শুক্রবার, ৭ মে ২০২১ || ২৩ বৈশাখ ১৪২৮
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ জাসদ নেতা মিন্টু গ্রেফতার ■ নতুন মন্ত্রীদের শপথ গ্রহণ রোববার ■ বিদেশিদের বিএনপির ভরাডুবির কারণ জানালেন শেখ হাসিনা ■ বিশ্ব গণমাধ্যমে বাংলাদেশের নির্বাচন ■ সংবিধান লঙ্ঘনে ইসির বিচার দাবি খোকনের ■ শপথ গ্রহণে যাচ্ছে না ঐক্যফ্রন্টের সংসদ সদস্যরা! ■ আ’ লীগের দুই গ্রুপের কোন্দলে যুবলীগ নেতা নিহত ■ বিদেশি পর্যবেক্ষক ছিল একেবারেই আইওয়াশ ■ নির্বাচন প্রশ্নবিদ্ধ হওয়ায় গভীর উদ্বেগ টিআইবি’র ■  আ’লীগের জয়জয়কার, মুছে গেল বিরোধীরা ■ যেভাবে গঠন হচ্ছে নতুন মন্ত্রিসভা ■ ফিলিপাইনে ঝড়ে মৃতের সংখ্যা ৬৮
সৈয়দপুরে মহিলাকে নির্যাতন করল এনজিও কর্মী
মোঃ জয়নাল আবেদীন হিরো, সৈয়দপুর (নীলফামারী) :
Published : Tuesday, 25 December, 2018 at 5:47 PM, Update: 26.12.2018 1:11:00 AM
Zoom In Zoom Out Original Text

সৈয়দপুরে মহিলাকে নির্যাতন করল এনজিও কর্মী

সৈয়দপুরে মহিলাকে নির্যাতন করল এনজিও কর্মী

নীলফামারীর সৈয়দপুরে কিস্তির টাকা বাকী রাখায় সংখ্যালঘু মহিলাকে নির্যাতন করলেন মানবিক উন্নয়ন সংস্থা পদক্ষেপের ফিল্ড কর্মী শাহীন। 

অভিযোগে জানাযায়, সৈয়দপুর উপজেলার খাতামধুপুর ইউনিয়নের ইউপি পরিষদ সংলগ্ন নাসারীপাড়ার ওতিমন রায়ের স্ত্রী শান্তি রানী এনজিও পদক্ষেপ তারাগঞ্জ শাখার অধিনে ঋণ গ্রহণ করেন। ঠিকমত কিস্তি দিয়ে আসছিল। অভাবের তাড়নায় কিছু টাকা বাকী পড়ে। ঘটনার দিন ২৩ ডিসেম্বর সাপ্তাহিক কিস্তির দিন ছিল। শান্তি রানী কিস্তি দিতে না পারায় ওই দিন রাত ৮টায় ফিন্ড কর্মী শাহীন তার বাড়ীতে আসেন। বাড়ীতে ওই দিন রাতে আর কেউ ছিল না। এসময় শান্তি রানী পুজার ঘরে দেবীকে ভোগ দিচ্ছিলেন। তাই টাকার জন্য অকর্থ ভাষায় গালিগালাজ শুরু করেন। এমনকি শাহীন বলে যে, টাকা না দিলে তোকে তুলে নিয়ে যাব। 

এক পর্যায়ে শান্তি রানী দেবীকে ভোগ না দিয়ে বাইরে বেড়িয়ে এসে তাকে গালিগালাজের কারণ জানতে চাইলে শাহীন বাশের জাংলার লাঠি নিয়ে তার মাথায় আঘাত করে। এসময় শান্তি রানী লাঠিটিকে হাত দিয়ে ধরে ফেলেন এবং মারাত্বক জঘম থেকে বেঁচে যান। এক পর্যায়ে মহিলা সদস্যা লাঠি ধরলে তাকে লাঠিসহ রাস্তায় টেনে হেড়চে নিয়ে আসে। ঘটনার সময় ওই পথ দিয়ে ৩ জন সাংবাদিক যাচ্ছিলেন। এদৃশ্য দেখে দাড়িয়ে ছবি তুললে শাহীন লাঠি ফেলে দেয়। শাহীনকে সাংবাদিকরা এ ঘটনার বিষয় জিজ্ঞাসা করলে তিনি জানান, আমার স্ত্রী সুফিয়া বেগম তারাগঞ্জ থানায় পুলিশের চাকুরী করেন। তার বাড়ী দেবীগঞ্জ এলাকা বলে জানান। 

তারাগঞ্জ উপজেলা শাখায় চাকুরী করেন। টাকা বাকী থাকার কারণে অফিসের নির্দেশে এসেছেন। রাতে বাড়ীতে আসা এবং সদস্যকে লাঠি দিয়ে আঘাত করার কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, বকেয়া টাকা উত্তোলনের জন্য এসেছিলাম। আর ওই মহিলা আমাকে মারার চেষ্টা করেছিল। আমি প্রতিহত করেছি। পরে লোকজন জড়ো হলে শাহীন পালিয়ে যায়। এ ব্যাপারে মুঠোফোনে কথা হয় তারাগঞ্জ শাখার পদক্ষেপের
 
ম্যানেজার রমজানের সাথে তিনি বলেন, আমার কাছে সদস্যর কোন অভিযোগ আসেনি। যার কারণে অভিযুক্ত কর্মীর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারছি না।  

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/আইশি


আরও সংবাদ   বিষয়:  সৈয়দপুর   মহিলা   নির্যাতন   এনজি   কর্মী  


আপনার মতামত দিন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : এম. এ হান্নান
যুগ্ম-সম্পাদক
মোহাম্মদ রুবাইয়াত আনোয়ার
মেবিন হাসান
যোগাযোগ
টেলিফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
সেলফোন : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up