ঢাকা, বাংলাদেশ || সোমবার, ১৩ জুলাই ২০২০ || ২৯ আষাঢ় ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ সিটি নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড প্রস্তুত করার নির্দেশ ■ ফখরুলকে যে প্রশ্ন করলেন হানিফ ■ বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসে হামলা ■ তওবা করে নতুন বছর শুরু করি ■ নববর্ষে দেশবাসীকে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা ■ অবৈধদের ফেরত না পাঠানোর লিখিত আশ্বাস চায় বাংলাদেশ ■ ২০১৯ সালে কর্মক্ষেত্রে নিহত ৯৪৫ জন শ্রমিক ■ হাইকোর্টে আইনজীবী হতে এবার এমসিকিউ পরীক্ষা ■ আন্তর্জাতিক কলরেট ৬৫ শতাংশ কমাতে যাচ্ছে বিটিআরসি ■ ভারতের নয়া সেনাপ্রধান মনোজ মুকুন্দ নারাভানে ■ পররাষ্ট্র সচিব হলেন মাসুদ বিন মোমেন ■ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে ঢাকায় আসছেন ম্যারাডোনা
চলো স্বপ্ন দেখি স্বপ্ন দেখাই
জান্নাত আক্তার শ্রাবণী
Published : Monday, 1 July, 2019 at 8:25 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

চলো স্বপ্ন দেখি স্বপ্ন দেখাই

চলো স্বপ্ন দেখি স্বপ্ন দেখাই

রাজধানী ঢাকার ব্যস্ত রাস্তায় গাড়ি থামলেই কিছু সুবিধাবঞ্চিত পথশিশুর মুখ আমরা প্রায়ই দেখি। যাদের চুলে নেই তেল, পায়ে স্যান্ডেল, কখনো বা খালি পায়ে। জীর্ন পোষাক আর চেহারায় অভাবের ছাপ স্পষ্ট এই শিশুদের বেশিরভাগই ক্ষুধার যন্ত্রনায় বাড়িয়ে দেয় ভিক্ষার হাত। ব্যস্ত নাগরিকের কেউ কেউ সামর্থ অনুযায়ী তাদের দান করেন, কেউ কেউ ওদের দিকে তাকায় অবহেলা ভরে। তবে এর মাঝে এই অনিশ্চিত জীবনের কথা ভাবতেই আধাঁর নেমে আসে কিছু তরুণদের মনে। পথশিশুদের জন্য ভাল কিছু করার তাড়নায় অস্থির মন স্থির হয় প্রতিজ্ঞায়। শুরু হয় নতুন এক অধ্যায়ের। সুবিধাবঞ্চিত, ভাগ্য হতে ছিটকে পড়া শিশুদের শিক্ষার অধিকার নিশ্চিত করতে যাত্রা শুরু হয় বিনা বেতনের নতুন একটি স্কুল, যার নাম “এ ফ্রি স্কুল”। সংগঠনটির যাত্রা শুরু হয়েছিল সেই ২০১৩ সাল রবীন্দ্রসরোবরে সুবিধাবঞ্চিত পথশিশুদের দুপুরের একবেলার আহার দিয়ে।

চলো স্বপ্ন দেখি স্বপ্ন দেখাই

চলো স্বপ্ন দেখি স্বপ্ন দেখাই



শুরুতে সুবিধাবঞ্চিত কয়েকটি পথশিশুকে খোলা আকাশের নিচে পড়ানো শুরু করে তারা। মানুষের কটুক্তি, ও অসহযোগীতার মাঝেই কাটছিল প্রথম দিকের দিনগুলি। “এ ফ্রি স্কুল” এর প্রতিষ্ঠাতা রেজওয়ান আহমেদ রোজেল জানান, “প্রথম থেকেই বেশ কিছু সংকট আমাদের ঘিরে ধরেছিল। যে বাচ্চাটা প্রথমদিন পড়তে এসেছিল, পরের দিন তাকে আর খুঁজে পাওয়া যাচ্ছিল না, আমরা খাবার দিতাম, তাই খাবারের লোভে কিছু বাচ্চা পড়তে আসতো থিকই, কিন্তু পরবর্তীতে তারা আর আসছিল না। ফলে আমরা সফল হতে পারছিলাম না। তখন সবাই মিলে প্রচন্ডভাবে একটা স্থায়ী ঠিকানার অভাব অনুভব করলাম। এরপর নিজেদের সাধ্য অনুযায়ী একটি কক্ষ নেবার পরিকল্পনা করলাম। সমস্যা হলো জায়গা নির্বাচন করা নিয়ে। আমাদের সাধ্য ও ওদের সুবিধার কথা ভেবে কারওয়ান বাজার বস্তিতে একটা ছোট স্যাঁতসেঁতে কামরা ভাড়া করে আবার শুরু করি প্রচেষ্টা।”

