ঢাকা, বাংলাদেশ || মঙ্গলবার, ২৬ মে ২০২০ || ১১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ সমুদ্রে ৩ নম্বর সংকেত ■ ভারতে ঝাঁকে ঝাঁকে পঙ্গপালের হানা ■ করোনা ঠেকাতে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার আহ্বান ■ খেলা দেখতে গিয়ে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৪১ জন ■ সিলেটে ৫.১ মাত্রার ভূমিকম্প ■ কাশ্মিরের মুক্তির সংগ্রামকে স্তব্ধ করতে পারবে না ভারত ■ ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর করোনা পজিটিভ ■ ঈদের ছুটিতেও খোলা বিএসএমএমইউ’র ল্যাব ■ দেশে দেশে যেভাবে পালিত হলো ঈদ ■ আম্ফানে সুন্দরবনে উপড়ে পড়েছে ১২,৩৫৮টি গাছ ■ নামাজের মধ্যে ১০ জনকে কুপিয়ে আহত, ১০০ বাড়ি ভাঙচুর ■ ইতিহাস গড়ল নিউ ইয়র্ক টাইমস
ভোলায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরী করছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা
কামরুজ্জামান শাহীন, ভোলা
Published : Thursday, 26 March, 2020 at 10:25 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

ভোলায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরী করছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

ভোলায় হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরী করছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা

প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাস সংক্রমণ থেকে নিরাপদ থাকতে বিনামূল্যে বিতরনের লক্ষ্যে ভোলা সরকারি কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থী কম খরচে তৈরি করছেন হ্যান্ড স্যানিটাইজার।

গত কয়েক দিন ধরে করোনা আতঙ্কের মধ্যে বাজারে যখন হ্যান্ড স্যানিটাইজারের সংকট দেখা দিয়েছে, তখন কেবলমাত্র  বিনামূল্যে বিতরনের জন্য এই  হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করে শহরের স্বল্প আয়ের মানুষের মাঝে বিতরন করছেন কলেজের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। আর এই হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরিতে সহায়তা করেছেন ভোলা সরকারি কলেজের রসায়ন বিভাগ ও  আর্থিক ভাবে সহযোগিতা দিয়েছেন গ্রামীণ জন উন্নয়ন সংস্থা।

বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) এ আক্রান্ত হয়ে প্রতিদিন বাড়ছে মৃত্যুর মিছিল। কোনো ধরনের প্রতিষেধক না থাকায়  সতর্কতা, সচেতনতা ও পরিষ্কার থাকাই আপাতত এ ভাইরাস প্রতিরোধের একমাত্র কৌশল। বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে হাতের মাধ্যমে এ ভাইরাস সংক্রমণ হওয়ার কথা জানিয়ে নিয়মিত হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে হাত পরিষ্কার করার জন্য বলা হচ্ছে। কিন্তু বাজারে এসব বস্তুর চাহিদার তুলনায় একেবারেই অপ্রতুল।

যে কারণে ভোগান্তিতে পড়েছে স্বল্প আয়ের মানুষ। বিশেষ করে নিম্মবত্ত শ্রমজীবী মানুষ তো এই হ্যান্ড স্যানিটাইজার পাইনা। তাই করোনা ভাইরাস সংক্রমণ থেকে নিম্মবিত্ত শ্রমজীবী মানুষকে রক্ষার জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি ও বিনামূল্যে বিতরণের উদ্যোগ গ্রহণ করেছে ভোলা সরকারি কলেজ। ভোলা সরকারি কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর মোঃ গোলাম জাকারিয়ার পৃষ্ঠপোষকতায়  কাজটি করার উদ্যোগ নেন রসায়ন বিভাগ ও কলেজে বিজ্ঞান বিভাগের শিক্ষার্থীরা। গুরুত্বপূর্ণ এ কাজে আর্থিক ভাবে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছেন গ্রামীণ জন উন্নয়ন সংস্থা নামের একটি বে-সরকারি প্রতিষ্ঠান।
ভোলা সরকারি কলেজের রসায়ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এস এম বশীর উল্লহ তত্ত্বাবধায়নে স্বেচ্ছাশ্রমে তৈরি করা হয় হ্যান্ড স্যানিটাইজার। আর ভোলা সরকারি কলেজের বিজ্ঞান বিভাগে পড়ুয়া  শিক্ষার্থীরা  ছুটিতে না থেকে স্বেচ্ছাশ্রমে  এর ভিত্তিতে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করে।

