ঢাকা, বাংলাদেশ || মঙ্গলবার, ৭ জুলাই ২০২০ || ২৩ আষাঢ় ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ সিটি নির্বাচনে লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড প্রস্তুত করার নির্দেশ ■ ফখরুলকে যে প্রশ্ন করলেন হানিফ ■ বাগদাদে মার্কিন দূতাবাসে হামলা ■ তওবা করে নতুন বছর শুরু করি ■ নববর্ষে দেশবাসীকে রাষ্ট্রপতি-প্রধানমন্ত্রীর শুভেচ্ছা ■ অবৈধদের ফেরত না পাঠানোর লিখিত আশ্বাস চায় বাংলাদেশ ■ ২০১৯ সালে কর্মক্ষেত্রে নিহত ৯৪৫ জন শ্রমিক ■ হাইকোর্টে আইনজীবী হতে এবার এমসিকিউ পরীক্ষা ■ আন্তর্জাতিক কলরেট ৬৫ শতাংশ কমাতে যাচ্ছে বিটিআরসি ■ ভারতের নয়া সেনাপ্রধান মনোজ মুকুন্দ নারাভানে ■ পররাষ্ট্র সচিব হলেন মাসুদ বিন মোমেন ■ বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকীতে ঢাকায় আসছেন ম্যারাডোনা
রৌমারীতে ফরম পূরণে নেয়া হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা!
মোস্তাফিজুর রহমান তারা, রৌমারী (কুড়িগ্রাম)
Published : Saturday, 16 November, 2019 at 11:50 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

রৌমারীতে ফরম পূরণে নেয়া হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা!

রৌমারীতে ফরম পূরণে নেয়া হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা!

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের নির্দেশনা অমান্য করে রৌমারীতে এসএসসি পরীক্ষার্থীদের কাছ থেকে ফরম পূরণে অতিরিক্ত ফি আদায়ের অভিযোগ পাওয়া গেছে। বেশিরভাগ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে নেয়া হচ্ছে অতিরিক্ত টাকা। চলতি বছরের ২৯ সেপ্টেম্বর দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের এক নির্দেশনায় অতিরিক্ত ফি আদায় না করার জন্য বলা হলেও সে নির্দেশনা মানছে না বেশিরভাগ মাধ্যমিক বিদ্যালয়। 

কুড়িগ্রামের রৌমারী উপজেলার দাঁতভাঙ্গা স্কুল অ্যান্ড কলেজের কয়েকজন শিক্ষার্থীর অভিভাবক জানান, ৪ নভেম্বরের দশম শ্রেণির নির্বাচনী পরীক্ষার ফল প্রকাশের দিন স্কুল থেকে ১১ নভেম্বর ফরম পূরণের শেষ দিন বলে জানানো হয়। এ সময় টেস্ট পরীক্ষায় অংশগ্রহন সকল শিক্ষার্থীদের কাছে ২ হাজার ৬শ টাকা নিয়ে উপস্থিত থাকার জন্য বলেন সহকারি প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহিম। এতে বিপাকে পড়েন অনেক অভিভাবক। হুট করে এভাবে টাকার জোগাড় করা অনেকের জন্য কষ্টসাধ্য হয়ে পড়ে। 

বিদ্যালয়ে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, অভিভাবকদের কাছ থেকে ফরম পূরণ বাবদ বিজ্ঞান বিভাগের জন্য ২ হাজার ৬০০ টাকা করে আদায় করা হচ্ছে। আর মানবিক ও বাণিজ্য বিভাগের জন্য ২ হাজার ৪শ ৫০ টাকা করে নেয়া হচ্ছে। তবে অতিরিক্ত টাকা আদায়ের কোনো রশিদ দেয়া হচ্ছে না। তবে বাড়তি ফি নেয়ার ক্ষেত্রে কোনো কিছু আড়াল না করেই সরাসরি নোটিশ বোর্ডে টাঙিয়ে দিয়েছেন ফি’র তালিকা। 

তবে অধ্যক্ষ মো. বদিউজ্জামান বলেন, ফরম পূরণ বাবদ বোর্ডের নির্ধারিত ফি’র বাইরে অতিরিক্ত টাকা নেওয়া হয়নি। নোটিশ বোর্ডের বিষয় জানতে চাইলে তিনি বলেন, হয়তো কারও আগের বকেয়া ফি রয়েছে তা মিলিয়ে নেয়া হতে পারে। অভিভাবকদের অভিযোগের ব্যাপারে তিনি বলেন, অভিভাবকরা ঠিক কথা বলেননি। তবে অধ্যক্ষ আরো বলেছেন, ফরম পূরণে ৩ হাজার ৬০০ টাকাও নিতে পারি। তাতে কোন সমস্যা নেই। 

অতিরিক্ত টাকা নিয়ে রশিদ না দেয়ার ব্যাপারটি স্বীকার করে তিনি বলেন, স্কুলের রেকর্ডে লিপিবদ্ধ করা হচ্ছে। তাই কোনো রশিদ দেয়া হচ্ছে না। তবে শিক্ষার্থীদের অভিভাবকরা বলছেন ভিন্ন কথা।

