ঢাকা, বাংলাদেশ || সোমবার, ১ জুন ২০২০ || ১৮ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ স্ত্রী-পুত্রসহ আক্রান্ত নজরুল ইসলাম মজুমদার ■ আগামি ১ মাসে আক্রান্ত হবে দেশের ৮০ ভাগ মানুষ ■ ধেয়ে আসছে আরেক ঘূর্ণিঝড় ■ ফল ভাল করেও পছন্দের কলেজে ভর্তি অনিশ্চিত ■ জুলাইয়ে খুলছে মালয়েশিয়ার শ্রম বাজার ■ স্বাস্থ্যবিধি মেনে লঞ্চে চলাচল করতে হবে ■ উবার-পাঠাওসহ সব রাইড শেয়ারিং সেবা বন্ধ ■ মাস্ক না পরলে ১ লাখ টাকা জরিমানা, ৬ মাসের জেল ■ জুন মাস পর্যন্ত বিদ্যুৎ বিলের বিলম্ব মাশুল নেয়া হবে না ■ ঢাকার বাইরে যাওয়াদের সংসদে প্রবেশ বারণ ■ যুক্তরাষ্ট্রে বিক্ষোভ অব্যাহত, সাংবাদিক গ্রেপ্তারে ক্ষমা প্রার্থনা ■ শেয়ারবাজারে লেনদেন চালু, সূচকের বড় উত্থান
থানায় ঝুলন্ত লাশ
উচ্চ পর্যায়ের বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন
মো: সাগর আকন, বরগুনা
Published : Saturday, 28 March, 2020 at 11:52 PM
Zoom In Zoom Out Original Text


উচ্চ পর্যায়ের বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠনবরগুনার আমতলী থানা হাজতে সন্দেহভাজন আসামী শানু হাওলাদারের রহস্যজনক মৃত্যুর ঘটনা তদন্তে বরিশাল বিভাগীয় পুলিশ কমিশনার-ডিআইজি মোঃ শফিকুল ইসলাম বিপিএম (বার) পিপিএম অতিরিক্ত ডিআইজি একেএম এহসান উল্লাহকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট উচ্চ পর্যায়ের বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন। শনিবার তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত কমিটি আমতলী থানা পরিদর্শন করেছেন।

বরিশাল রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি তদন্ত কমিটির প্রধান একেএম এহসান উল্লাহ বলেন, ডিআইজি স্যারের নির্দেশে ঘটনা তদন্তে সরেজমিন পরিদর্শন করেছি। ডিআইজি স্যার কঠোর অবস্থানে আছেন। তদন্ত সাপেক্ষে দোষীদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

জানাগেছে, উপজেলার গুলিশাখালী ইউনিয়নের পশ্চিম কলাগাছিয়া গ্রামে গত বছর ৩ নভেম্বরে ইব্রাহিম নামের একজন কৃষককে হত্যা করে দুর্বৃত্ত্বরা। ওই হত্যা মামলায় শানু হাওলাদারের সৎ ভাই মিজানুর রহমান হাওলাদার এজাহারভুক্ত আসামী। ওই মামলার শানু হাওলদারকে গত সোমবার রাত সাড়ে এগারটার দিকে সহেন্দভাজন আসামী হিসেবে আমতলী থানা পুলিশ ধরে নিয়ে আসে। তাকে ধরে নিয়ে আসার পর আমতলী থানা ওসি আবুল বাশার ও ওসি (তদন্ত) মনোরঞ্জন মিস্ত্রি আসামীর পরিবারের কাছে তিন লক্ষ টাকা চাঁদা দাবী করেন। ওই টাকা দিতে অস্বীকার করে তার পরিবার। টাকা না পেয়ে আসামী শানু হাওলাদারকে থানা হাজতে রেখে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের নামে শারীরিক নির্যাতন করে। নির্যাতন সইতে না পেয়ে আসামীর ছেলে সাকিব হোসেন গত মঙ্গলবার ওসি আবুল বাশারকে ১০ হাজার টাকা ঘুষ দেয়। কিন্তু তাতে তিনি তুষ্ট হয়নি। নির্যাতনের মাত্রা আরো বাড়িয়ে দেয়। 

বুধবার পরিবারের লোকজন এসে আসামী শানু হাওলাদারের সাথে দেখা করতে চাইলে পুলিশ দেখা করতে দেয়নি উল্টো পরিবারের লোকজনের সাথে অশ্লীল আচরন করে তাড়িয়ে দেয় এমন অভিযোগ নিহতের ছেলে সাকিব হোসেনের। বৃহস্পতিবার সকাল সোয়া ছয়টার দিকে আসামী শানু ওয়াস রুমে যাওয়ার কথা বললে পুলিশ তাকে ওয়াশ রুমে নিয়ে যায়। পরে এক ফাঁকে আসামী শানু হাওলাদার ওসি (তদন্ত) মনোরঞ্জন মিস্ত্রির কক্ষে ফ্যানের সাথে রশি পেচিয়ে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে বলে এমন দাবী ওসির আবুল বাশারের।

ঘটনা তদন্তে বরিশাল বিভাগীয় পুলিশ কমিশনার-ডিআইজি মোঃ শফিকুল ইসলাম বিপিএম (বার) পিপিএম রবিশাল রেঞ্জের অতিরিক্ত ডিআইজি একেএম এহসান উল্লাহকে প্রধান করে তিন সদস্য বিশিষ্ট উচ্চ পর্যায়ের বিভাগীয় তদন্ত কমিটি গঠন করেছেন। কমিটির অন্য সদস্যরা হলেন বরিশাল রেঞ্জের পুলিশ সুপার মোঃ হাবিবুর রহমান ও বরগুনা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) মোঃ শাহজাহান হোসেন। এদিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নিহত শানুর একটি নির্যাতনে আঘাতের চিহৃ সংযুক্ত ছবি ভাইরাল হয়েছে। ওই ছবিতে শানুর হাত, পা, রান, বুক, পিঠ ও বাহুতে আঘাতের চিহৃ রয়েছে।

অপর দিকে শুক্রবার (২৭ মার্চ) বিকালে পুলিশ সুপার মো. মারুফ হোসেন স্বাক্ষরিত এক পত্রে প্রত্যাহারের বিষয়ে জানানো হয়। ওসি আবুল বাশারকে প্রত্যাহার করে বরগুনা পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়েছে।

এরআগে, একই ঘটনায় আমতলী থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মনোরঞ্জন মিস্ত্রি ও ডিউটি অফিসার মো. আরিফুর রহমানকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়। 

দেশসংবাদ/প্রতিনিধি/আইশি


আরও সংবাদ   বিষয়:  থানা   ঝুলন্ত   লাশ   




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
আপনি কি করোনা আক্রান্ত? তাহলে যা করবেন
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up