ঢাকা, বাংলাদেশ || রবিবার, ৫ এপ্রিল ২০২০ || ২১ চৈত্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ অবশষে পোশাক কারখানা বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত ■ নিউইয়র্কে ২৪ ঘণ্টায় ৬৩০ জনের মৃত্যু ■ ১১ এপ্রিল পর্যন্ত পোশাক কারখানা বন্ধ রাখার আহ্বান ■ পরিস্থিতি স্বাভাবিক না হওয়া পর্যন্ত খেলাধুলা বন্ধ থাকবে ■ কারখানায় না এলে শ্রমিকদের চাকরি যাবে না ■ সব ভবিষ্যদ্বাণীকে বুড়ো আঙুল দেখিয়েছে করোনা ■ রোববার থেকে ১০ টাকায় চাল ■ চীনে করোনায় মৃত্যু ৪৭ হাজার ■ বাংলাদেশে ২০-৫০ লাখ মৃত্যুর আশঙ্কা অতিরঞ্জিত ■ বাংলাদেশকে ১০০ মিলিয়ন ডলার ঋণ দিচ্ছে বিশ্ব ব্যাংক ■ পরিস্থিতির ওপর নির্ভর করছে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের ছুটি ■ অকারণে বাইরে গেলে কঠিন ব্যবস্থা নেয়া হবে
রাজীবের পাশে দাঁড়ালেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউএনও
মোঃ জুয়েল রানা, স্টাফ রিপোর্টার
Published : Sunday, 23 February, 2020 at 6:07 PM

রাজীবের পাশে দাঁড়ালেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউএনও

রাজীবের পাশে দাঁড়ালেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউএনও

কুমিল্লা তিতাস উপজেলার মজিদপুর গ্রামের মৃত নিরঞ্জন চন্দ্র সাহার ছেলে সিদ্ধ বুট বিক্রি করে সংসার চালানো প্রতিবন্ধী রাজীব চন্দ্র সাহার পাশে দাঁড়ালেন তিতাস উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোছাম্মৎ রাশেদা আক্তার। তারা রাজীবকে প্রতিবন্ধী ভাতা কার্ড, সরকারি ভাবে ঘড় নির্মাণ ও সমাজ সেবা থেকে ঋণদানের ব্যবস্থা করার জন্য সমাজ সেবা অফিসারকে নির্দেশ দেন। সেই সঙ্গে ব্যবসা পরিচালনার জন্য উপজেলা চেয়ারম্যান নগদ পাঁচ হাজার টাকাও দেন।

রবিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে উপজেলা পরিষদে রাজীবের সহপরিবারকে ডেকে এনে এই সহযোগীতার হাত বাড়িয়ে দেন উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউএনও।

রাজীব ভিক্ষা না করেই জীবনকে জয় করার জন্য বাবার মৃত্যুর পর শারীরিক অক্ষমতা উপেক্ষা করে অন্যের দয়ার উপর নির্ভর না করে গত ১৫বছর ধরে সিদ্ধ বুট বিক্রি করে দুই ছেলে, এক বোন, মা ও স্ত্রীকে নিয়ে ছয়জনের সংসার চালাচ্ছেন। এবং সে একা নয়, এক বোন ও এক ছেলেও প্রতিবন্ধী।

এই অদম্য রাজীবের চিত্র দেখে সাংবাদিক জুয়েল রানা গত এক মাস আগে সিদ্ধ বুট বিক্রি করে মা-সহ ছয়জনের সংসার চালাচ্ছেন প্রতিবন্ধী রাজীব এ শিরোনামে বিভিন্ন প্রিন্ট ও অনলাইনে নিউজটি প্রকাশ করা হলে নজর কারে উপজেলা চেয়ারম্যান ও ইউএনও সহ অনেকেরই। তাৎক্ষণিক ব্যবস্থাও নেন উপজেলা চেয়ারম্যান।

এদিকে উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পারভেজ হোসেন সরকার বলেন, ‘আমাদের দেশে প্রতিবন্ধীরা যে সমাজের বোঝা নয় তার উজ্জ্বল দৃষ্টান্ত হলো এই রাজীব। সে প্রতিবন্ধী হয়েও এই বয়সে ভিক্ষা না করে পরিশ্রম করে সংসার চালাচ্ছিলেন। রাজীবের মতো মানুষদের জন্য আমরা সব সময় এগিয়ে আসার চেষ্টা করে থাকি। তাই আপাতত তার এক প্রতিবন্ধী ছেলের ভাতা বাকি থাকা একটি ভাতা কার্ড ও ব্যবসা চালানোর জন্য কিছু টাকা দেওয়া হয়েছে। তবে পরবর্তীতে তার জন্য ভাল কিছু করে দেওয়ার চেষ্টা করবো ইনশাল্লাহ।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এনকে


আরও সংবাদ   বিষয়:  কুমিল্লা   তিতাস   রাজীব চন্দ্র সাহা  



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft