কাজ করতো আরেক পলাতক শীর্ষ সন্ত্রাসী কাফরুলের ইব্রাহীম। মামুনের ভাই জামিলও ভারতে পলাতক থেকে মিরপুর এলাকায় আধিপত্য ধরে রেখেছে।

যেভাবে উত্থান মামুনের

ছাত্রদল করা মামুন ২০০১ সালের চারদলীয় জোট সরকারের আমলে মূলত বেপরোয়া হয়ে ওঠে। পল্লবীর ধ ব্লকের ৫০ নম্বর প্লটে তাদের বাসা। তার বাবার নাম মৃত নাসির উদ্দিন। ২০০১ সালেই প্রথম পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয় মামুন। কয়েকদিন পর জামিনে বের হয়ে আসে আগের চেয়ে বেশি বেপরোয়া হয়ে ওঠে। মিরপুর এলাকায় চাঁদাবাজি ও আধিপত্য বিস্তারের জন্য মরিয়া হয়ে ওঠে সে। চারদলীয় সরকারের আমলেই অপারেশন ক্লিন হার্ট শুরু হওয়ার আগে বিএনপির প্রয়াত নেতা নাসির উদ্দিন পিন্টুর পরামর্শে ভারতে চলে যান মামুন। এরপর থেকেই ফেরারি জীবন শুরু হয় তার।

জিজ্ঞাসাবাদে মামুন জানিয়েছ, ২০০৮ সালে সে ভারতীয় পুলিশের হাতে গ্রেফতার হয় সে। আগরতলার জেলে দশ বছর কারাবন্দি ছিল সে। কিন্তু কারাবন্দী থাকা অবস্থাতেই মিরপুরের আন্ডারওয়ার্ল্ড নিয়ন্ত্রণ করতো সে। মামুন জানিয়েছে, মিরপুরে তার কয়েক ডজন ক্যাডার রয়েছে। চাঁদার টাকা তুলে তারাই মামুনের কাছে পাঠাতো।

পুলিশের একজন কর্মকর্তা জানান, ২০১৮ সালে মামুন কারাগার থেকে বের হয়। এরপর সে ভারতীয় পরিচয় নিয়ে একটি পাসপোর্টও তৈরি করে। ওই পাসপোর্ট দিয়ে সে নিয়মিত ব্যাংকক, সিঙ্গাপুর, মালয়েশিয়া ও নেপাল ভ্রমণ করেছে।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/আইশি


আরও সংবাদ   বিষয়:  মিরপুর  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা
আরও ৪ কোটি ডোজ কিনবে বাংলাদেশ
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : এম. এ হান্নান
যুগ্ম-সম্পাদক
মোহাম্মদ রুবাইয়াত আনোয়ার
মেবিন হাসান
যোগাযোগ
টেলিফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
সেলফোন : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up