শুক্রবার, ৭ মে ২০২১ || ২৩ বৈশাখ ১৪২৮
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ মাস্ক ব্যবহারে ৮ নির্দেশনা ■ পুলিশকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ ■  ব্রাজিলে গোলাগুলিতে ২৫ জন নিহত ■ ঈদের আনন্দ ট্র্যাজেডিতে রুপ নেয়ার আশঙ্কা ■ ২৪ ঘণ্টায় ৪১ জনের মৃত্যু, আক্রান্ত ১৮২২ ■ রাবিতে বিশ্ববিদ্যালয় ও মহানগর ছাত্রলীগের সংঘর্ষ, আহত ৩ ■ করোনামুক্ত খালেদা জিয়া ■ খালেদা জিয়াকে বিদেশে নিতে মৌখিক অনুমতি ■ বৈঠকে বসেছে খালেদা জিয়ার মেডিকেল বোর্ড ■ মানবিক কারণে খালেদা জিয়াকে বিদেশ যেতে দিন ■ ২২ দিন পর গণপরিবহন চলাচল শুরু ■ নদীগুলোকে আমাদের বাঁচাতে হবে
চাঁদাবাজদের কারণে গরুর মাংসের দাম বেশি
দেশসংবাদ, ঢাকা
Published : Sunday, 14 March, 2021 at 7:08 PM, Update: 14.03.2021 11:08:49 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

চাঁদাবাজদের কারণে গরুর মাংসের দাম বেশি

চাঁদাবাজদের কারণে গরুর মাংসের দাম বেশি

দেশের মাংস ব্যবসায়ীরা বাজারে গরু মাংসের দাম কমাতে না পারার কারণ হিসেবে ‘চাঁদাবাজি’ আর হাটের খাজনাকে দায় দিতে চান। এই দুটি বিষয় মীমাংসা করা না গেলে ক্রেতাদের তিনশ টাকা কেজিতে মাংস খাওয়ানো যাবে না বলেও ভাষ্য তাদের।

এক আলোচনা সভায় এমনটাই দাবি করেছেন বাংলাদেশ মাংস ব্যবসায়ী সমিতির মহাসচিব রবিউল আলম। ঢাকা মেট্রোপলিটন মাংস ব্যবসায়ী সমিতি রবিবার ঢাকার সেগুনবাগিচায় রিপোর্টার্স ইউনিটে আলোচনা সভাটির আয়োজন করে।

রবিউল আলম বলেন, ‘গরুর হাটের খাজনা সহজ করতে হবে এবং মাস্তান মুক্ত করতে হবে। কারণ, কৃষক শতকরা ৫ টাকা খাজনা দিয়ে পশুপালন উন্নয়ন করতে পারবে না। মাংস ব্যবসায়ীরাও ৩০০ টাকা কেজিতে মাংস খাওয়াতে পারবে না। সেই সঙ্গে মহিষের মাংস বাংলাদেশে পাচার বন্ধ করতে হবে।’

পাশ্ববর্তী দেশ ভারত মাংস ও পশু পাচার করে ৫০ থেকে ৬০ হাজার কোটি টাকা বাংলাদেশ থেকে নিয়ে যাচ্ছে দাবি করে রবিউল আলম বলেন, ‘খাদ্য নিরাপত্তা ও ভোক্তা অধিকারের জন্য রমজানে কি মাংসের মূল্য নির্ধারিত হবে? নাকি ভারতীয় মাফিয়া ও দেশীয় মাস্তান এবং চাঁদাবাজদের জন্য মাংসের বাজার উন্মুক্ত থাকবে? আমাদের চর ও বনাঞ্চলে ২০ হাজার কোটি টাকার কৃষিঋণের মাধ্যমে পশুপালনে স্বনির্ভরতা আনা সম্ভব। এর ফলে এক লাখ কোটি টাকার বৈদেশিক মুদ্রা আয় করা সম্ভব।’

