ঢাকা, বাংলাদেশ || রবিবার, ২৯ মার্চ ২০২০ || ১৪ চৈত্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ ইতালিতে মৃতের সংখ্যা ১০ হাজার ছাড়াল ■ রোববার থেকে সীমিত আকারে ব্যাংক চালু থাকবে ■ করোনার গুজব নিয়ে যে সতর্কবার্তা দিলো সরকার ■ সময় ফুরাবার আগেই চিন্তা করতে হবে কোন পথে হাঁটবো? ■ করোনায় আক্রান্ত জাতিসংঘের ৮৬ কর্মী ■ ব্রিটেনে ২৪ ঘণ্টায় ২৬০ জনের মৃত্যু ■ করোনা পরীক্ষার কিট তৈরি করলেন ভারতীয় নারী! ■ আকিজের হাসপাতাল বানানোর খবরে এলাকাবাসীর বিক্ষোভ ■ সারা বিশ্বেই সরকারের ওপর আস্থা হারাচ্ছে মানুষ ■ বাংলাদেশ থেকে ২৫ মেডিক্যাল আইটেম নেবে যুক্তরাষ্ট্র ■ সুস্থ হয়ে আবারও করোনায় আক্রান্ত হচ্ছে চীনে ■ নিউইয়র্কে করোনায় আরও ৪ বাংলাদেশির মৃত্যু
আশুলিয়ায় ফুটওভার ব্রিজে পরিক্ষার্থী বিদ্যুস্পৃষ্ট
আব্দুল কাইয়ুম, সাভার (ঢাকা)
Published : Monday, 24 February, 2020 at 9:26 PM, Update: 24.02.2020 11:31:44 PM

আশুলিয়ায় ফুটওভার ব্রিজে পরিক্ষার্থী বিদ্যুস্পৃষ্ট

আশুলিয়ায় ফুটওভার ব্রিজে পরিক্ষার্থী বিদ্যুস্পৃষ্ট

আশুলিয়ায় ফুটওভার ব্রিজ নির্মাণে অব্যবস্থাপনার কারনে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে এসএসসি পরিক্ষার্থী জোনায়েদ হাসান ইমন।

সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) বিকেলে ইমনের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জানিয়েছেন তার বাবা গফুর হোসেন।

এর আগে রবিবার (২৩ ফেব্রুয়ারি) সন্ধ্যায় নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের বাড়ইপাড়া এলাকার একটি নির্মাণাধীন ফুটওভার ব্রিজে এ ঘটনা ঘটে। এঘটনায় সুষ্ঠু বিচারের দাবিতে গণস্বাক্ষর নিচ্ছে এলাকাবাসী।

আহত ইমন আশুলিয়ার কবিরপুর এলাকার গফুর মিয়ার ছেলে। সে আশুলিয়ার কবিরপুরের অঞ্জনা মডেল হাই স্কুলের এসএসসি পরিক্ষার্থী হিসাবে পরিক্ষা দিচ্ছিলো।

এলাকাবাসি জানান, নবীরগর-চন্দ্রা মহাসড়কের বাড়ইপাড়া বাস স্ট্যান্ডে একটি ফুটওভার ব্রীজ নির্মিত হচ্ছে সড়ক ও জনপথ বিভাগ থেকে। এরই মধ্যে ফুটওভারের অধিকাংশ কাজ শেষ হয়েছে। তবে ফুটওভার ব্রীজের পশ্চিম ও পূর্ব উভয় পাশ দিয়ে বৈদ্যুতিক লাইন রয়েছে। ফুটওভার ব্রীজে উঠার পূর্ব পাশের সিড়ির উপর দিয়ে ৩৩ হাজার ভোল্টেজের বৈদ্যুতিক লাইনের  তাড় টানা ছিলো। তবে ফুটওভার ব্রীজের পূর্বপাশের অংশ ছাউনি না দিয়েই কাজ শেষ করে ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান। এছাড়া ব্রীজের উঠার উভয় পাশের সিড়ি উন্মুক্ত রেখেই চলে যায় ঠিকাদার ও তার শ্রমিকরা।

গতকাল ২৩ ফেব্রুয়ারি সন্ধ্যায় এসএসসি পরীক্ষার্থী জুনায়েদ আহম্মেদ সুমন রাস্তা পার হওয়ার জন্য ফুটওভার ব্রীজে উঠে। এসময় ব্রীজের উপর দিয়ে যাওয়া ৩৩হাজার বোল্টের বৈদ্যুতিক লাইনে স্পর্শ হলেই শরীরে আগুন ধরে যায় সুমনের। এসতময় তার পুরো শরীর ঝলসে যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে চক্রবর্তী এলাকার শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব কেপিজে বিশেষায়িত হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখান থেকে তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে ভর্তি করা হয়। বর্তমানে সেখানেই মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে ইমন।

আহতের স্বজন জানান, আগামী ২৫ ফেব্রুয়ারি তার পরিক্ষা থাকায় লেখাপড়া সংক্রান্ত কাজে ওই নির্মানাধীন ফুটওভার ব্রীজ দিয়ে পশ্চিম বারইপাড়া যাচ্ছিলো। এসময় ফুটওভার ব্রীজের সামান্য ওপর দিয়ে যাওয়া বিদ্যুৎ সরবরাহের তাড়ের সাথে জড়িয়ে গুরুতর আহত হয় ইমন। পরে তাকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেলের বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। সেখানেই তার চিকিৎসা চলছে। চিকিৎসকরা জানিয়েছেন তার শরীরের ৯০ শতাংশ পুড়ে গেছে।

ইমনের বাবা গফুর মিয়া বলেন, অরক্ষিত স্থাপনা নির্মানের জন্যই তার ছেলে আজ মৃত্যুশয্যায়। পরিক্ষাটাও দিতে পারলো না ছেলেটা। এসময় ঘটনার সুষ্ঠু বিচার দাবি করেন তিনি।

এব্যাপারে সড়ক ও জনপথের প্রকৌশলী আমির হোসেন বলেন, ঘটনাটি আমরা শুনেছি। আমরা ব্রিজটির দুপাশের মুখ বন্ধ রেখেছিলাম,  কোন কারনে খোলা হয়েছিলো। আমরা নিরাপত্তার বিষয়টিতে সবসময়ই সতর্ক অবস্থানে থাকি। ঘটনা অত্যন্ত দুঃখজনক।  শীঘ্রই আহতের স্বজনের সাথে যোগাযোগ করা হবে বলেও জানান তিনি।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/আইশি


আরও সংবাদ   বিষয়:  আশুলিয়া   ফুটওভার   পরিক্ষার্থী   বিদ্যুৎস্পৃষ্ট   



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft