রবিবার, ২৫ জুলাই ২০২১ || ১০ শ্রাবণ ১৪২৮
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ মতিঝিলে গাড়ির গ্যারেজে আগুন ■ ময়মনসিংহ মেডিকেলে আরও ১৭ জনের মৃত্যু ■ রাজশাহী মেডিকেলে আরও ১৪ জনের মৃত্যু ■ কুষ্টিয়ায় আরও ১৯ জনের মৃত্যু ■ সরকারি কর্মচারীদের সম্পদের হিসাব দেয়ার নির্দেশ ■ বহিস্কার হলেন হেলেনা জাহাঙ্গীর ■ বাকপ্রতিবন্ধীকে কুপিয়ে হত্যা ■ দেশে এলো ২৫০ ভেন্টিলেটর ■ আ.লীগের মাসব্যাপী কর্মসূচি ঘোষণা ■ ঈদে সারাদেশে ৯১ লাখ পশু কোরবানি ■ ঝাঁকে ঝাঁকে ধরা পড়ছে ইলিশ ■ দেশের পথে ‘অক্সিজেন এক্সপ্রেস’
দারদেনা করে চলছে জেলে পরিবারগুলো
ভোলায় নদ-নদীতে মিলছে না কাঙ্খিত ইলিশ
কামরুজ্জামান শাহীন, ভোলা
Published : Wednesday, 14 July, 2021 at 8:27 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

ভোলায় নদ-নদীতে মিলছে না কাঙ্খিত ইলিশ

ভোলায় নদ-নদীতে মিলছে না কাঙ্খিত ইলিশ

প্রতিবছরের বৈশাখ, জ্যৈষ্ঠ ও আষাঢ় মাসের পুরো সময়টাই ইলিশের ভরপুর মৌসুম। কিন্তু সেই সময়ে এবার জেলেরা নদ-নদীতে পাচ্ছে না ইলিশ। দারদেনা করে চলছে জেলে পরিবারগুলো। বাজারেও মিলছে না মানুষের কাঙ্খিত ইলিশ। যাও বা পাওয়া যায় তার বেশিরভাগই সাগরের। সেই ইলিশের দামও সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে।

সবার জানা কথা, সাগরের ইলিশের তুলনায় নদীর ইলিশের স্বাদ বেশি। সাগরের ইলিশের স্বাদ কিছুটা লবণাক্ত হয়ে থাকে, নদীতে এসে স্রোতের প্রতিকূলে সাঁতার কেটে ইলিশ উজানের দিকে চলে আসে বলে তার গায়ের লবণ ঝরে যায়, ফলে ইলিশের আকার ও স্বাদ দুটোই বাড়ে। এ কারণে সাগরের চেয়ে নদীর ইলিশের প্রতি মানুষের আগ্রহ বেশি। তাই জনমনে প্রশ্ন- ‘সময় তো চলে যাচ্ছে, আর কবে দেখা মিলবে সেই কাঙ্ক্ষিত ইলিশের?’

ভোলার বিভিন্ন এলাকার জেলেদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, নদ-নদীতে পানি লবনাক্ত ও স্রোত প্রয়োজনের তুলনায় কম। তাই সাগর থেকে ঝাঁক বেঁধে ইলিশ নদীর মোহনায় আসতে বাধাপ্রাপ্ত হচ্ছে। এর সঙ্গে যুক্ত হয়েছে নদীর গতিপথ পরিবর্তন,জলবায়ুর নেতিবাচক প্রভাব,নদীর মধ্যে জেগে ওঠা নতুন চর এই কারণে নদীতে প্রয়োজনীয় স্রোত নেই। আর এ কারণেই বৃষ্টি থাকার পরেও এই ভরা মৌসুমে ইলিশের দেখা পাচ্ছেন না জেলেরা।

এদিকে, উপকূলীয় নদ-নদীতেও আর আগের মতো ইলিশ ধরা পড়ছে না। উত্তাল মেঘনা-তেঁতুলিয়া পাড়ি দিয়েও ইলিশসহ কোনও মাছেরই তেমন দেখা মিলছে না জেলেদের জালে। তবে জেলেদের দাবি, সাগরে প্রচুর ইলিশ রয়েছে।

ইলিশের স্বর্গরাজ্য বলে খ্যাত ভোলার মেঘনা ও তেঁতুলিয়া নদীতে প্রত্যাশিত ইলিশ মাছ নেই। তবে গত কয়েকদিন সাগরে কিছু ইলিশ ধরা পড়ছে বলে জানা গেছে।

বৈশাখ, জ্যৈষ্ঠ ও আষার মাসের ভরা মৌসুমে ইলিশ ধরা পড়বে বলে আশায় থাকলেও জেলেদের সে আশা পূরণ হয়নি। তাই শ্রাবণের পূর্ণিমায় কিছু ইলিশ মাছ ধরা পড়বে বলে আশা করছেন জেলেরা। এখন তারা সেই আশায় বুক বেঁধে রয়েছেন বলে এই প্রতিনিধিকে জানিয়েছেন ভোলার চরফ্যাশনের সামরাজ ঘাটের ইলিশের আড়ৎদার দিদার মিয়া।

