ঢাকা, বাংলাদেশ || রবিবার, ২৯ নভেম্বর ২০২০ || ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ ভাস্কর্য স্থাপন বিতর্কে কঠোর অবস্থানে সরকার ■ ১৩ হাসপাতালে বসছে অক্সিজেন প্লান্ট ■ পৌর নির্বাচনে নৌকার প্রার্থী যারা ■ প্রকাশ্যে অস্ত্রের মহড়া, যুবদল-যুবলীগ কর্মীকে কুপিয়ে জখম ■ ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৬, আক্রান্ত ১৯০৮ ■ মাদকবিরোধী অভিযানে রাজধানীতে গ্রেফতার ৪৭ ■ নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে খালে বাস, নিহত ৩ ■ সিঙ্গাপুরে বাংলাদেশির নামে ৮ হাজার কোটি টাকা! ■ বিজ্ঞানী হত্যার চরম প্রতিশোধ নেয়ার ঘোষণা ■ ভাস্কর্য তৈরি হলে টেনে হিঁচড়ে ফেলে দেয়া হবে ■ ফাইজারের করোনা ভ্যাকসিন পরিবহন শুরু ■ গুপ্তহত্যার শিকার কে এই মোহসেন ফাখরিযাদে?
টিকিট বিক্রেতা শত কোটি টাকার মালিক, অনুসন্ধানে দুদক
দেশসংবাদ ডেস্ক
Published : Wednesday, 26 February, 2020 at 11:04 PM, Update: 26.02.2020 11:22:21 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

দুদক

দুদক

সংখ্যালঘু পরিবারের সম্পত্তি দখল, জালিয়াতি ও দুর্নীতির মাধ্যমে শত কোটি টাকার সম্পদের মালিক হয়েছেন বলে অভিযোগ উঠেছে রাজশাহী আওয়ামী লীগের মহানগর সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার।

তার শত কোটি টাকার সম্পদের অনুসন্ধান করবে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। সম্প্রতি দুদকের বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছে নির্ভরযোগ্য একটি সূত্র। দুদকে দেয়া অভিযোগে বলা হয়েছে, রাজশাহীর বেশ কয়েকজন মুক্তিযোদ্ধা ডাবলু সরকারকে রাজাকারপুত্র আখ্যা দিয়ে তার বিরুদ্ধে প্রধানমন্ত্রী ও দুদক চেয়ারম্যানের কাছে লিখিত অভিযোগ দেন।

অভিযোগে মুক্তিযোদ্ধারা দাবি করেন, সংখ্যালঘু পরিবারের বাড়িঘর দখল ও দুর্নীতির মাধ্যমে বিপুল অবৈধ সম্পদের মালিক হয়েছেন ডাবলু সরকার। অথচ তিনি ছিলেন বিআরটিসি বাসের টিকিট বিক্রেতা। বাসের টিকিট বিক্রেতা থেকে আজ শত কোটি টাকার মালিক তিনি।

মুক্তিযোদ্ধাদের দাবি, ডাবলু সরকারের বাবা রশিদ সরকার রাজশাহীর কুখ্যাত রাজাকার আবদুস সাত্তার ওরফে টিপুর সহযোগী ছিলেন। সে হিসেবে ডাবলু সরকার রাজাকারপুত্র। ডাবলু সরকার আওয়ামী লীগে অনুপ্রবেশকারী। তার পরিবারের সবাই আগে মুসলিম লীগ ও পরে বিএনপির রাজনীতিতে যুক্ত ছিলেন। ভগ্নিপতি মীর ইকবালের হাত ধরে আওয়ামী লীগে প্রবেশ করেন ডাবলু।

এরপর নগরীর কুমারপাড়ায় ‘সখিনা বোর্ডিং’ দখল করে এক হিন্দু ব্যবসায়ীকে দেশছাড়া করেন ডাবলু। পরে সেখানে ১৬তলা বিশিষ্ট ‘সরকার টাওয়ার’ নির্মাণ করেন তিনি।

পাশাপাশি নগরীর সাহেববাজার জিরো পয়েন্টে আবদুল জলিল বিশ্বাস মার্কেট নামমাত্র মূল্যে দখলে নিয়েছেন ডাবলু। রাতের আঁধারে ছোটবনগ্রামের বস্তিবাসীকে উচ্ছেদ করে ১২ বিঘা জমি দখল করেছেন তিনি।

এদিকে নগরীর কুমারপাড়ার বিআরটিসির ডিপোর জায়গাটি এক হিন্দু পরিবারের কাছ থেকে দখলে নেন ডাবলু সরকার। সিঅ্যান্ডবি মোড়ের পাশে জায়গা দখল করে তিন তারকা হোটেল নির্মাণ করছেন তিনি। সেখানে তার দুই অংশীদার বিএনপি নেতা শিমুল ও এনায়েত। এছাড়া কুমারপাড়ায় রঘুশাহ নামের এক হিন্দু পরিবারকে উচ্ছেদ করে পাঁচ কাঠা জমিও দখল করেন তিনি।

এসব অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে ডাবলু সরকার বলেন, সামনে দলের সম্মেলন, তাই আমাকে রাজনৈতিকভাবে হেয় করতে এসব অভিযোগ তোলা হয়েছে। এটি আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র ছাড়া কিছুই নয়।

স্থানীয় সূত্র জানায়, রাজশাহী নগর আওয়ামী লীগের বর্তমান কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে প্রায় দুই বছর আগে। এই কমিটির সাধারণ সম্পাদক ডাবলু সরকার। এর আগের কমিটিতে উপ-দফতর সম্পাদক ছিলেন তিনি। পরে কাউন্সিলে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন।

দেশসংবাদ/এসআই


আরও সংবাদ   বিষয়:  আওয়ামী লীগ   দুর্নীতি দমন কমিশন   দুদক  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা
২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু ৩৬, আক্রান্ত ১৯০৮
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এফ. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
ব্যবস্থাপনা সম্পাদক : এম. এ হান্নান
যুগ্ম-সম্পাদক : মোহাম্মদ রুবাইয়াত আনোয়ার
যোগাযোগ
টেলিফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
সেলফোন : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up