এ কার্যক্রমে অংশগ্রহণ করে একাদশ শ্রেণি বিজ্ঞান শাখার শিক্ষার্থী নিশাত তাসনিম, তাইয়্যেবাতুন নাজিয়া, সায়মা আক্তার, সুমাইয়া আক্তার,মালিহা জাহান, মো. জায়েদ আনজাম , প্রাণিবিদ্যা বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী মাহাবুবুর রহমান এবং মৃত্তিকাবিজ্ঞান বিভাগের ঐশি দত্ত সহ আরো অনেক শিক্ষার্থী জানায়,করোনা মোকাবেলায় মানুষের জন্য হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করতে পেরে আমাদের খুব ভালো লাগছে। এখন সবাই সচেতন হলে আমরা এই রোগ থেকে মুক্ত হতে পারবো। শিক্ষার্থীরা বলেন এমন পরিস্থিতি আমাদের বাসায় থাকতে বলা হয়েছে। তবে শিক্ষকদের ডাকে সাড়া দিয়ে আমরা সবাই মিলে সাধারন মানুষের জন্য  হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করেছি। এর মাধ্যমে সবাই সুরক্ষা থাককে পারবে বলে আশাকরি।
ভোলা সরকারি কলেজ রসায়ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও সহযোগী অধ্যাপক এস এম বশীর উল্লাহ এই প্রতিবেদককে বলেন, আমরা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার এর নিয়ম নীতি মেনে এটি প্রস্তুত করেছি। 

হ্যান্ড স্যানিটাইজার বানাতে ৮২ শতাংশ ইথানল ব্যবহার করেছি। এতে ৯৫ ভাগ জীবাণু মারা যায়। বাকি ৫ ভাগ জীবাণু ধংসের জন্য আমরা হাইড্রোজেন পার অক্সাইড ব্যাবহার করেছি। এতে হাতের আর্দ্রতা ঠিক রাখার জন্য গ্লিসারিন ব্যবহার করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

তিনি আরো বলেন,বিশ্বব্যাপী করোনা ভাইরাস ছড়িয়ে পড়েছে। বাংলাদেশেও এর সংক্রমন ঘটেছে। সরকারের আহবানা সাড়া দিয়ে আমরা এই হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করেছি। এর মাধ্যমে বাজারে যে হ্যান্ড স্যানিটাইজার স্বল্পতা তা কিছুটা কাটাতে সহায়তা করবে। কলেজের প্রায় ১৫-২০ জন শিক্ষার্থী ও শিক্ষকরা এই হ্যান্ড স্যানিটাইজার  তৈরিতে সহায়তা করে থাকে। প্রাথমিকভাবে ৫০ ও ১০০ মিলি গ্রামের প্রাথমিক ভাবে আটশ  বোতল হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করা হচ্ছে।

গ্রামীণ জন উন্নয়ন সংস্থা নির্বাহী পরিচালক জাকির হোসন মহিন জানায়, করোনা ভাইরাসের কারনে বাজারে হ্যান্ড স্যানিটাইজারে সংকট দেখা দিয়েছে। যখন শুনলাম ভোলা সরকারি কলেজ এই  হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি করার উদ্যোগ গ্রহন করেছে তখন  আমরা কলেজের  উদ্যোগের পাশে দাড়াঁই। এর মাধ্যমে দরিদ্র ও অতি দরিদ্র মানুষ এই  হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করে স্বাস্থ্য ঝুঁকি থেকে রক্ষা পাবে বলে আশাকরি।

আর ভোলা সরকারি কলেজের প্রফেসর মোঃ গোলাম জাকারিয়ার বলেন, অত্যন্ত দ্রুততার সাথে ঢাকা থেকে বোতল, গ্লিসারিন, মিথাইল অ্যালকোহল ও স্পিরিট-এই উপাদানগুলো সংগ্রহ করে এনে হ্যান্ড স্যানিটাইজার তৈরি এবং বিতরণ করা হয়েছে। এই কার্যক্রম অব্যাহত থাকবে।এমন মহান উদ্যোগের জন্য  রসায়ন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান এস এম বশীর উল্লাহ, গ্রামীণ জন উন্নয়ন সংস্থার নির্বাহী পরিচালক জনাব জাকির হোসন মহিন,ইসলামিয়া প্রেসের কর্ণধার জনাব মোঃ মামুন গোলদার, ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের সহকারী অধ্যাপক জনাব মোঃ মাহাবুব আলম এবং ব্যবস্থাপনা বিভাগের প্রভাষক জনাব মোঃ এরশাদ সহ কার্যক্রমের সাথে থাকা সকল শিক্ষার্থীকে ধন্যবাদ জানায়।

সার্বিক এ প্রয়াসটি সার্থক হবে যখন সকল মানুষকে সচেতন করে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার মাধ্যমে করোনার সংক্রমণ থেকে মুক্ত করা যাবে।

পরে ভোলা সরকারি কলেজের সামনে এলাকায় বিভিন্ন শ্রেণী পেশার মানুষের মাঝে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিনামূল্যে বিতরন করা হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন- শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক মোহাম্মদ উল্যাহ, হিসাববিজ্ঞান বিভাগের বিভাগীয় প্রধান জামাল হোসেন,দর্শন বিভাগের বিভাগীয় প্রধান ও সহযোগী অধ্যাপক জনাব মোঃ ইকবাল হোসেন সহ বিভিন্ন ছাত্র সংগঠনের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/আইশি


আরও সংবাদ   বিষয়:  ভোলা   হ্যান্ড স্যানিটাইজার   




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
ভাইস প্রেসিডেন্টসহ করোনায় আক্রান্ত ১০ মন্ত্রী
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up