ভোলার বৃহত্তম মৎস্য ঘাট সামরাজের ইলিশ ব্যবসায়ী আড়ৎদার সমিতির কোষাধ্যক্ষ মোঃ করিম মিয়া জানিয়েছেন, প্রভাবশালী মহলের ছত্রছায়ায় কিছু জেলে নদীতে সারা বছরই বিভিন্ন মাছের পোনা ধরে। এর মধ্যে ইলিশের পোনাও জালে ধরা পড়ে। এবং অবরোধের সময় ভারতীয় জেলেরা আমাদের সাগরে ডুকে ছোট,বড় ইলিশ মাছ ধরে নিয়ে যায়। এতে ইলিশের উৎপাদন কিছুটা ব্যাহত হয়। ভরা মৌসুমে জেলেদের জালে ইলিশ মাছ কম ধরা পড়ার এসবও একটি কারণ বলে মনে করেন তিনি।

নিষিদ্ধ সময়ে ভোলার বিভিন্ন হাট-বাজারেও গত এপ্রিল-মে মাসে কাঁচকি মাছের সঙ্গে ইলিশের পোনা দেদারসে বিক্রি হতে দেখা গেছে এবছর। ফলে ব্যাপক হারে মাছের পোনা নিধনের ঘটনায় নদীতে ইলিশের পরিমাণ একেবারেই কম।
মেঘনা নদীর জেলে শাহে আলম মিয়া জানান, মাছের অবস্থা একে ভারেই খারাপ,নদ-নদীতে মাছ নেই বললেই চলে। দারদেনা করে কোন মতে চলছে সংসার।

ভরা মৌসুমে জেলেদের জালে ইলিশ ধরা না পড়ায় ভোলায় ইলিশ মাছের আড়ৎগুলোয় এখন ব্যবসায়ীরা অলস সময় পার করছেন।

স্থানীয় জেলেরা জানিয়েছেন, প্রতিবছরের বৈশাখ,জ্যৈষ্ঠ ও আষাঢ় মাস জুড়ে পুরোটাই ইলিশের ভরা মৌসুম। এই মৌসুমে জেলেরা দলে দলে জাল ও নৌকা নিয়ে নদীতে নামেন। অতীতের মতো এবছরও তারা জাল ও নৌকা নিয়ে নদীতে গেছেন। কিন্তু জালে ইলিশ মাছ ধরা পড়ছে না। এ কারণেই ইলিশের অভয়ারন্য বলে পরিচিত ভোলার জেলে ও ইলিশ ব্যবসায়ীরা অনেকটা হতাশ।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ইলিশ সংকটের নেতিবাচক প্রভাব পড়েছে দেশের বিভিন্ন জেলায় অবস্থিত পাইকারি বাজার ও ইলিশের মোকামগুলোয়। বরিশালের পোর্ট রোডের ইলিশের পাইকারি ব্যবসায়ী মোঃ লিটন মিয়া বলেন, প্রতি বছরের ইলিশের এই মৌসুমে এই আড়তগুলোয় শ্রমিকরা ট্রলার থেকে ইলিশ মাছ ওঠানো নামানোর কাজে ব্যস্ত সময় পার করতো। কিন্তু এ বছরের চিত্র ভিন্ন। এ বছর প্রত্যাশা অনুযায়ী মাছ মিলছে না।

স্থানীয় একাধিক মৎস্য ব্যবসায়ী জানান, উপকূলীয় নদ-নদীতে আর আগের মতো ইলিশ ধরা পড়ছে না। ফলে আড়ৎগুলো গত কয়েক মাস ইলিশ সরবরাহের পরিমাণ আশঙ্কাজনকভাবে কমে গেছে। সংকট দেখা দেওয়ায় আড়ৎদের অনেক শ্রমিক ইলিশ ওঠানো ও নামানোর কাজ ছেড়ে অন্য কাজ করছেন। আবার অনেকে বেকার হয়ে পড়েছেন।

এদিকে ভোলা সদর উপজেলা সিনিয়র মৎস্য কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান বলেন, অতিরিক্ত লবনাক্ত পানি ও জলবায়ু বিরুপ প্রভাবের কারণে উপকুলীয় নদ-নদীতে এখন আর আগের মতো মাছ ধরা পড়ছে না। তবে গবেষণায় দেখা গেছে, সাগরে প্রচুর মাছ আছে। আশা করা যায় জুলাই মাসের শেষ দিকে নদ-নদীতেও জেলেদের জালে ইলিশ ধরা পড়বে।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এফএইচ/বিটি


আরও সংবাদ   বিষয়:  ইলিশ  


আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা
ময়মনসিংহ মেডিকেলে আরও ১৭ জনের মৃত্যু
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
সহযোগি সম্পাদক
এনামুল হক ভূঁইয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক
এম. এ হান্নান
সহকারি সম্পাদক
মোহাম্মদ রুবাইয়াত আনোয়ার
মেবিন হাসান
যোগাযোগ
টেলিফোন
০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবাইল ফোন
০১৭১৩ ৬০১৭২৯
ইমেইল
[email protected]
ফেসবুক
facebook.com/deshsangbad10

Developed & Maintenance by i2soft
logo
up