ঢাকা, বাংলাদেশ || রবিবার, ৯ আগস্ট ২০২০ || ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ সীমান্তে চীনের হাজার হাজার সেনা, ফের উত্তেজনা ■ পল্লবী থানায় বিস্ফোরণ, ৬ পুলিশ কর্মকর্তা বদলি ■ করোনার চেয়েও বড় সংকট আসছে ■ চাঁদা না দেয়ায় মাদক ব্যবসায়ী সাজিয়ে ক্রসফায়ার! ■ বিশ্বে আক্রান্ত ছাড়াল ১ কোটি ৯৬ লাখ ■ ৩০ বছরের নিচে মৃত্যুর হার কম ■ বিকাশ অ্যাপে বড় পরিবর্তন, বন্ধ প্রতারণার পথ ■ মেজর সিনহা হত্যায় ৪ আসামির জিজ্ঞাসাবাদ শুরু ■ ময়মনসিংহে বাস-অটোরিকশা সংঘর্ষ, নিহত ৭ ■ কিটসহ মেডিকেল সরঞ্জামের জন্য ৪০০ কোটি টাকা ছাড় ■ টেকনাফ থানার নতুন ওসি আবুল ফয়সল ■ বাবার আদর্শ ধারণ করে মা জীবন উৎসর্গ করেছেন
বদরগঞ্জে মৃত্যুর চার মাস পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন
আফরোজা বেগম, রংপুর
Published : Monday, 13 January, 2020 at 5:06 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

বদরগঞ্জে মৃত্যুর চার মাস পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন

বদরগঞ্জে মৃত্যুর চার মাস পর কবর থেকে লাশ উত্তোলন

রংপুরের বদরগঞ্জে বিদ্যুতায়িত হয়ে মৃত্যুর সাড়ে চার মাস পর জিকরুল হকের অর্ধগলিত লাশ কবর থেকে উত্তোলন করা হয়েছে। তিনি উপজেলার দামোদরপুর ইউনিয়নের তালুক দামোদরপুর এলাকার সরদারপাড়ার নূরুল হকের ছেলে।

গত ৫ আগস্ট বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে তিনি মারা যান। এটিকে পরিকল্পিত হত্যাকাণ্ড উল্লেখ করে ২৭ আগস্ট মা জান্নাতুল বেগম রংপুরের বদরগঞ্জ কগনিজেন্স ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে ৭জনের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। আদালতের নির্দেশে গতকাল সোমবার (১৩জানুয়ারি) দুপুরে জেলা প্রশাসক কার্যালয়ের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রাহাত বিন কুতুব এর নেতৃত্বে পারিবারিক কবরস্থান থেকে জিকরুলের অর্ধগলিত লাশ উত্তোলন করা হয়। এসময় তার সাথে ছিলেন বদরগঞ্জ থানার ওসি হাবিবুর রহমান হাওলাদারসহ অন্যরা।

উল্লেখ্য- গত বছরের ৫ আগস্ট দুপুরে জমি দেখতে গিয়ে মাটিতে থাকা বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে জিকরুল হক মারা যান। খবর পেয়ে বদরগঞ্জ থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে লাশের সুরতহাল করেন। কিন্তু রহস্যজনক কারণে পুলিশ লাশের ময়না তদন্ত না করেই দাফনের অনুমতি দেয়। অভিযোগ রয়েছে- দামোদরপুর ইউপি চেয়ারম্যানের হস্তক্ষেপে পুলিশ এঘটনা ঘটায়।

সেসময় বাবা নূরুল হকের কাছ থেকে সাদা কাগজে সাক্ষর নেয়া হয় বলে অভিযোগে বলা হয়েছে। একারণে ২৭ আগস্ট মা জান্নাতুল বেগম বাদী হয়ে রংপুরের বদরগঞ্জ কগনিজেন্স জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। মামলায় আসামি করা হয় মোট ৭ জনকে। এরা হলেন- তালুক দামোদরপুর সরদারপাড়ার মজিবর রহমান, ছেলে গোলাম মর্তুজা, মোক্তাজুর রহমান বাবু, কামরুল ইসলাম, নূরুন্নবী ওরফে মহব্বত হোসেন, আব্দুল জব্বারের ছেলে মফিজুল ও আজিজুল। মামলায় বলা হয়েছে- আসামিরা সম্মিলিতভাবে অবৈধভাবে বিদ্যুত সংযোগ নিয়ে সেচযন্ত্র চালিয়ে আসছে।

এতে জীবনের ঝুঁকি থাকলেও তারা কোন বাধা-নিষেধকে তোয়াক্কা করেনি। তবে এলাকার লোকজনের চাপে তারা মাঝে-মধ্যে রাতে ও ভোরে সেচযন্ত্র চালানোর কথা বললেও তা’ কখনো করেনি। এ অবস্থায় ওইদিন ছেলে জিকরুল নিজ জমি দেখতে যাওয়ার সময় মাটিতে থাকা বিদ্যুতের তারে জড়িয়ে মারা যায়। মা জান্নাতুলের দাবী- আসামিদের সাথে জমি সংক্রান্ত বিষয়ে দীর্ঘদিন ধরে মামলা-মোকদ্দমা চলায় তারা পরিকল্পিতভাবে জিকরুলকে হত্যা করেছে। একারণে তিনি সুষ্ঠু বিচার ও আসামিদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবীতে আদালতে মামলা দায়ের করেন। ২৫ নভেম্বর আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট শোয়েবুর রহমান কবর থেকে জিকরুলের লাশ উত্তোলন ও ময়না তদন্তের নির্দেশ দেন।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/আইশি


আরও সংবাদ   বিষয়:  বদরগঞ্জ   মৃত্যু   কবর   থেকে   লাশ   উত্তোলন  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
বিশ্বে আক্রান্ত ছাড়াল ১ কোটি ৯৬ লাখ
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
ফাতেমা হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up