ঢাকা, বাংলাদেশ || বুধবার, ৮ এপ্রিল ২০২০ || ২৫ চৈত্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ রাষ্ট্রপতির কাছে প্রাণভিক্ষার আবেদন ■ অগ্রণী ব্যাংকের প্রধান কার্যালয় লকডাউন ■ ২০ জেলায় করোনা শনাক্ত ■ করোনায় বেকার হওয়ার আশঙ্কায় ৩৩০ কোটি মানুষ ■ ফ্রান্সে ১ দিনে করোনায় মারা গেল ১৪১৭ ■ ত্রাণের ছবি তোলার পর প্যাকেট কেড়ে নিল যুবলীগ নেতা! ■ বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থাকে ট্রাম্পের হুমকি ■ র‌্যাবের নতুন ডিজি আবদুল্লাহ আল মামুন ■ ঢাকা জেলা জজ আদালতের ছুটি বাতিল ■ বাংলাদেশের যেসব ওষুধ করোনা চিকিৎসায় কার্যকর ■ পুলিশের নতুন আইজি বেনজীর আহমেদ ■ ফের বাড়ল হজ নিবন্ধনের সময়
কক্সবাজারে ‘বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস ২০১৯’ পালন
আনোয়ার হাসান চৌধুরী, কক্সবাজার
Published : Friday, 21 June, 2019 at 8:08 PM

কক্সবাজারে ‘বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস ২০১৯’ পালন

কক্সবাজারে ‘বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস ২০১৯’ পালন

১৯৮৭ সাল থেকে প্রতি বছর ৩১ মে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এবং এর সহযোগী সংস্থাসমূহ তামাকের স্বাস্থ্য ঝুঁকিসমূহ তুলে ধরে কার্যকর নীতিমালা প্রণয়নের লক্ষ্যে বিশ্বব্যাপী ‘বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস’ পালন করে আসছে। মানবদেহে তামাকের বিষাক্ত ধোঁয়া প্রবেশে প্রথমেই ক্ষতিগ্রস্থ হয় ফুসফুস। ফুসফুস এবং শ্বাসতন্ত্র জটিলতার সঙ্গে তামাক সেবনের সম্পর্ক বিষয়ে জনসাধারণ এবং নীতিনির্ধারণী পর্যায়ে ব্যাপক পরিসরে সচেতনতা সৃষ্টির লক্ষ্যে এ বছরের প্রতিপাদ্য নির্ধারণ করা হয়েছে-“তামাকে হয় ফুসফুস ক্ষয়- সুস্বাস্থ্য কাম্য, তামাক নয়”। এ বছরের বিশ^ তামাকমুক্ত দিবসের সকল আয়োজনের উদ্দেশ্য হবে:

-    তামাকজাত দ্রব্য ব্যবহারের সাথে ফুসফুসের ক্ষতি এবং সংশ্লিষ্ট সকল স্বাস্থ্য জটিলতার সম্পর্ক তুলে ধরা।
-    প্রত্যক্ষ এবং পরোক্ষ ধূমপান কিভাবে শ্বাসতন্ত্রের জটিলতা সৃষ্টিতে ভূমিকা রাখে, সে বিষয়ে মানুষের মধ্যে ব্যাপক সচেতনতা তৈরি করা।
-    ফুসফুসের সুস্থতা এবং সব ধরনের তামাকপণ্য থেকে মানুষের সুরক্ষা নিশি^তকরণে জনগণ, সরকার এবং সংশ্লিষ্ট অন্যান্য পক্ষের কার্যকর পদক্ষেপ গ্রহণের সুযোগ তৈরি করে দেয়া।

 বাংলাদেশ সরকার স্বাক্ষরিত আন্তর্জাতিক চুক্তি ফ্রেমওয়ার্ক কনভেনশন অন টোব্যাকো কন্ট্রোল (এফসিটিসি) এর অধীনে থাকা এমপাওয়ার এবং বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থার অন্যান্য পরীক্ষিত কৌশলগুলো বাস্তবায়নের মাধ্যমে কার্যকরী তামাক নিয়ন্ত্রণ ব্যবস্থা গড়ে তোলা।

তাছাড়া জাতিসংঘ ঘোষিত টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা (এসডিজি) ২০১৬-২০৩০ এ যেসব লক্ষ্যমাত্রা নির্ধারণ করা হয়েছে, তার বেশ কয়েকটি তামাক উৎপাদন, প্রক্রিয়াজাতকরণ ও ব্যবহারের সঙ্গে সম্পৃক্ত। এমডিজির অনেকগুলো লক্ষ্য অর্জনে বাংলাদেশ সফল হয়েছে। এসডিজি অর্জনে সফল হতে গেলেও তামাক নিয়ন্ত্রণকে গুরুত্ব দিতে হবে। এ প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে বিশ্বের আন্যান্য দেশের ন্যায় বাংলাদেশের পর্যটন নগরী কক্সবাজারে ‘বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবস-২০১৯‘ উদযাপিত হয়েছে। ধূমপান ও তামাকজাতদ্রব্য ব্যবহার নিয়ন্ত্রণ আইন-২০০৫ (সংশোধনী-২০১৩) বাস্তবায়নে জেলা টাস্ক ফোর্স কমিটি, কক্সবাজার এর আয়োজনে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ এর সার্বিক তত্বাবধানে ও ইপসা’র সহযোগিতায় র‌্যালী ও আলোচনা সভার মাধ্যমে দিবসটি উদযাপিত হয়।

র‌্যালিতে নেতৃত্ব দেন ডা: মহিউদ্দীন মোহাম্মদ আলমগীর, সিভিল সার্জন (ভারপ্রাপ্ত), কক্সবাজার। উ চা প্রু মারমা, সিনিয়র স্বাস্থ্য শিক্ষা অফিসার, সিভিল সার্জন অফিস, কক্সবাজার এর সঞ্চালনায় র‌্যালি পরবর্তী আলোচনা সভা অনুষ্টিত হয়। আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ডা: মহিউদ্দীন মো: আলমগীর, সিভিল সার্জন (ভারপ্রাপ্ত), কক্সবাজার। স্বাগত বক্তব্য রাখেন ইপসা কক্সবাজার অফিস এর ফোকাল পার্সন মোহাম্মদ হারুন।

এছাড়াও অতিথি হিসেবে আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন তরুন বড়ুয়া, জেলা স্যানিটারী ইন্সপেক্টর, সিভিল সার্জন অফিস, কক্সবাজার ; অশ্রু কনা দাশ, নার্সিং ইন্সট্যাক্টর, কক্সবাজার প্রমুখ।

বক্তারা সকলে একমত পোষন করেন, সবার সম্মিলিত প্রচেষ্টায় ও আইনের কার্যকর বাস্তবায়ন এর মাধ্যমে তামাকমুক্ত সমাজ গড়ে উঠুক, এটাই বিশ্ব তামাকমুক্ত দিবসের প্রত্যাশা। এছাড়া বক্তারা নিজ নিজ অবস্থান থেকে ২০৪০ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে তামাকমুক্ত করতে প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণাকে বাস্তবায়নের নিমিত্তে সর্বাত্বক সহযোগিতার আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/আলো


আরও সংবাদ   বিষয়:  তামাকমুক্ত দিবস  



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft