ঢাকা, বাংলাদেশ || শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০ || ২৬ চৈত্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ করোনা থেকে সুস্থ সাড়ে ৩ লাখ মানুষ! ■ প্রস্তুত মঞ্চ, রোববারের মধ্যে ফাঁসি! ■ শনিবার সরকারের কাছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কিট হস্তান্তর ■ বাংলাদেশ ব্যাংকের বিশেষ ছাড় ■ মসজিদে নয় বাসায় শবে বরাতের আমল ■ নারায়ণগঞ্জ থেকেই ছড়িয়েছে করোনা! ■ চীনের অভিজ্ঞতা থেকে শিখছে বাংলাদেশ ■ ফের ব্যাংক লেনদেনের সময় কমল ■ গুজব ছড়ালেই কঠোর ব্যবস্থা ■ চীনের আরেকটি শহর লকডাউন ■ সরকার প্রবাসীদের পাশে আছে ■ করোনা চিকিৎসায় প্রস্তুত ৬৯ বেসরকারি হাসপাতাল
সুনামগঞ্জেরে হাওরে স্লুইচগেট ভাংচুর, আটক ২
কামাল হোসনে, তাহিরপুর (সুনামগঞ্জ)
Published : Friday, 14 February, 2020 at 7:26 PM, Update: 14.02.2020 7:36:01 PM

সুনামগঞ্জেরে হাওরে স্লুইচগেট ভাংচুর, আটক ২

সুনামগঞ্জেরে হাওরে স্লুইচগেট ভাংচুর, আটক ২

সুনামগঞ্জের বৃহত হাওর শনির হাওরের অতি গুরুত্বপূর্ণ  শ্লুইচ গেট ভেঙ্গে তাহিরপুর -জামালগঞ্জ দুই উপজেলার লাখ লাখ মানুষের স্বপ্নকে ভূলুণ্ঠিত করেছে পিআইসির কাজে জড়িতরা।

জামালগঞ্জ ও তাহিরপুর দুই উপজেলার মধ্যস্থলে লালুরগোয়ালা ক্লোজার সংলগ্ন স্থানের এঘটনায় গতকাল ১৪ ফেব্রুয়ারি জামালগঞ্জ উপজেলার দুইজনকে আটক করেছে তাহিরপুর থানার পুলিশ। আটককৃতরা হলো, যুবলীগনেতা ও জামালগঞ্জ উপজেলার নয়াহালট গ্রামের বাসিন্দা আবুল নেহেরুল ও তার সহযোগি সেলিম মিয়া। ধৃত নেহেরুল মিয়া ইউসুফ আলীর পুত্র এবং সেলিম মিয়া চানপুর গ্রামের মর্তুজ আলীর পুত্র বলে জানা গেছে।

এঘটনায় তাহিরপুর থানার এসআই আলমাছ মিয়া নেতৃত্বে একদল পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ১৪ ফেব্রুয়ারি সকাল সাড়ে ৯টায় এই দুইজনকে গ্রেফতার করেছে বলে পুলিশ সূত্র জানিয়েছে। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত তাহিরপুর থানার অফিসার ইনচার্জ আতিকুর রহমান জানিয়েছেন আটককৃতদের ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হচ্ছে। এদিকে শনির হাওরপাড়ে ভেঙ্গে ফেলা স্লুইচগেটের আশেপাশে থাকা কৃষকেরা জানিয়েছেন,  পিআইসির কাজে এসকোভেটর তদারকিতে থাকার সুবাদে হাওরবাঁধের কাজে অবস্থান করছিল। নেতার ভাতিজা হবার সুযোগ নিয়ে অপর মোটর বাইক চালক সেলিম মিয়াকে সহযোগি করে একটি সুবিশাল হাওরের  সরকার নির্মিত গুরুত্বপূর্ণ  স্লুইসগেট ভেঙ্গে বিভিন্ন উপকরণ চুরির দু:সাহসিক এই ঘটনা ঘটিয়েছে।

