শনিবার, ৮ মে ২০২১ || ২৫ বৈশাখ ১৪২৮
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ বোমা হামলায় আহত নাশিদের অবস্থা সংকটাপন্ন ■ খালেদা জিয়ার বিদেশে চিকিৎসা নিয়ে সিদ্ধান্ত রোববার ■ ২৪ ঘণ্টায় ৪৫ জনের মৃত্যু ■ দেশে করোনার ভারতীয় ধরন শনাক্ত ■ অবৈধ নিয়োগ তদন্তে রাবিতে শিক্ষামন্ত্রণালয়ের তদন্ত কমিটি ■ স্বাস্থ্যবিধি মেনে দূরপাল্লার পরিবহন চালাতে চান মালিকরা ■ করোনায় মৃত্যুতে ভারতের রেকর্ড ■ বিশ্বে করোনা রোগী ২ কোটি ছুঁই ছুঁই ■ চীনের সিনোফার্মের টিকার অনুমোদন দিল ডব্লিউএইচও ■ দিনে চলবে না ফেরি, রাতে পণ্য পরিবহন ■ নামাজ পড়লেন দক্ষিণ আফ্রিকার প্রেসিডেন্ট! ■ ভ্যাকসিন নিয়ে অবাধে চলাফেরা করা যাবে না
বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচক
১৮০ দেশের তালিকায় ১৫২ নম্বরে বাংলাদেশ
দেশসংবাদ ডেস্ক
Published : Tuesday, 20 April, 2021 at 9:12 PM, Update: 20.04.2021 9:17:25 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচক

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচক

বিশ্ব মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে গত বছরের তুলনায় এক ধাপ অবনতি ঘটেছে বাংলাদেশের। বিশ্বজুড়ে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়ে কাজ করা ফ্রান্সের প্যারিসভিত্তিক সংগঠন রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারসের (আরএসএফ) ২০২১ সালের মুক্ত গণমাধ্যম সূচকে এই অবনতি ঘটেছে। গতবছর অবস্থান ছিল ১৫১তম, আর এবার অবস্থান ১৫২তম।

মঙ্গলবার রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস (আরএসএফ) ১৮০টি দেশের সূচক প্রকাশ করে। ২০২১ সালের এই সূচকে সবার শীর্ষে রয়েছে নরওয়ে।

সূচকে ১৮০টি দেশের মধ্যে বাংলাদেশের অবস্থান ১৫২তম।২০২০ সালের সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৫১তম। আর ২০১৯ সালের সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান ছিল ১৫০তম। অর্থাৎ, গতবারের সূচকেও বাংলাদেশের এক ধাপ অবনতি হয়েছিল।

এই সূচকের শীর্ষ ১০ দেশ হলো- নরওয়ে, ফিনল্যান্ড, সুইডেন, ডেনমার্ক, কোস্টারিকা, নেদারল্যান্ডস, জ্যামাইকা, নিউজিল্যান্ড, পর্তুগাল এবং সুইজারল্যান্ড।

এই সূচকে প্রতিবেশী দেশগুলোর চেয়ে অনেক পিছিয়ে পড়েছে বাংলাদেশ।সূচকে প্রতিবেশী দেশ ভুটানের অবস্থান ৬৫তম, আফগানিস্তান ১২২তম, নেপাল ১০৬তম এবং শ্রীলঙ্কার অবস্থান ১২৭তম। এছাড়া মিয়ানমার ১৪০তম, ভারত ১৪২তম এবং পাকিস্তান ১৪৫তম।

বিশ্বের বিভিন্ন দেশে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নিয়েই এই সূচক। অর্থাৎ গণমাধ্যম কতটা স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে তার ওপর ভিত্তি করে প্রতিবছর এই সূচক প্রকাশ করে থাকে আরএসএফ। ২০০২ সাল থেকেই এই সূচক প্রকাশ করা হচ্ছে।

সূচকে বাংলাদেশ প্রসঙ্গে আরএসএফের ব্যাখ্যায় বলা হয়েছে, ২০২০ সালে করোনাভাইরাস সংকট এবং লকডাউন চলাকালে সাংবাদিকদের ওপর পুলিশ ও বেসামরিক সহিংসতা উদ্বেগজনকভাবে বেড়েছে। মহামারি ও সমাজে তার প্রভাব নিয়ে প্রতিবেদনের জন্য অনেক সাংবাদিক, ব্লগার, কার্টুনিস্ট গ্রেফতার ও বিচারের মুখোমুখি হয়েছেন।

আর বিশেষ উদ্দেশ্য অর্জনে সাংবাদিকদের মুখ বন্ধ করতে সরকারের কাছে এখন একটি বিচারিক অস্ত্র আছে। তা হলো ২০১৮ সালের ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন। এই আইনে ‘নেতিবাচক প্রচারণা’র দায়ে সর্বোচ্চ সাজা ১৪ বছরের কারাদণ্ড। ফলে আত্মনিয়ন্ত্রণ (সেলফ-সেন্সর) অভূত পর্যায়ে পৌঁছেছে। সম্পাদকেরা সংগত কারণেই জেল বা গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠান বন্ধের ঝুঁকি এড়াতে চান।

সর্বশেষ ২০১৯ সালে পুনর্নির্বাচিত হওয়ার পর সরকার গণমাধ্যমের বিরুদ্ধে লক্ষণীয় কঠোর অবস্থান নিয়েছে। দলীয় নেতা-কর্মীদের হাতে সহিংসতার শিকার হয়েছেন সাংবাদিকেরা। তাদের নির্বিচারে গ্রেফতার করা হয়েছে। ওয়েবসাইট ব্লক করে দেওয়া হয়েছে।

যেসব সাংবাদিক দুর্নীতি বা স্থানীয় অপরাধী চক্র নিয়ে অনুসন্ধান করেন, তারা ভয়াবহ নির্যাতনের শিকার হন। এই নির্যাতনে মৃত্যুর ঘটনাও ঘটেছে।

এদিকে, চলতি বছরের সূচকে সবচেয়ে খারাপ অবস্থানে আছে সৌদি আরব, কিউবা, লাওস, সিরিয়া, ইরান, ভিয়েতনাম, জিবুতি, চীন, তুর্কমেনিস্তান, উত্তর কোরিয়া এবং এরিত্রিয়া। তালিকার ১৭০ থেকে যথাক্রমে ১৮০তম অবস্থানে রয়েছে এই দেশগুলো। অর্থাৎ এসব দেশে গণমাধ্যমের স্বাধীনতা নেই বললেই চলে।

দেশসংবাদ/জেআর/এফবি/এমএইচ


আরও সংবাদ   বিষয়:  রিপোর্টার্স উইদাউট বর্ডারস  


আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা
২৪ ঘণ্টায় ৪৫ জনের মৃত্যু
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
সহযোগি সম্পাদক
এনামুল হক ভূঁইয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
এম. এ হান্নান
সহকারি সম্পাদক
মোহাম্মদ রুবাইয়াত আনোয়ার
মেবিন হাসান
যোগাযোগ
টেলিফোন
০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবাইল ফোন
০১৭১৩ ৬০১৭২৯
ইমেইল
[email protected]
ফেসবুক
facebook.com/deshsangbad10

Developed & Maintenance by i2soft
logo
up