চলো স্বপ্ন দেখি স্বপ্ন দেখাই

চলো স্বপ্ন দেখি স্বপ্ন দেখাই



বস্তির পরিবেশে থাকা মানুষগুলো বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই অপরাধপ্রবণ ও নেশাগ্রস্থ। সুতরাং ঝুঁকির আশংকা ও নানা প্রতিকূলতায় সেখানে স্কুলটা পরিচালনা করাটা সম্ভব হয়ে ওঠে না। পরবর্তীতে স্কুলের অবস্থান পরিবর্তন করে মিরপুর শিয়ালবাড়ীতে আনা হয়। স্কুলটির বয়স এখন পাঁচ বছর। স্কুলের এখন নিজস্ব একটি শ্রেণিকক্ষে ছাত্র-ছাত্রী সংখ্যা পঞ্চাশউর্ধ। তাদেরকে পাঠদানের জন্য রয়েছেন দু'জন বেতনভুক্ত শিক্ষিকাও রয়েছে। তারা পরম মমতায় পাঠদান করে আসছেন বাচ্চাদের। সিসিমপুর আমাদের একটি পাঠশালা করে দিয়েছেন যেখানে সুবিধাবঞ্চিত শিশুরা বই পড়ে জ্ঞান অর্জন করছে। আমাদের মুল লক্ষ্য এই ধরনের সুবিধাবঞ্চিত ছেলে-মেয়েদের কারিগরি ও নৈতিক শিক্ষার মাধ্যমে জনশক্তিতে রূপান্তরিত করা।

'এ ফ্রি স্কুল' সম্পূর্ণ অলাভজনক ও সেবামূলক একটি প্রতিষ্ঠান। কিছু পরিচিতজন, শুভাকাঙ্ক্ষী এবং কিছু প্রতিষ্ঠানের দানের টাকায় এটি চলছে। স্কুলের মাসিক খরচ ২৫০০০ টাকা। বছরে সর্বমোট ৩০০০০০ টাকা স্কুল বাবদ খরচ হয়ে থাকে। রুম ভাড়া ১০০০০ এবং দুইজন শিক্ষিকার বেতন ১২০০০ টাকা এবং ছাত্রছাত্রী বাবদ ৩০০০ টাকা। বর্তমানে ঢাকার রেডিসন হোটেল আমাদের একজন শিক্ষিকার বেতন অনুদান করে থাকেন। বাকি খরচটুকু ব্যাবস্থা করতে আমাদের রীতিমত হিমশিম খেতে হচ্ছে। যে কোন প্রতিষ্ঠান বা ব্যাক্তি পর্যায়ে আমাদের মেন্টর এবং স্পন্সর হিসাবে থাকতে পারেন। বর্তমানে স্কুলটিতে ছেলেদের তুলনায় মেয়ে শিক্ষার্থী বেশী।

প্রতি বছরের ন্যায় এবারো আমরা সুবিধাবঞ্চিত শিশুদের জন্য ফল উৎসব - ২০১৯ আয়োজন করতে যাচ্ছি। যেখানে আমাদের মুল লক্ষ্য দেশী ফলের গুরুত্ব তুলে ধরা এবং তাদের সাথে ফল খাওয়ার আনন্দ ভাগাভাগি করে নেওয়া। যে কেও চাইলেই আমাদের এই পুরো আয়োজনে সামিল হতে পারবেন।  আমাদের স্কুল প্রাঙ্গন, বাড়ি-১, রোড-৬, শিয়ালবাড়ি, রূপনগর আবাসিক এলাকা, মিরপুর-২।

'চলো স্বপ্ন দেখি স্বপ্ন দেখাই'- এই স্লোগানে স্বপ্ন পূরণের পথে এগিয়ে চলছে তরুণেরা ও তাদের স্কুল।

দেশসংবাদ/জেএ


আরও সংবাদ   বিষয়:  রাজধানী   ঢাকা   গাড়ি  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
ফাতেমা হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up