এঘটনায় তাহিরপুর ও জামালগঞ্জ এলাকার শনির হাওরে বোরো-ইরি কৃষি জীবিকায়নে নির্ভরশীল লাখ লাখ জনগোষ্ঠীর মাঝে ফসল হারানোর আতংক ছড়িয়ে পড়েছে। বাংলাদেশ পানি উন্নয়ন বোর্ড বাস্তবায়িত হাওর বাঁধে সুনামগঞ্জ জেলার জামালগঞ্জ উপজেলার বিভিন্ন হাওরে এবছর প্রায় ৮কোটি ৫১ লাখ টাকা ব্যয়ে অনুমোদিত ৬৯টি প্রকল্পের অধিকাংশের কাজই খুঁড়িয়ে খুঁড়িয়ে চলছে।  সরজমিনে গিয়ে দেখা গেছে, যদিও সংশ্লিষ্ঠদের তরফ থেকে মুখে মুখে সিংহভাগ কাজ সম্পন্ন হয়েছে এরকম দাবী করা হলেও বাস্তবে কোন কোন পিআইসিতে এখনও ৪০থেকে ৫০ভাগ কাজই সম্পন্ন  করতে পারেনি রাজনৈতিক প্রভাবে প্রণীত পিআইসিরা। পাউবো সূত্রে জানা গেছে, এবছর জামালগঞ্জে ৬৯টি প্রকল্পের মধ্যে শনির হাওরের একাংশে রয়েছে ১২টি, পার্শ্ববর্তী মহালিয়া হাওরে ৫টি, পার্শ্ববর্তী হালির হাওরে ২৮টি, পাগনার হাওরে ২০টি, মিনি-পাগনায় ৩টি, জোয়ালভাঙ্গায় ১টি। এতে বিগত সময়ে ভাল কাজ করেছেন এরকম পিআইসিদের বাদ দিয়ে এবছর একপেশে রাজনৈতিক বলয়ের বৈচিত্রময় পিআইসি সিন্ডিকেট চক্রের হাতে হাওরের একমাত্র বোরোধান রক্ষায় "প্রাণের বাঁধ" নির্মানের দায়িত্ব তুলে দেওয়া হয়েছে।  

উল্লেখ্য যে, হাওর বাঁধের দ্বিতীয় ব্যাচে গত বছর জামালগঞ্জ উপজেলায় বিভিন্ন হাওরে ৫৩টি প্রকল্প বাস্তবায়নে ফসল রক্ষা হলেও এবছর অতিরিক্ত ১৬টি প্রকল্প নতুন সংযোজন করে ৬৯টি প্রকল্পের অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।  জামালগঞ্জ উপজেলার বৌলাই নদীর দুইপাড় ঘেষা শনির হাওরের একাংশ সহ হালির হাওরের কয়েকটি বাঁধ প্রকল্পে গিয়ে হতাশাজনক চিত্র দেখা গেছে।সবকটি পিআইসিতে  আগাগোড়া অনিয়ম করে দায়সারা ভাবে বাঁধে মাটি ফেলা হচ্ছে। কয়েকটি বাঁধে মাটির কাজে অগ্রগতি হলেও দুরমুজ দেওয়া হচ্ছেনা কোনটাতেই। অনেকটাই গা ছাড়া ভাবে ভাড়াটে লোক বসিয়ে প্রকল্পের কাজ ঢিমেতালে চালানো হচ্ছে। অনেক বাঁধে পিআইসির কোন সদস্যকে পাওয়া যায়নি। শনির হাওর উপ-প্রকল্পের লালুর গোয়ালা নামক স্থানে ৭নং,৮নং,৯নং পিআইসিতে গিয়ে দেখা যায় সেখানে সবেমাত্র এসকোভেটর মেশিন নামানো হয়েছে বাঁধে মাটি ফেলার জন্য।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/আইশি


আরও সংবাদ   বিষয়:  শনির হাওরের অতি গুরুত্বপূর্ণ   মানুষের স্বপ্নকে ভূলুণ্ঠিত করেছে   পিআইসির কাজে জড়িতরা  



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft