রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১ || ১০ শ্রাবণ ১৪২৮
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ রাজশাহী মেডিকেলে আরও ১৪ জনের মৃত্যু ■ কুষ্টিয়ায় আরও ১৯ জনের মৃত্যু ■ সরকারি কর্মচারীদের সম্পদের হিসাব দেয়ার নির্দেশ ■ বহিস্কার হলেন হেলেনা জাহাঙ্গীর ■ বাকপ্রতিবন্ধীকে কুপিয়ে হত্যা ■ দেশে এলো ২৫০ ভেন্টিলেটর ■ আ.লীগের মাসব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা ■ ঈদে সারাদেশে ৯১ লাখ পশু কোরবানি ■ ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা পড়ছে ইলিশ ■ দেশের পথে ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’ ■ আরও ২১ কোটি টিকার ব্যবস্থা হয়েছে ■ হাসপাতালে ডেঙ্গু রোগীর রেকর্ড
নজর নেই প্রশাসনের
বরগুনা হাসপাতালের করোনা ইউনিটে বেহাল দশা
মো: সাগর আকন, বরগুনা
Published : Saturday, 10 July, 2021 at 3:59 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

বরগুনা হাসপাতালের করোনা ইউনিটে বেহাল দশা

বরগুনা হাসপাতালের করোনা ইউনিটে বেহাল দশা

মহামারী করোনার উর্ধ্বগমন ঠেকাতে গোটা বিশ্ব যেখানে হিমশিম খাচ্ছে, সেখানে বরগুনায় দেখা যাচ্ছে ভিন্ন চিত্র। করোনা রোগীদের স্বজনরা অবাধে করোনা ইউনিটে গিয়ে দেখা করে আসছে কোভিড পজিটিভ রোগীদের সাথে। শহরজুড়ে প্রশাসনের তৎপরতা চোখে পড়লেও বরগুনা সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটের দিকে নজর নেই কারোই।

জানা যায়, বরগুনা সদর হাসপাতালের করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন করোনা রোগীদের সাথে যখন-তখন দেখা করছে স্বজনরা। কখনও আবার করোনা পজিটিভ রোগী নিজেই করোনা ইউনিট থেকে বের হয়ে পাশের দোকানে চা-সিগারেট খেতে যাচ্ছে। এতে ওইসব রোগী এবং স্বজনদের মাধ্যমে সংক্রমিত হচ্ছে আশপাশের লোকজন।

শুক্রবার (৯ জুলাই) সন্ধ্যায় করোনা ইউনিটে চিকিৎসাধীন জসিম উদ্দিন হাওলাদার (Jashim Uddin Hawlader) নামে একজন করোনা পজিটিভ রোগী নিজের ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডিতে একটি পোস্ট করেন।

পোস্টে তিনি লিখেন- ‘করোনা কালীন সময়। আমার নিকটতম আত্মীয় স্বজন কারো দেখা পেলাম না, কিন্তু পাখা মার্কার প্রার্থী কামরুল ইসলাম, খাইরুল ইসলাম, ডাঃ কামরুজজামান ও এনায়েত দোকান্দার, এদের প্রতি চির কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। তারা আমার সাথে হাসপাতালে দেখা করে সাহস দিয়েছেন। এটা আমার জন্য চির স্বরনীয় হয়ে থাকবে। আজ আমার কাছে রক্তের সম্পর্কের অস্তিত্ব বিলিন হয়ে গেছে।’ এই পোস্টের পরপরই সমালোচনার সৃষ্টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে।

বরগুনা হাসপাতালের করোনা ইউনিটে বেহাল দশা

বরগুনা হাসপাতালের করোনা ইউনিটে বেহাল দশা


বরগুনা প্রেসক্লাবের সদস্য সাইফুল ইসলাম মিরাজ করোনা আক্রান্ত হয়ে ১০ দিন করোনা ইউনিটে চিকিৎস্যা নিচ্ছেন। তিনি মুঠোফোনে  বলেন, ‘করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের সংরক্ষিত স্থান 'আইসোলেশন ওয়ার্ড' এ চিকিৎসা দেয়া হয়। আইসোলেশন ওয়ার্ডে এ ভাইরাসের ছড়াছড়ি। তাই এখানে কেউ আসলে তার করোনায় সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকি সর্বোচ্চ।করোনায় আক্রান্ত হয়ে গত কয়েকদিন ধরে আইসোলেশনে চিকিৎসাধীন থাকার কারনে দেখেছি- এখানে অনেক মানুষ আসেন আক্রান্ত স্বজনদের দেখতে। ‌যা সম্পূর্ণ অনুচিত এবং এটি একটি অপরাধও। আক্রান্তদের সঙ্গে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ একজন স্বজন থাকতে দেন। তারপরও পরিবারের সদস্যদের সুরক্ষার জন্য হাসপাতালে আমি একাই থাকি। আইসোলেশন ওয়ার্ডে অসুস্থ স্বজনকে দেখতে এসে যারা আমার সামনে পড়েছেন তাদেরকেই আমি নিরুৎসাহিত করেছি এখানে না আসার জন্য।

বরগুনা প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি ও প্রবীণ সাংবাদিক হাসানুর রহমান ঝন্টু বলেন, ‘মানুষ অসচেতন। প্রশাসনের সাথে চোর-পুলিশ খেলা করে। শুধু প্রশাসন লকডাউন দিয়ে করোনা সংক্রমন বন্ধ করা যাবে না। অবশ্যই এসব কাজে জনপ্রতিনিধি ও ক্ষমতাসীনদলসহ অন্যান্য নেতাদের এগিয়ে আসতে হবে। সরকার একা সামাল দিতে পারবে না। সেই  পরিস্থিতিতে আমরা নেই।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এফবি/পিআর


আরও সংবাদ   বিষয়:  বরগুনা সদর হাসপাতাল  


আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা
রাজশাহী মেডিকেলে আরও ১৪ জনের মৃত্যু
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
সহযোগি সম্পাদক
এনামুল হক ভূঁইয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
এম. এ হান্নান
সহকারি সম্পাদক
মোহাম্মদ রুবাইয়াত আনোয়ার
মেবিন হাসান
যোগাযোগ
টেলিফোন
০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবাইল ফোন
০১৭১৩ ৬০১৭২৯
ইমেইল
[email protected]
ফেসবুক
facebook.com/deshsangbad10

Developed & Maintenance by i2soft
logo
up