ঢাকা, বাংলাদেশ || বৃহস্পতিবার, ৪ জুন ২০২০ || ২১ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭
Desh Sangbad
শিরোনাম: ■ ঢাকায় আসছে চীনা করোনা মেডিকেল টিম ■ বিসিএস ফল প্রকাশে দীর্ঘসূত্রিতা, পরীক্ষার্থীদের উদ্বেগ ■ গণপরিবহনে দ্বিগুণ ভাড়া নেয়া হচ্ছে ■ প্রাথমিক বিদ্যালয় ১৫ জুন পর্যন্ত ছুটি ■ ইউনাইটেডে আগুনে পুড়ে ৫ রোগীর মৃত্যুতে মামলা ■ করোনার টিকা উৎপাদন শুরু ■ করোনামুক্ত হলো এস আলম পরিবার ■ করোনা উপসর্গ নিয়ে ভিকারুননিসার শিক্ষিকার মৃত্যু ■ শ্বাসকষ্ট নিয়ে প্রধান বিচারপতি সিএমএইচে ভর্তি ■ পাচারকারীদের হাতে বন্দি আরও ১৯ বাংলাদেশি ■ দক্ষ বাংলাদেশিদের জন্য আয়ারল্যান্ডের ভিসা সহজ করার অনুরোধ ■ বিশ্বের যে সব শীর্ষ নেতা করোনায় আক্রান্ত!
আম গাছের মগডালে ৭ যুবক কোয়ারেন্টিন!
দেশসংবাদ ডেস্ক
Published : Sunday, 29 March, 2020 at 7:07 PM
Zoom In Zoom Out Original Text

আম গাছের মগডালে ৭ যুবক কোয়ারেন্টিন!

আম গাছের মগডালে ৭ যুবক কোয়ারেন্টিন!

করোনাভাইরাস বিস্তার ঠেকাতে কয়েকদিন আগে ২১ দিনের জন্য পুরো ভারত লকডাউন করা হয়েছে। এর মধ্যেই সাত যুবক চেন্নাই থেকে পশ্চিমবঙ্গের পুরুলিয়ার বলরামপুরের ভাঙিডিতে নিজ গ্রামে ফেরেন। সতর্ক গ্রামবাসী তাদেরকে হাসপাতালে পাঠান। চিকিৎসকরা তাদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে পরামর্শ দেন। মাটির বাড়িতে থাকার ঘর নেই। ফলে আম গাছের মগ ডালে মাচা করে তৈরি করা হল কোয়ারেন্টিন। গত কয়েকদিন ধরে সেই মাচাতেই বাস করছেন চেন্নাইফেরত যুবকরা। এ খবর জানিয়েছে ভারতীয় গণমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেস।

বাঁশ ও কাঠ দিয়ে মাটি থেকে প্রায় ৮-১০ ফুট উচ্চতায় আম গাছে তৈরি করা হয়েছে মাচা। প্লাস্টিক ও মশারি দিয়ে মাচার চারপাশ ঢেকে দেয়া হয়েছে। মোবাইল সচল রাখতে সেই মাচাতেই রয়েছে বিদ্যুতের পয়েন্ট। মাচায় থেকেও তারা সতর্কতা হিসেবে মুখে সবসময় মাস্ক পরে রয়েছেন। নিজেদের জামাকাপড় নিজেরাই পরিষ্কার করছেন।

চেন্নাইফেরত বিজয় সিং লায়া গণমাধ্যমকে বলেন, ‘গাছেই দিনের বেশিরভাগ সময় কাটাচ্ছি। খাবার নেওয়া বা অন্য প্রয়োজন ছাড়া নিচে নামছি না। সংক্রমণ যাতে না ছড়িয়ে পড়ে তার জন্যই এই পদক্ষেপ। এতে, গ্রামবাসীরাও খুশি।’

গাছে কোয়ারেন্টিনে থাকা আরেক যুবক বিমল সিং সর্দার বলেন, আমরা প্রথমে বলারামপুর পুলিশ স্টেশনে যাই। সেখানে থাকা কর্মকর্তা আমাদের কথা শুনে স্থানীয় হাসপাতালে পাঠান। চিকিৎকরা আমাদের নাম ও মোবাইল নাম্বার লিখে রাখেন। তারা আমাদেরকে ১৪ দিনের জন্য আইসোলেশনে থাকতে বলেন।

তিনি আরও বলেন, যখন আমরা গ্রামে ঢুকি তখন গ্রামবাসীরা আমাদের আটকায়। তারা আমাদেরকে কোনো রকম সুযোগ না দিয়ে গ্রামের পাশেই একটি আমগাছে আমাদের থাকার ব্যবস্থা করে।

ভাঙিডি গ্রামের এক বাসিন্দা বলেন, ‘অন্যদের যাতে ভাইরাস আক্রান্ত করতে না পারে তাই তাদের আলাদা রাখার ব্যবস্থা করা হয়েছে। বাড়িতে ঘর নেই। তাই এই বিকল্প পদ্ধতিতে রাখা হয়েছে। তবে, প্রয়োজনীয় সবকিছু সেখানে আমরা দিয়ে আসছি।’

প্রশাসন আইসোলেশনের জন্য আলাদা ব্যবস্থা করবে বলে আশা গ্রামবাসীদের। কোয়ারেন্টিনে থাকা দীনবন্ধু সিং সর্দার বলেন, ‘আমাদের খাবার আলাদা থালা, কাপড় ধোয়ার সাবান গ্রামবাসীরাই দিচ্ছেন।’

রাজ্যের পশ্চিমাঞ্চল উন্নয়নমন্ত্রী বলরামপুরের বিধায়ক শান্তিরাম মাহাতো বলেন, ‘অযোধ্যা পাহাড়ের কাছে এই ধরনের ব্যবস্থা চালু আছে। হাতি তাড়াতে এই উদ্যোগ করা হয়। আমি সাত যুবকের ফেরার কথা শুনেছি। দেখা যাক কী করতে পারি।’

দেশসংবাদ/জেআর/এসকে


আরও সংবাদ   বিষয়:  মগডাল   যুবক   কোয়ারেন্টিন  




আপনার মতামত দিন
আরো খবর
করোনা আপডেট
ঢাকায় আসছে চীনা করোনা মেডিকেল টিম
সর্বশেষ সংবাদ
আরো খবর >>
সর্বাধিক পঠিত
ফেসবুকে আমরা
English Version
More News...
সম্পাদক ও প্রকাশক
এম. হোসাইন
উপদেষ্টা সম্পাদক
ব্রি. জে. (অব.) আবদুস সবুর মিঞা
এনামুল হক ভূঁইয়া
যোগাযোগ
ফোন : ০২ ৪৮৩১১১০১-২
মোবা : ০১৭১৩ ৬০১৭২৯, ০১৮৪২ ৬০১৭২৯
ইমেইল : [email protected]
Developed & Maintenance by i2soft
logo
up