মাংস ব্যবসায়ীরাও দেশের নাগরিক মন্তব্য করে মাংস ব্যবসায়ীদের এ নেতা বলেন, ‘আপনারা কি জানেন, নিরাপদ খাদ্যের নামে আমরা কি খাচ্ছি ও খাওয়াচ্ছি। আমাদের দেওয়া মাংস জীবাণুমুক্ত কি-না তাও অনেকে জানেন না। ‘খাদ্যকে নিরাপদ ও জীবাণুমুক্ত করার দায়িত্ব স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়, সিটি করপোরেশন ও পৌরসভার। তারা কি দায়িত্ব পালন করছে? নিরাপদ খাদ্যের জন্য জীবাণুমুক্ত জবাইখানা এবং ভেটেনারি সার্ভিসের প্রয়োজন। কিন্তু সিটি কর্পোরেশন বা স্থানীয় সরকারের জীবাণুমুক্ত মাংস নির্ধারণের জন্য পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেই।’

প্রধান অতিথির বক্তব্যে শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয় সাবেক উপাচার্য প্রফেসর ড. কামাল উদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘বাজারে মাংস কিনতে গেলে তাতে আমরা অনেকেই হাত দিই। কিন্তু আমাদের হাতে অনেক ধরণের জীবাণু থাকে। আর এভাবে হাতের জীবাণুগুলো মাংসে চলে যায়। জীবাণুযুক্ত এসব মাংস আবার আমরা বাজার থেকে কিনে আনছি। পরবর্তীতে সেই মাংস খেয়ে অসুস্থ হচ্ছি। দেশে যদি নিরাপদ জবাইখানা বা জীবাণুমুক্ত মাংস কাটার ব্যবস্থা থাকত, তাহলে মাংস খেয়ে মানুষ অসুস্থ কম হতো।’

ডেইরি ফারমার্স অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মো. ইমরান হোসেন বলেন, আমরা তিনবছর ধরে মাংসের স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জন করতে সফল হয়েছি। খামারিরা এখন স্বপ্ন দেখতেছে, অচিরেই আমরা আমাদের দেশের মাংস রপ্তানি করতে সফল হবো। অনেক সময় প্রশ্ন ওঠে ভারত থেকে আমদানি করা হিমায়িত মহিষের মাংস হারাম না হালাল? আমি সন্দেহ পোষণ করছি- হালাল পণ্য রপ্তানিতে সার্টিফিকেট লাগে। কিন্তু সেটা তাদের কাছে নেই। আমাদের দেশে উৎপাদিত গরুর মাংসের দাম বেশি হওয়ার আরেকটি কারণ চামড়া বিক্রি করে সঠিক মূল্য না পাওয়া।

বাংলাদেশ এটমিক এনার্জি কমিশন মূল্য বৈজ্ঞানিক কর্মকর্তা ডক্টর আলমগীর জামান চৌধুরী, জাতিসংঘ প্রকল্প বিশেষজ্ঞ ফুড এন্ড এগ্রিকালচার অর্গানাইজেশনের ড. কুলসুম বেগম চৌধুরী, নিরাপদ খাদ্য ও ভোক্তা অধিকার আন্দোলন বাংলাদেশের কামরুজ্জামান বাবলু, আকলিমা চৌধুরী আখিসহ প্রমুখ আলোচনায় অংশ নেন।

দেশসংবাদ/ডিপি/এসআই


আরও সংবাদ   বিষয়:  গরু মাংস   মাংস ব্যবসায়ী   ঢাকা মেট্রোপলিটন  


আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা
ঈদের আনন্দ ট্র্যাজেডিতে রুপ নেয়ার আশঙ্কা
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : এম. এ হান্নান
যুগ্ম-সম্পাদক
মোহাম্মদ রুবাইয়াত আনোয়ার
মেবিন হাসান
যোগাযোগ
টেলিফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
সেলফোন : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up