ঢাকা, বাংলাদেশ || শুক্রবার, ১০ এপ্রিল ২০২০ || ২৭ চৈত্র ১৪২৬
শিরোনাম: ■ ইতালিতে করোনায় আরও ২ বাংলাদেশির মৃত্যু ■ বিশ্বমঞ্চে আত্মপ্রকাশ করছে নতুন মোড়ল! ■ করোনায় প্রকৃত আক্রান্ত আড়াই কোটি! ■ চিকিৎসক-নার্সদের বেতন দ্বিগুণ করল ভারত ■ লাখ টাকা বেতনে চিকিৎসক নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি ■ যুক্তরাষ্ট্রে ২৪ ঘণ্টায় ১৭৮৩ জনের মৃত্যু ■ করোনার পৃথক ৩টি ভয়ঙ্কর রূপের সন্ধান ■ আইসিইউ থেকে ওয়ার্ডে বরিস জনসন ■ করোনা থেকে সুস্থ সাড়ে ৩ লাখ মানুষ! ■ প্রস্তুত মঞ্চ, রোববারের মধ্যে ফাঁসি! ■ আটকে গেলো প্রাথমিকের প্রথম সাময়িক পরীক্ষা ■ শনিবার সরকারের কাছে গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের কিট হস্তান্তর
ভারতীয়কে চীনা ভেবে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠাল ২ ইসরাইলি!
দেশসংবাদ ডেস্ক
Published : Tuesday, 17 March, 2020 at 3:48 PM

ভারতীয়কে চীনা ভেবে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠাল ২ ইসরাইলি!

ভারতীয়কে চীনা ভেবে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠাল ২ ইসরাইলি!

কারানোভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় চীনা নাগরিক ভেবে এক ভারতীয় বংশোদ্ভূত ইহুদিকে পিটিয়ে হাসপাতালে পাঠাল দুই ইসরাইলি।

ভারতের উত্তর-পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্য মনিপুর থেকে ইসরাইলে আসা অ্যাম শালেম সিকসন (২৮) নামে ওই যুবকের চেহারা চীনাদের মতো হওয়ায় ইসরাইলিরা তাদের চীনা নাগরিক মনে করে। পিটিআই ও রয়টার্সের।

গুরুতর আহতাবস্থায় তাকে ইসরাইলের পরিয়া হাসপাতলে ভর্তি করা হয়েছে। তার বুকে প্রচণ্ডভাবে আঘাত করা হয়েছে বলে চিকিৎসকরা জানিয়েছেন।

রোববারের ওই ঘটনা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে ইসরাইলিদের এ আচরণকে বর্ণবাদী ও বৈষম্যমূলক বলে সমালোচনা করছেন নেটিজিয়ানরা।

সিকসন পুলিশকে বলেন, আমি বহুবার হামলাকারীদের বলেছি– আমি চীনা নাগরিক নই, তা ছাড়া আমি করোনাভাইরাসেও আক্রান্ত নই। কিন্তু তারা আমার কোনো কথাই শুনল না।

তিন বছর আগে ভারত থেকে সিকসনের পরিবার ইসরাইলে এসে ইহুদি হিসেবে অভিবাসন সুবিধা গ্রহণ করে।

পুলিশ ওই এলাকার সিসিটিভির ফুটেজ দেখে আসামিদের খুঁজছে।

দেশসংবাদ/জেআর/এসকে


আরও সংবাদ   বিষয়:  ভারত   চীনা   ইসরাইলি  



মতামত দিতে ক্লিক করুন
আরো খবর
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft