ঢাকা, বাংলাদেশ || শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০ || ২৭ চৈত্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ পণ্যবাহী ট্রাক-অ্যাম্বুলেন্সের সঙ্গে পারাপার হচ্ছে যাত্রী ■ সন্ধ্যা ৬টার পর ঘরের বাইরে যাওয়ার ওপর নিষেধাজ্ঞা ■ পত্রিকার সাংবাদিকও করোনায় আক্রান্ত ■ রাজপ্রাসাদ ছাড়লেন সৌদি বাদশাহ-যুবরাজ! ■ ২৮ এপ্রিল পর্যন্ত মালয়েশিয়া লকডাউন ■ জুমার দিনে অন্যরকম বায়তুল মোকাররম ■ ইতালিতে শতাধিক ডাক্তার-নার্সের মৃত্যু ■ ঈদের আগে খুলছে না শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান ■ যুক্তরাষ্ট্রের কারাগারে করোনার থাবা, আক্রান্ত ৪৫০ ■ দেশে নতুন করে মৃত্যু ৬, আক্রান্ত ৯৪ জন ■ গাইবান্ধা লকডাউন ঘোষণা ■ সিঙ্গাপুরে আরও ১১৬ বাংলাদেশি করোনায় আক্রান্ত
যুক্তরাষ্ট্রে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের বেহাল অবস্থা
বাংলা প্রেস, নিউ ইয়র্ক
Published : Saturday, 22 February, 2020 at 4:57 PM

যুক্তরাষ্ট্রে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের বেহাল অবস্থা

যুক্তরাষ্ট্রে আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের বেহাল অবস্থা

যুক্তরাষ্ট্রে বেহাল অবস্থায় পালন করা হলো ২১শে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস।

বাংলাদেশের শহীদ দিবসটি পালনের নামে যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যের প্রায় তিন শতাধিক বাংলাদেশি সামাজিক, সাংস্কৃতিক, আঞ্চলিক ও রাজনৈতিক সংগঠন গত ২০ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাতে জুতা পায়ে অস্থায়ী শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য প্রদান করেছেন। যুক্তরাষ্ট্রে এটা নতুন কোন ঘটনা  নয়। এ চর্চা চলছে দীর্ঘদিন ধরে। এ ঘটনায় সচেতন প্রবাসীরা তীব্র ক্ষোভ ও নিন্দা জানিয়েছেন।এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা বাংলা প্রেস।

২১শে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসের প্রারম্ভে অর্থাৎ ২০ ফেব্রুয়ারি মধ্যরাতের পর নিউ ইয়র্কসহ বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনগুলো অস্থায়ী শহীদ মিনার তৈরি করে বিভিন্ন সংগঠনকে পুষ্পমাল্য প্রদান করার সুযোগ করে দেন।এতে পুষ্পমাল্য প্রদান করেন নানা সংগঠন, মুক্তিযোদ্ধা, কবি, সাহিত্যিক,‌ সাংবাদিক, কূটনীতিবিদ, রাজনীতিবিদসহ সকল শ্রেনীর প্রবাসী বাংলাদেশিরা। জুতা পায়ে অস্থায়ী শহীদ মিনারে ফুল ও পুষ্পমাল্য প্রদান করলেও আয়োজকদের পক্ষ থেকে কেউ বাধা দেননি। কারন হিসেবে জানা যায় যুক্তরাষ্ট্রে প্রবাসী বাংলাদেশিদের শহীদ মিনারে ফুল দেওয়ার এটাই নিয়ম। তাই কারো কোন আপত্তি ছিল না। কোথাও কোথাও পুষ্পমাল্য প্রদানে অর্থও আদায় করা হয়েছে বলে জানা গেছে।  তবে বিভিন্ন স্থানে শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধা জানানোর চেয়ে ফটোসেশন বা সেলফি তোলারও প্রতিযোগিতাই ছিল বেশি।

নিউ ইয়র্ক প্রবাসী বেশ কয়েকজন বাংলাদেশি জানান, জুতা পায়ে অস্থায়ী শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য প্রদান বন্ধের ব্যাপারে আয়োজক সংগঠঙ্গুলোকে আরো সচেতন হতে হবে। তারা যদি খালি পায়ে শহীদ মিনারে ফুল দেওয়ার নিয়ম চালু করেন তাহলে আমন্ত্রিত সংগঠনের কর্মকর্তারা তা করতে বাধ্য থাকেন। তবে একই সাথে ব্যবসায়িক মনোভাব বা আর্থিক লেনদেনও বন্ধ করতে হবে। তাহলেই এ বিষয়টি সমাধান হবে বলে উল্লেখ করেন তারা। যুক্তরাষ্ট্রে জুতা পায়ে অস্থায়ী শহীদ মিনারে ফুল ও পুষ্পমাল্য প্রদানের এই প্রথা কে কবে চালু করেছিল তা জানা যায়নি।  

শনি ও রবিবার যুক্তরাষ্ট্রের বিভিন্ন অঙ্গরাজ্যে সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠনে অস্থায়ী শহীদ মিনারে পুষ্পমাল্য প্রদানের পুর্বঘোষিত কর্মসূচি রয়েছে।  

কোথাও কোথাও পুষ্পমাল্য প্রদানে অর্থও আদায় করা হয়েছে বলে জানা গেছে।  বাংলাদেশের শহীদ দিবস (২১শে ফেব্রুয়ারি) শহীদদের প্রতি শ্রদ্ধার বদলে চরমভাবে উপহাস করা হচ্ছে। যুক্তরাষ্ট্রে জুতা পায়ে অস্থায়ী শহীদ মিনারে ফুল ও পুষ্পমাল্য প্রদানের এই প্রথা কে কবে চালু করেছিল তা জানা যায়নি।  

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/আইশি


আরও সংবাদ   বিষয়:  যুক্তরাষ্ট্র মাতৃভাষা   বেহাল   অবস্থা  



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft