ঢাকা, বাংলাদেশ || বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০ || ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ ভ্যাকসিন কেনার সিদ্ধান্ত আগামী সপ্তাহে ■ আরেক সাহেদ করিম গ্রেফতার ■ দুবাই এখন ‘নতুন বৈরুত’ ■ শ্রীলংকা সফরে ফিরতে পারেন সাকিব ■ স্বর্ণের দাম কমল ■ গ্রামীণ প্রকল্পে শ্রমিকদের দৈনিক ৫০০ টাকা দেয়ার সুপারিশ ■ পরিবেশমন্ত্রী করোনা আক্রান্ত ■ এইচএসসি পরীক্ষা নিয়ে গণমাধ্যমে ‘কল্পিত’ তারিখ ■ পুলিশের সেই ৩ সাক্ষী সিনহা হত্যায় সহযোগিতা করেছিল ■ প্রাথমিক সমাপনীতে অটো পাসের চিন্তা নেই ■ করোনা বুলেটিন বন্ধ না করার আহ্বান ■ করোনার টিকার জন্য আলাদা অর্থ রাখা হয়েছে
বশেফমুবিপ্রবি’তে স্যানিটাইজার তৈরি
ওসমান হারুনী, জামালপুর
Published : Wednesday, 25 March, 2020 at 8:36 PM, Update: 25.03.2020 10:24:40 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

বশেফমুবিপ্রবি’তে স্যানিটাইজার তৈরি

বশেফমুবিপ্রবি’তে স্যানিটাইজার তৈরি

দেশ যখন করোনাভাইরাসে আতঙ্কগ্রস্থ ঠিক তখনই নিজস্ব অর্থায়নে জীবানুনাশক হ্যাণ্ড স্যানিটাইজার তৈরি করলেন ফিশারিজ বিজ্ঞানী ড. মাহমুদুল হাছানের গবেষক দল। জামালপুর জেলার মেলান্দহের বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (বশেফমুবিপ্রবি) ফিশারিজ বিভাগের শিক্ষক মাহমুদুল হাছানের নেতৃত্বে আরো সাতজন শিক্ষার্থী এ কাজে যুক্ত ছিলেন।

টানা সাতদিন গবেষণা ও পরিশ্রমের পর তিনি শতভাগ সফল হন। ২৫ মার্চ  বেশকিছু স্যানিটাইজার বোতলজাত করে বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় বিতরণ করেন। প্রথম অবস্থাতেই এটি এলাকায় সাড়া ফেলেছে বলে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি, গবেষক ও শিক্ষার্থীরা জানিয়েছেন।

গবেষক ড. মাহমুদুল হাছান জানান, ‘দেশে করোনাভাইরাস উপসর্গ দেখার পর থেকেই আমি ভাবতে থাকি কী করা যায়। স্যানিটাইজার ব্যবহারে প্রাথমিকভাবে জীবানু প্রতিরোধ সম্ভব হলেও বর্তমানে বাজারে স্যানিটাইজার দুষ্প্রাপ্য ও দাম অধিক থাকায় তা সাধারণ মানুষের নাগালে বাইরে হওয়ায় সরকারের পাশাপাশি সবাইকে দেশের জন্য কাজ করার তাগিদ অনুভব করি।

এই ধারণা থেকেই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার (ডব্লিউএইচও) নিয়ম ও পদ্ধতি অনুসরণ করে স্যানিটাইজার তৈরির কাজ শুরু করি। বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের ল্যাবরেটরিতে ফিশারিজ বিভাগের সাতজন শিক্ষার্থীকে সঙ্গে নিয়ে টানা সাতদিন পরিশ্রম করে সফল হই। প্রথমে ৪০ বোতল স্যানিটাইজার তৈরি করে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক-কর্মচারী ও এলাকাবাসীর মধ্যে বিতরণ করা হয়।

ড. হাছান আরো জানান, স্যানিটাইজার তৈরির কাঁচামাল হিসেবে ইথানল, অ্যালোভেরা জেল ও এসেনশিয়াল অয়েল ব্যবহার করা হয়। এর কাঁচামাল সংগ্রহ ও আর্থিক যোগান তিনি নিজেই দেন। প্রয়োজনীয় সহায়তা পেলে এটি বৃহৎ পরিসরে করা হবে বলেও জানান।

স্যানিটাইজার প্রস্তুতকারী দলের অন্য সদস্যরা হলেন- দিদারুল হক খান অভি, জাহিদ হাসান অনিক, সৈয়দা মার্জিয়া ইসলাম তৃপ্তি, ফারজানা হায়দার স্মৃতি, বিল্লাল হাসান, শর্মিলা দে ও তুষার রয়। তারা সকলেই এ বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিশারিজ বিভাগের শিক্ষার্থী।

শিক্ষার্থী দিদারুল হক খান অভি জানান, দেশের চলমান সঙ্কটময় মুহূর্তে দায়িত্বানুভূতির জায়গা থেকেই আমরা মাহমুদুল হাসান স্যারের নেতৃত্বে হ্যাণ্ড স্যানিটাইজার প্রস্তুত করি ও সেগুলো বিতরণ করি। দেশের জন্য কিছু করতে পেরে আমরা গর্বিত। এ কাজটি চলমান রাখতে সংশ্লিষ্টদের আর্থিক ও কারিগরী সহযোগিতা করতে হবে বলে শিক্ষার্থীরা জানান।

এ ব্যাপারে বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. সৈয়দ সামসুদ্দিন আহমেদ বলেন, ‘ড. মাহমুদুল হাছানের গবেষণা কাজ প্রশংসাযোগ্য। বর্তমান পরিস্থিতিতে হ্যাণ্ড স্যানিটাইজার তৈরি ভালো একটি উদ্যোগ। আশা করছি এর ব্যাপ্তি-বৃদ্ধি সাধারণ মানুষের উপকারে আসবে।

মেলান্দহের উপজেলা নির্বাহী অফিসার তামিম আল ইয়ামিন বলেন, ‘উদ্যোগটির কথা শুনে তাকে অফিসে আমন্ত্রণ করেছিলাম। সহযোগিতার বিষয়টি ভাবা হচ্ছে।
            
দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/এসকে


আরও সংবাদ   বিষয়:  বশেফমুবিপ্রবি   স্যানিটাইজার   




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
পরিবেশমন্ত্রী করোনা আক্রান্ত
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
ফাতেমা হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up