বাণিজ্য বিভাগের জাহাঙ্গীর আলম নামের শিক্ষার্থী বলেন, আমার কাছ থেকে ২ হাজার ৬০০ টাকা রাখা হয়েছে। কোনো রশিদ দেয়া হয়নি। আমরা রশিদ চাইলে দেয়া যাবে না বলে জানান সহকারি প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহিম। স্কুল রেকর্ডে আমার ছেলের আগের কোনো টাকা বকেয়া নেই। 

অপর দিকে চর শৌলমারী উচ্চ বিদ্যালয়ে এসএসসি ফরম পূরণে প্রতি শিক্ষার্থীর কাছ থেকে ২ হাজার ৩শ ৫০টাকা নেওয়া হচ্ছে। ওই স্কুলে একাধিক শিক্ষার্থী হাসান মোল্লা, নাজমুন্নাহার, ওয়াসিস জানান, আমাদের কাছ থেকে ফরম পূরণ বাবদ ২ হাজার ৩শ ৫০ টাকা নিয়েছে। স্যারেরা রশিদও দিয়েছে। রশিদে দেওয়া আছে, ফরম পূরণ বোর্ডের নির্ধারিত ফি’র টাকা, উন্নয়ন ফি ৩০০ টাকা ও বোর্ডে যাতায়াত ফি ২০০ টাকা আদায় করেছে।

ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার বিষয় জানতে চাইলে স্কুলের প্রধান শিক্ষক মো. খলিলুর রহমান জানান, ফরম পূরণের টাকা আমি একা নেইনি আমার প্রতিষ্ঠানের গর্ভানিং বর্ডির সভাপতি ও স্টাফের আদেশে আমি অতিরিক্ত টাকা নিয়েছি। কিন্তু আমার ফরম পূরণের রশিদ রয়েছে।

এদিকে শৌলমারী এমআর স্কুল অ্যান্ড কলেজে এসএসসি ফরম পূরণে প্রত্যেক ছাত্র ও ছাত্রীর কাছ থেকে ২ হাজার ৫শ থেকে ৩ হাজার টাকা নেওয়া হয়েছে। ওই স্কুলের মোকছেদ ইসলাম নামের শিক্ষার্থী অভিযোগ করে বলে, স্কুলে ফরম পূরণ করতে আসলে স্যারেরা আমার কাছে ২ হাজার ৫শ টাকা চায়। কিন্তু আমি বোর্ডে নির্ধারিত ফি’র বাইরে কোন টাকা দিতে রাজি হয়নি।

একই চিত্র দেখা যায় দাঁতভাঙ্গা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, চর শৌলমারী বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, যাদুরচর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়, কলাবাড়ি বিবিসি উচ্চ বিদ্যালয়সহ বেশ কয়েকটি বিদ্যালয়ে। বিদ্যালয়গুলোর মধ্যে দাঁতভাঙ্গা স্কুল অ্যান্ড কলেজে ২ হাজার ৬শ টাকা করে ফরম পূরণে ১৯০ জন শিক্ষার্থীর ৪ লাখ ৯৪ হাজার টাকা, চর শৌলমারী উচ্চ বিদ্যালয়ে ২ হাজার ৩শ ৫০টাকা করে ৯৬জন শিক্ষার্থীর ২ লাখ ২৫ হাজার ৬শত টাকা, শৌলমারী এমআর স্কুল অ্যান্ড কলেজে ২ হাজার ৫শত টাকা করে ১৮০ জন শিক্ষার্থীর ৪ লাখ ৫০ হাজার টাকা উত্তোলন করেছে। এতে তিন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে ফরম পূরণে ৪৬৬ জন শিক্ষার্থীর মোট ১১ লাখ ৬৯ হাজার ৬শ টাকা উত্তোলন করেছে। 

দিনাজপুর শিক্ষা বোর্ডের ফরম পূরণ বিজ্ঞপ্তিতে ফি করা রয়েছে, বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে এসএসসির ফরম পূরণ বাবদ বিজ্ঞান বিভাগে সর্বোচ্চ ১ হাজার ৯০৫ টাকা, ব্যবসায় শিক্ষা বিভাগের পরীক্ষার্থীদের থেকে সর্বোচ্চ ১ হাজার ৮৫০ টাকা এবং মানবিক বিভাগের শিক্ষার্থীদের কাছ থেকে সর্বোচ্চ ১ হাজার ৮৫০ টাকা ফি নিতে প্রতিষ্ঠানগুলোকে বলেছে দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা বোর্ড।

অতিরিক্ত ফি আদায়ের ব্যাপারে জানতে চাইলে উপজেলা একাডেমিক সুপারভাইজার মো. মোক্তার হোসেন জানান, ফি নির্ধারণ করে মাধ্যমিক শিক্ষাবোর্ড ও শিক্ষা মন্ত্রণালয়। তবে নির্ধারিত ফি ছাড়া অতিরিক্ত ফি আদায় না করতে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। নির্ধারিত ফি’র অতিরিক্ত নেয়া হচ্ছে কিনা তা আমরা মনিটর করব। 

ফরম পূরণে অতিরিক্ত টাকা নেওয়ার বিষয় জানতে চাইলে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আল-ইমরান জানান, কয়েকটি স্কুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ পাওয়াগেছে। বিষয়টি উপর একাডেমিক সুপারভাইজারকে মনিটরিং করার জন্য নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। অভিযোগ প্রমানিত হলে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া হবে। 

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এসআই


আরও সংবাদ   বিষয়:  শিক্ষা মন্ত্রণালয়   অতিরিক্ত টাকা  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up