ঢাকা, বাংলাদেশ || মঙ্গলবার, ৩১ মার্চ ২০২০ || ১৭ চৈত্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ হার্ট অ্যাটাক করেছেন সম্রাট, গুরুতর অসুস্থ ■ ইতালিতে ২৪ ঘণ্টায় ৮১২ জনের মৃত্যু ■ লন্ডনে করোনায় ১০ বাংলাদেশির মৃত্যু ■ করোনা পরীক্ষায় স্থাপন করা হবে ১৭ ল্যাব ■ টোকিও অলিম্পিকের নতুন তারিখ ঘোষণা ■ ঢামেকে ৩ ঘণ্টায় মিলবে করোনা টেস্টের ফলাফল ■ আইসোলেশনে ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী! ■ করোনাভাইরাসে সিরিয়ায় প্রথম মৃত্যু ■ ফিলিপাইনে টোকিওগামী বিমান বিধ্বস্ত, সব যাত্রী নিহত ■ ঢাকা ছাড়ছেন ৩৫৬ মার্কিন নাগরিক-কূটনীতিক ■ ঈদ পর্যন্ত বাড়তে পারে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি ■ মার্কিন জনগণ জীবন দিয়ে ট্রাম্পের উদাসীনতার মূল্য দিচ্ছেন
শিক্ষককে কর্মচারীর গালিগালাজ, প্রতিবাদে মানববন্ধন
হাবিপ্রবি প্রতিনিধি
Published : Wednesday, 19 February, 2020 at 7:37 PM, Update: 19.02.2020 11:18:17 PM

শিক্ষককে কর্মচারীর গালিগালাজ, প্রতিবাদে মানববন্ধন

শিক্ষককে কর্মচারীর গালিগালাজ, প্রতিবাদে মানববন্ধন

দিনাজপুরের হাজী মোহাম্মদ দানেশ বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (হাবিপ্রবি) রিজেন্ট বোর্ড এর সদস্য,পোস্ট গ্র্যাজুয়েট স্টাডিজ অনুষদের ডীন ও অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক ড. ফাহিমা খানমকে অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ ভাষায় গালিগালাজ করার প্রতিবাদে মানববন্ধন করেছে অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা।  

বুধবার দুপুর ১২টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনের সামনে এই মানববন্ধন কর্মসূচী পালিত হয়। মানববন্ধনে অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করেন।  

এ সময় বক্তারা বলেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সম্মানিত সিনিয়র শিক্ষক অধ্যাপক ড.ফাহিমা খানমকে সামান্য একজন গাড়ি চালক কিভাবে অশ্লীল ও কুরুচিপূর্ণ ভাষায় গালিগালাজ করা সাহস পায়। একজন অধীনস্থ কর্মচারী হয়ে কিভাবে অশ্রাব্য ভাষায় গালিগালাজ করার এতো বড় দুঃসাহস হয়। এর পিছনে কারা মদদ দাতা রয়েছে তাদেরকে আমরা দেখতে চাই। ঐ কর্মচারী শুধু একজন শিক্ষককেই অপমান করেন নাই পুরো নারী সমাজকে অপমানিত করেছেন। যেখানে বর্তমান সরকার কর্মক্ষেত্রে নারীদের সর্বোচ্চ মর্যাদা ও নিরাপত্তা নিশ্চিতের উপর জোর দিয়ে যাচ্ছেন সেখানে বিশ্ববিদ্যালয়ের একজন সিনিয়র নারী শিক্ষককে এভাবে লাঞ্ছিত করা আমরা কোনভাবেই মেনে নিতে পারবো না।

বক্তারা আরো বলেন, এ ধরনের ন্যাক্কারজনক কাজ করার পরেও ঐ কর্মচারী  কিভাবে ক্যাম্পাসে অবস্থান করছে তা জেনে আমরা অবাক হয়েছি। আজকের পর থেকে আমরা এই কর্মচারীকে ক্যাম্পাসে দেখতে চাই না। এ রকম কুলাঙ্গার কর্মচারীর ক্যাম্পাসে ঠাই হবে না। অসুস্থ মানুষিকতার এসব মানুষ বিশ্ববিদ্যালয়, দেশ ও সমাজের শত্রু। গাড়ি চালক মো. জাহাঙ্গীর আলমের এধরণের ধৃষ্টতা এটাই নতুন নয়। এর পূর্বেও সে শিক্ষকদেরকে বিভিন্ন সময়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করে লাঞ্চিত করেছে। যার হাতে বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনিয়র শিক্ষকেরাই নিরাপদ নয় সেখানে আমরা সাধারণ শিক্ষার্থী কিভাবে নিরাপদে থাকি। তাকে যদি বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন অতিদ্রুত বহিস্কার না করে তাহলে আগামীতে আরো কঠোর কর্মসূচি দেয়া হবে বলে হুশিয়ারি দেন শিক্ষার্থীরা।

অভিযোগের বিষয়ে অধ্যাপক ড.ফাহিমা খানম বলেন, তারা যে বলছে আমি কোন অভিযোগ দেয় নি তা সঠিক নয়। আমি লিখিতভাবে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের কাছে অভিযোগ দিয়েছি। এখন আইনানুযায়ী যে ব্যবস্থা নেয়া দরকার প্রশাসন সেটি গ্রহণ করবে।  

অভিযোগ অস্বীকার করে গাড়ি চালক জাহাঙ্গীর আলম বলেন, আমি কাউকে গালিগালাজ করি নি। আমাকে মিথ্যা দোষারোপ করে হেনস্থা করার চেষ্টা করা হচ্ছে।

এ ব্যাপারে বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার বীরমুক্তিযোদ্ধা অধ্যাপক ডা. মো.ফজলুল হক বলেন, স্বাধীনতার এতো বছর পর কর্মচারীর দ্বারা বিশ্ববিদ্যালয়ে একজন নারী শিক্ষক এভাবে অপমানিত হবেন তা কল্পনা করতেও খারাপ লাগছে। অপরাধী যেই হোক না কেন বিশ্ববিদ্যালয়ের আইন অনুযায়ী অন্যায়কারী তার অন্যায়ের সাজা পাবে।

মানববন্ধনে আরো বক্তব্য প্রদান করেন, অর্থনীতি বিভাগের শিক্ষক,অধ্যাপক রোজিনা ইয়াসমিন লাকী, অধ্যাপক মোহাম্মদ রাজিব হাসান, অর্থনীতি বিভাগের শেষ বর্ষের শিক্ষার্থী মো. রুবেল হক, সুরাইয়া জেবিন সেজুতি,বুলবুল আহমেদ প্রমুখ।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/আইশি


আরও সংবাদ   বিষয়:  দিনাজপুর   শিক্ষক   প্রতিবাদ   মানববন্ধন  



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft