ঢাকা, বাংলাদেশ || শনিবার, ৩০ মে ২০২০ || ১৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ লিবিয়ায় যেভাবে প্রাণ গেল ২৬ বাংলাদেশির ■ ভিডিও কনফারেন্সে শপথ নেবেন ১৮ বিচারপতি ■ অগ্নিগর্ভ যুক্তরাষ্ট্র, পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে সেনা মোতায়েন ■ পদ্মা সেতুতে ৩০তম স্প‌্যান, দৃশ্যমান সাড়ে ৪ কিমি ■ করোনার পিক সময় আসতে অনেক দেরি ■ ২৪ ঘণ্টায় যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যু ১২২৫ ■ নিহত ২৬ বাংলাদেশিকে লিবিয়ায় দাফন! ■ লিবিয়ায় গুলিতে নিহত ৫ জন ভৈরবের ■ চার্টার্ড প্লেনে সস্ত্রীক লন্ডন গেলেন মোরশেদ খান ■ ভারতে ৪ দশমিক ৬ ভূমিকম্পের আঘাত ■ বহিষ্কারের বিরুদ্ধে চ্যালেঞ্জের ঘোষণা দিলেন মাহাথির ■ দেশে নতুন করে গরিব হলো ২৩ শতাংশ মানুষ
নন্দীগ্রামের নাগর নদ যেন মরা খাল
মো. ফিরোজ কামাল ফারুক, নন্দীগ্রাম (বগুড়া)
Published : Tuesday, 18 February, 2020 at 1:42 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

নন্দীগ্রামের নাগর নদ যেন মরা খাল

নন্দীগ্রামের নাগর নদ যেন মরা খাল

বগুড়ার নন্দীগ্রাম উপজেলার ভাটরা ইউনিয়নের নাগর নদেতে পানি না থাকায় নাব্যতা হারাচ্ছে। যার ফলে নদে হারাতে বসেছে তাঁর নদীত্বর রুপ।

জানা গেছে, উপজেলার সদর থেকে প্রায় ১৫ কিলোমিটার পশ্চিমপ্রান্তে ভাটরা ইউনিয়নের নাগরকান্দি গ্রামের বুকচিরে অবস্থিত নাগর নদ। এই নদ বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ উপজেলার প্রবহমান করতোয়া (নীলফামারী) নদী থেকে উৎপন্ন হয়ে নাটোরের সিংড়া নদী দিয়ে প্রবাহিত হয়ে নওগাঁর আত্রাই নদীর জলধারায় সম্পৃক্ত। নদের বুক থেকে মাটি কাটা ও বালু উত্তোলন করায় নদের রুপ আজ বিলীন হওয়ার দারপ্রান্তে। হারিয়ে যাচ্ছে প্রাকৃতিক সৌন্দর্য, পরিবেশের হচ্ছে মৃত্যু। এ নিয়ে যেন কারও মাথাব্যথা নেই। কালের আবর্তনে নদের ঐতিহ্য এখন হারিয়ে যাচ্ছে। নদটিতে বছরের বেশির ভাগ সময়ই পানি থাকত। নদেরপাড়ারের মৎস্যজীবীরা মনের আনন্দে মেতে উঠতেন মাছ শিকারে। কিন্তু এখন সেই নদে মাছ তো দূরের কথা, পানি থাকছে না।

আজ নদীর কূল আছে, কিনারা আছে, কিন্তু ঢেউ নেই। বহুদিন ধরে নদের বুকে পাল তুলে নৌকা আসা-যাওয়া করে না। দিন দিন ছোট হয়ে আসছে নদের আকার। এক দিকে নাগর নদে গভীর করে মাটি কাটা ও বালু উত্তোলন এবং আবার নদের দুই ধার দিয়ে অনেকেই কৃষি আবাদ করেছে। এক সময় পানিতে থৈ থৈ করতো নাগর নদে। পানি না থাকায় শুখিয়ে মরছে নদ। যৌবন হারিয়ে এখন অনেকটা মরা খালে পরিণত হয়েছে।

নাগরকান্দি গ্রামের বাচ্চু মিয়া বলেন, এক সময় এই নদী-নালা, খাল-বিল, শাখা-প্রশাখা গুলো থেকে প্রচুর পরিমাণে বোয়াল, গজার, মাগুর, কৈসহ দেশীয় প্রজাতির মাছ পাওয়া যেত। এখন পানির অভাবে মাছ তো দূরের কথা নদীই ‘মরা গাঙে’ পরিণত হওয়ার পথে। তাই নাগর নদ খনন করে নাব্যতা ফিরে আনার দাবি জানান তিনি। মোক্কাবেল, মিন্টুসহ কয়েকজন জেলে জানান, আগে এই নদে অনেক মাছ পাওয়া যেত। সেই মাছ বিক্রি করে জীবিকা নির্বাহ করতাম। এখন পানির অভাবে মাছও পাওয়া যায়না।

বগুড়ার পানি উন্নয়ন বোর্ডের নির্বাহী প্রকৌশলী মাহাবুবুর রহমান জানান, নাগর নদটি খনন দরকার। এ নদের নাব্যতা ফিরিয়ে আনতে প্রজেক্ট পাঠানো হয়েছে। সেই প্রজেক্ট বাস্তবায়ন হলে নদ তার পূর্বের অবস্থা ফিরে পাবে। সেই সঙ্গে পানির সঠিক ব্যবস্থাপনা ও রক্ষণাবেক্ষণে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়ে কৃষিক্ষেত্রে সেচ সুবিধা অব্যাহত রাখা সম্ভব হবে।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এনকে


আরও সংবাদ   বিষয়:  বগুড়া   নন্দীগ্রাম   নাগর নদ  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
ইউনাইটেডে আগুনে পুড়ে ৫ করোনা রোগীর মৃত্যু
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up